corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা আতঙ্কের মাঝেই কলকাতায় ডেঙ্গির থাবা! আক্রান্ত এক কিশোর ও বৃদ্ধ

করোনা আতঙ্কের মাঝেই কলকাতায় ডেঙ্গির থাবা! আক্রান্ত এক কিশোর ও বৃদ্ধ
দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন বলেন, '' আমরা তখনই সংক্রমণকে গোষ্ঠী সংক্রমণ বলি, যখন ৫০ শাতাংশ আক্রান্তের উৎস চিহ্নিত করা যায় না। দিল্লিতে ঠিক এমনটাই ঘটেছে, ৫০ শতাংশ আক্রান্তের উৎস অজানা । আমরা এক্ষেত্রে কিছুই বলতে পারিনা, যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার কেন্দ্র সরকার নেবে। গোষ্ঠী সংক্রমণ একটি টেকনিক্যাল টার্ম এবং কেন্দ্র সরকার সিদ্ধান্ত নেবে, এই টার্মটা ব্যবহার করবে কিনা। Representative image

নিঃশব্দে হানা দিল গত কয়েক বছরের অন্যতম ত্রাস ডেঙ্গি। খাস কলকাতায় ডেঙ্গি আক্রান্ত দু'জন।

  • Share this:

#কলকাতা: গত তিন মাস ধরে করোনা আতঙ্ক তাড়া করে বেরাচ্ছে এ রাজ্যের মানুষকে। রাজ্যে নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ৯৩২৮ জন, করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪৩২ জনের। করোনা নিয়ে নানাবিধ সতর্কতা,সাবধানবাণী। আর এরই মাঝে নিঃশব্দে হানা দিল গত কয়েক বছরের অন্যতম ত্রাস ডেঙ্গি। খাস কলকাতায় ডেঙ্গি আক্রান্ত দু'জন।

করোনা আবহে প্রায় সবাই বর্ষার মুখে ডেঙ্গির কথা ভুলেই বসেছিল। তবে সম্প্রতি আম ফান ঘূর্ণিঝড় ও প্রবল বৃষ্টির জন্য কলকাতা,উত্তর ২৪ পরগনা,দক্ষিণ ২৪ পরগনা,পূর্ব মেদিনীপুর,নদীয়া,হুগলি জেলার বিস্তীর্ণ অংশে প্রচুর জল জমে। এর পরপরই প্রায় প্রতিদিনই বৃষ্টির ফলেও জল জমতে থাকে সর্বত্র। আর তারই ফাঁক গলে ডেঙ্গি হানা দিল মহানগর কলকাতায়।

মধ্য কলকাতার থিয়েটার রোডের পাশেই মিডলটন স্ট্রিট এর বাসিন্দা এক ৭৮ বছর বয়সি বৃদ্ধ সম্প্রতি জ্বরে আক্রান্ত হন। তার সঙ্গে সারা শরীরে যন্ত্রণা,বমি হওয়া। মিন্টো পার্কের বেসরকারি হাসপাতালের বেলভিউ হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে প্রথমে যথারীতি করোনা পরীক্ষা করা হয়,কিন্তু তাতে নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। এরপরই সেখানকার মেডিসিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা ওই বৃদ্ধের ডেঙ্গি পরীক্ষা এলাইজা টেস্ট করে। আর সেখানেই ডেঙ্গির অস্তিত্ব নিশ্চিত হয়। প্রথমে ডেঙ্গি আক্রান্ত বৃদ্ধের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে আই সি ইউ তে ভর্তি করা হয়। তবে বর্তমানে তাঁর শারীরিক অবস্থার অনেকটাই উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা।

অন্যদিকে বালিগঞ্জের বাসিন্দা ১৩ বছর বয়সি এক কিশোরের সম্প্রতি তীব্র মাথা যন্ত্রণা শরীরে ব্যথা, চোখের যন্ত্রণা শুরু হওয়ায় পরিবারের তরফে তাকে পার্ক সার্কাসের ইনস্টিটিউট অফ চাইল্ড হেলথ এ ভর্তি করা হয়। সেখানকার চিকিৎসকরাও তার করোনা পরীক্ষা করেন। কিন্তু করোনা পরীক্ষা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরই তার ডেঙ্গির পরীক্ষা করা হয়। আর সেই রিপোর্টে দেখা যায় ডেঙ্গিতে আক্রান্ত ওই কিশোর।

ভর্তির পর থেকে কিশোরের প্লেটলেট দ্রুত কমতে শুরু করে। তাকে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়। তার শারীরিক অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক বলে জানান চিকিৎসকরা।

বর্ষার মরশুমে ডেঙ্গি তো হবেই। তবে জমা জল নিয়ে সতর্কবার্তা দিয়েছেন চিকিৎসকরা। জ্বর,গায়ে ব্যথা থাকলে করোনা পরীক্ষার সঙ্গে ডেঙ্গি পরীক্ষাও করা উচিত বলে বলছেন আর এন টেগোর হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অরিন্দম বিশ্বাস। তাঁর মতে,এখন সারা বছরই ডেঙ্গির রোগী পাওয়া যায়। তবে বর্ষার প্রাক মুহূর্তে এই সময় ডেঙ্গি হওয়াটা খুব অস্বাভাবিক নয়। এই জুন মাস থেকে অক্টোবর  মাস পর্যন্ত ডেঙ্গির প্রাদুর্ভাব চলবে। তবে মানুষ যেনো সতর্ক,সচেতন থাকে। ৪ দিনের বেশি জ্বর থাকলে দ্রুত চিকিৎসকের দ্বারস্থ হওয়া উচিত।আর কোনও মতেই অ্যান্টিবায়োটিক জাতীয় ওষুধ না খাওয়ার দিকে জোর দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 11, 2020, 2:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर