corona virus btn
corona virus btn
Loading

Coronavirus| 'ওষুধ শেষ-টাকা শেষ, বিস্কুট খেয়ে বেঁচে আছি,' ভারতে আটকে পড়েছেন ১৬০ পাকিস্তানি

Coronavirus| 'ওষুধ শেষ-টাকা শেষ, বিস্কুট খেয়ে বেঁচে আছি,' ভারতে আটকে পড়েছেন ১৬০ পাকিস্তানি
অমৃতসরে আটকে পড়া পাকিস্তানি নাগরিকরা
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বছর ৪০-এর রেখা মন্ধওয়ানি বার বার অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছেন৷ হাইপারটেনশনে ভুগছেন৷ বিদেশের মাটিতে আটকে পড়েছেন লকডাউনের জেরে৷ ওষুধ নেই৷ টাকাও শেষ৷

রেখা পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের বাসিন্দা৷ তাঁর মা ভেন্টিলেটরে রয়েছেন৷ পরিবার নিয়ে আপাতত তাঁদের ঠাঁই হয়েছে আগ্রার একটি আশ্রমে৷ গত ২৫ ধরে সেখানেই রয়েছেন৷ গত ৯ মার্চ রেখারা পাকিস্তান থেকে ভারতে এসেছিলেন মায়ের চিকিত্‍সার জন্য৷ ২০ মার্চ ফেরার কথা ছিল৷ করোনা ভাইরাসের জেরে হঠাত্‍ ভারত-পাক সীমান্ত পুরো সিল করা হয়েছে৷ রেখার কথায়,'আমাদের না জানিয়েই সীমান্ত সিল করে দিল৷ আমার মেয়েদের ধুম জ্বর৷ খেতে চাইছে না৷ ওরা বাড়ি ফিরতে চাইছে৷'

শুধু রেখারাই নন, পাকিস্তান থেকে ভারতে চিকিত্‍সা করাতে আসা প্রায় ১৬০ জন পাক নাগরিক আটকে পড়েছেন৷ কারণ, ওয়াঘা-আটারি সীমান্ত সিল করা রয়েছে গত ১৩ মার্চ৷ তার সঙ্গে ৩ মে পর্যন্ত লকডাউন৷

আরও একটি পাক পরিবার আটকে গিয়েছেন অমৃতসরে৷ ৩০ বছর বয়সি আকাশ (পেশায় ডাক্তার) মা ও বোনকে নিয়ে সিন্ধ থেকে ভারতে এসেছিলেন৷ আহমেদাবাদে এক আত্মীয়ের বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু ফেরার সময়ই বিপদ৷ অমৃতসরে একটি গেস্ট হাউসে আটকে পড়েছেন৷ আকাশ বলছেন, 'আমার মায়ের ওষুধ খুব শীঘ্রই ফুরিয়ে যাবে৷ আমার হাতেও আর বেশি টাকা নেই৷ আমি গেস্ট হাউসের মালিককে অনলাইনে ভাড়া দিয়েছি৷ খাবার ফুরিয়ে গিয়েছে৷ বিস্কুট খেয়ে দিন কাটছে৷'

আকাশ পাক হাইকমিশনে যোগাযোগ করেছিলেন৷ তাঁকে বলা হয়েছিল ৪ এপ্রিল ফেরার ব্যবস্থা হবে৷ তা এখনও হয়নি৷ গত ৩ এপ্রিল পাক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ডিরেক্টর জেনারেল অফ পাকিস্তান রেঞ্জার্স-কে একটি চিঠি লিখে জানায়, ভারতে ৮৩ জন পাক নাগরিক আটকে পড়েছেন৷ সূত্রের খবর, ভারতের বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, ভারতে আটকে পড়া বিদেশি নাগরিকদের ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে শীঘ্রই৷

পাক নাগরিক এহসান আহমেদ আটকে পড়েছেন পঞ্জাবের গুরুদাসপুরে৷ তিনি জানাচ্ছেন, মাত্র ১০০ কিমি দূরেই পাকিস্তান৷ গত ১২ মার্চ আটারি সীমান্ত দিয়ে পৈতৃক ভিটেয় ঠাকুমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন৷ আর ফিরতে পারছেন না৷ করচারি বাসিন্দা অঞ্জু মোহনলালও আটকে গিয়েছেন মুম্বইয়ে৷ বৃদ্ধা মাকে নিয়ে৷ আন্তর্জাতিক বিমান চালু না-হলে ফিরতেও পারবেন না৷

পাকিস্তানিদের জন্য ভারত সরকারের ভিসা নিয়ম হল, সবাইকে এক জায়গায় জড়ো হয়ে তারপর ফিরতে পারবেন৷ কিন্তু ভারতের বিভিন্ন প্রান্তেই আটকে রয়েছেন পাকিস্তানের নাগরিকরা৷ অবস্থা তাঁদের বেশ শোচনীয়৷

First published: April 14, 2020, 5:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर