করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

সুখবর! করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন শহরের সিংহভাগ আক্রান্ত, স্বস্তিতে প্রশাসন

সুখবর! করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন শহরের সিংহভাগ আক্রান্ত, স্বস্তিতে প্রশাসন
ফাইল ছবি

পূর্ব বর্ধমান জেলায় এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৬ জন । তার মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১২৮ জন ।

  • Share this:

#বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলার বাসিন্দাদের জন্য সুখবর । এই জেলায় আক্রান্তদের বেশিরভাগই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন । পূর্ব বর্ধমান জেলায় এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৬ জন । তার মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১২৮ জন । ১৮ জন বর্তমানে চিকিৎসাধীন । সবচেয়ে বড় কথা, এই জেলায় প্রায় ১৫০ জন আক্রান্ত হলেও , এখনও পর্যন্ত মৃত্যুর খবর মেলেনি ।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় আক্রান্তদের বেশিরভাগই বাইরের রাজ্য থেকে ফিরেছিলেন । প্রথম প্রথম কয়েকজন কলকাতা থেকে আক্রান্ত হয়ে ফিরেছিলেন । এরপর পরিযায়ী শ্রমিকদের আসার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাড়তে থাকে আক্রান্তের সংখ্যা । এখনও প্রতিদিন জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আক্রান্তের হদিশ মিলছে । আক্রান্তদের দুর্গাপুরের সনকা হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা চালানো হচ্ছিল । এখন বর্ধমান শহর লাগোয়া দু নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে বেসরকারি হাসপাতালকে করোনা হাসপাতাল করা হয়েছে ।

তবে সচেতন বাসিন্দারা বলছেন, জেলায় পরীক্ষা হচ্ছে প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম । লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষা বাড়ানো গেলে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তো অনেকটাই । জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে , এখন পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় ২০,২০৪ জনের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে । পরীক্ষা হয়েছে ১৯,৭০২টি । প্রতিদিন গড়ে ৩৫০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে । এখন আর কলকাতায় নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হচ্ছে না । বর্ধমান মেডিকেল কলেজেই করোনার পরীক্ষা হচ্ছে ।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, আক্রান্তরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেও এ ব্যাপারে এখনও সতর্ক থাকতে হবে সকলকেই । আপাতত সংক্রমণ পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও তা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে । তাই বাইরে গেলে  সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা জরুরি । সেইসঙ্গে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে । স্যানিটাইজার ব্যবহার বা সাবান জলে হাত ধোওয়া ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা জরুরি ।

Saradindu Ghosh

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 20, 2020, 9:21 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर