বয়স ১০৮, করোনা হারানোর মন্ত্র আজমগড়ের ঠাকুমার হাতের মুঠোয়

বয়স ১০৮, করোনা হারানোর মন্ত্র আজমগড়ের ঠাকুমার হাতের মুঠোয়
করোনামুক্ত দুলারিদেবী।

গোটা দেশ যখন করোনাকাঁটায় ত্রস্ত, মানুষকে মন্ত্রগুপ্তি শেখাচ্ছেন ওঁরাই। যেন কানে কানে বলছেন, ভয়ের থেকে এক পা এগোলেই জয়।

  • Share this:

    #আজমগড়: তাঁর বুকে ছিল লড়াই করার বল। আর চিকিৎসকদের সহায় হয়েছিল নাছোড় লড়াই। তাই গোটা বিশ্ব জুড়ে যখন করোনা ঘায়েল করছে বয়স্কদের, ১০৮ বছরের দুলারি দেবী রোগমুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরে গেলেন। বুধবার উত্তরপ্রদেশের আজমগড় মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তার বাড়িফেরা ঘিরে ছিল উৎসবের মেজাজ। হাসপাততালের ডেপুট প্রিন্সিপাল নিজে উপস্থিত থেকে তাকে সম্বর্ধনা দেন।

    গত ৩১ অগাস্টের ঘটনা। সর্দিকাশি ও জ্বর, এই উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন দুলারিদেবী। করোনা পরীক্ষা করতেই জানা যায় তিনি সংক্রমিত। অবস্থার অবনতি হয়। হাসপাতালের নোডাল ইনচার্জ নিয়াজ হাসান সংবাদমাধ্যমকে জানান, অসুস্থ হলেও একবারের জন্য হাল ছাড়েননি দুলারিদেবী। তাঁর জেদই চিকিৎসকদের আত্মবিশ্বাস দিয়েছে।

    সেই আত্মবিশ্বাসে ভর করে ১০ দিন লড়েছেন চিকিৎসকরা। ৯ সেপ্টেম্বর অবশেষে তাঁর কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। বুধবার বিকেলেই বাড়ি ফিরে যান দুলারিদেবী। 'ঠাকুমা'-কে ফেরাতে তখন চোখে জল হাসপাতালারে স্বাস্থ্যকর্মীদের। অন্য দিকে দশটা অনিদ্র রাত কাটিয়ে শেষমেশ যেন নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছেন না দুলারিদেবীর পরিবার।


    অবশ্য দুলারিদেবীই প্রথম নন। দিন কয়েক আগে পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ায়েরও করোনামুক্ত হয়ে নজির গড়েন এক শতায়ু বৃদ্ধা। অত্যন্ত খারাপ অবস্থা থেকে হাই ফ্লো নেজাল ক্যানুলার সাহায্যে টানা অক্সিজেন দেওয়ার পরে আসতে আসতে ঘুরে দাঁড়াতে থাকেন তিনি। গোটা দেশ যখন করোনাকাঁটায় ত্রস্ত, মানুষকে মন্ত্রগুপ্তি শেখাচ্ছেন ওঁরাই। যেন কানে কানে বলছেন, ভয়ের থেকে এক পা এগোলেই জয়।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    লেটেস্ট খবর