করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা চিকিৎসায় নতুন আবিষ্কার, পুরস্কৃত ১৪ বছরের ভারতীয় বংশোদ্ভূত কিশোরী

করোনা চিকিৎসায় নতুন আবিষ্কার, পুরস্কৃত ১৪ বছরের ভারতীয় বংশোদ্ভূত কিশোরী
অঙ্কিতা চেবরোলু৷

অঙ্কিতা জানিয়েছে, ১৯১৮ সালের মহামারির কথা জানার পর থেকেই ভাইরাসের চিকিৎসার উপায় খুঁজে বের করতে আগ্রহী হয় সে৷

  • Share this:

#টেক্সাস: করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের কাজে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছেন বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানীরা৷ এরই মধ্যে করোনার সম্ভাব্য চিকিৎসা পদ্ধতির আবিষ্কার করে তাক লাগিয়ে দিলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত এক মার্কিন কিশোরী৷ ১৪ বছর বয়সি এই খুদে বিজ্ঞানীর নাম অঙ্কিতা চেবরোলু৷ নিজের এই আবিষ্কারের জন্য ২০২০ সালের থ্রিএম ইয়ং সায়েন্টিস্ট চ্যালেঞ্জ জিতেছেন আমেরিকার টেক্সাসের বাসিন্দা অঙ্কিতা৷ যার পুরস্কার মূল্য ২৫ হাজার ডলার৷

ইন-সিলিকো পদ্ধতি ব্যবহারের করে এমন একটি মলিকিউল তৈরির পথ দেখিয়েছে অঙ্কিতা, যা SARS-COV-2 ভাইরাসের সাহায্যকারী স্পাইক প্রোটিনকে অকেজো করে দিতে পারে৷ অঙ্কিতা যখন অষ্টম গ্রেডের ছাত্রী ছিল, তখনই সে প্রথম এই প্রোজেক্ট জমা দিয়েছিল৷ পরে গোটা বিশ্ব করোনা অতিমারির কবলে পড়ার পর করোনা ভাইরাস সংক্রমণের চিকিৎসার পথ খুঁজে বের করার উপরে জোর দেয় সে৷ প্রাথমিক ভাবে ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস নিয়ে কাজ করাই তার লক্ষ্য ছিল৷

সে যে এত বড় আবিষ্কার করে ফেলেছে, তা এখনও বিশ্বাসই হচ্ছে না অঙ্কিতার৷ প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে সে জানিয়েছে, 'অতিমারি, ভাইরাস এবং তার চিকিৎসার জন্য ওষুধ খুঁজে বের করার গবেষণায় এতটা সময় ব্যয় করার পরে আমি যে শেষ পর্যন্ত এমন অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি সেটাই যেন অবিশ্বাস্য লাগছে৷'

অঙ্কিতা জানিয়েছে, ১৯১৮ সালের মহামারির কথা জানার পর থেকেই ভাইরাসের চিকিৎসার উপায় খুঁজে বের করতে আগ্রহী হয় সে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর টিকাকরণ হলেও এবং বাজারে ওষুধ থাকা সত্ত্বেও কত মানুষ প্রতি বছর ইনফ্লুেয়ঞ্জা ভাইরাসে মারা যান, তা জানতে পেরেই আরও দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হয়ে ওঠে এই কিশোরী৷

নিজের গবেষণার মাধ্যমে গোটা বিশ্বকে চমকে দেওয়া অঙ্কিতার অনুুপ্রেরণা তার দাদু৷ পেশায় তিনি কেমিস্ট্রির একজন অধ্যাপক৷ নাতনিকে গবেষণায় বরাবর উৎসাহ জুগিয়েছেন তিনি৷ সবার মতো অঙ্কিতাও এখন চাইছে, করোনার গ্রাস থেকে মুক্ত হয়ে আগের মতো স্বাভাবিক ছন্দে ফিরুক গোটা বিশ্ব৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: October 19, 2020, 1:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर