corona virus btn
corona virus btn
Loading

একদিনে রেকর্ড আক্রান্ত কলকাতায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রামিত ১৫৮

একদিনে রেকর্ড আক্রান্ত কলকাতায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রামিত ১৫৮
representative image

রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ১০ হাজার ছাড়িয়েছে গতকালই। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নয়া করোনা আক্রান্ত ৪৫৪, সবমিলিয়ে এইমুহূর্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ১০,৬৯৮

  • Share this:

#কলকাতা: লাগামছাড়া করোনা সংক্রমণ! একদিনে রেকর্ড আক্রান্ত কলকাতায়। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় সংক্রামিত ১৫৮ জন। শুধু কলকাতাতেই মোট আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়াল ৩,৫১৪ জন। রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ১০ হাজার ছাড়িয়েছে গতকালই। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নয়া করোনা আক্রান্ত ৪৫৪, সব মিলিয়ে এইমুহূর্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ১০,৬৯৮।

আক্রান্তের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। পশ্চিমবঙ্গে করোনায় মৃত বেড়ে ৪৬৩। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মোট করোনায় মৃত ১২। এরমধ্যে উত্তর ২৪ পরগনায় মৃত ৫, কলকাতায় মৃত ৪, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় মৃত ১, হাওড়ায় মৃত ২। তবে এরমধ্যেও রয়েছে আশার খবর। করোনায় আক্রান্তের সংখভা যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে সুস্থতার হারও। এখনও পর্যন্ত করোনায় সুস্থ হয়েছেন মোট ৪,৫৪২জন।

গত কয়েকদিনে দেশে ভয়াবহ আকার নিয়েছে করোনা। বিশেষ করে দিল্লি ও মুম্বইয়ে করোনা সংক্রমণ লাগামছাড়া । তবে কি ভারতে গোষ্ঠী সংক্রমণ দেখা দিল ? উত্তরে কেন্দ্র স্পষ্ট জানিয়েছে, দেশে গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি। বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলনে আইসিএমআরের ডিরেক্টর জেনারেল বলরাম ভার্গব জানান, ''বিগত কয়েক দিন ধরে গোষ্ঠী সংক্রমণ নিয়ে নানা ধরনের আলোচনা হচ্ছে। কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO গোষ্ঠী সংক্রমণের কোনও নির্দিষ্ট সংজ্ঞা দেয়নি। কাজেই বলা যায়, আমাদের দেশে ১ শতাংশেরও কম এ রকম ঘটনা ঘটেছে। শহুরে এলাকায় এই সংখ্যাটা আরেকটু বেশি, কন্টেইনমেন্ট জোন-এ আরও একটু বেশি। মোদ্যা কথা হল, ভারতে গোষ্ঠী সংক্রমণ হয়নি। এটা শুধুমাত্র একটা ব্যবহৃত 'টার্ম'!

আইসিএমআরের ডিরেক্টর জেনারেল বলরাম ভার্গবের মতে লকডাউন ফল হয়েছে। দ্রুতগতিতে সংক্রমণ ছড়ানো আটাকনো গিয়েছে। এদিন কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, করোনা থেকে এখনই মুক্তি নয়। আরও কয়েক মাস থাকবে করোনা। আরও কঠিনভাবে মানতে হবে বিধি। জনসংখ্যার বৃহত্তম অংশে ছড়ায়নি করোনা, কিন্তু সবারই সংক্রমণের ঝুঁকি আছে। করোনায় সুস্থতার হার ৪৯.২১%।

Published by: Rukmini Mazumder
First published: June 13, 2020, 9:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर