Home /News /cooch-behar /
Cooch Behar: স্কুলের গেটে বিজ্ঞাপন! দৃশ্য দূষণে মুড়ে যাচ্ছে শৈশব!

Cooch Behar: স্কুলের গেটে বিজ্ঞাপন! দৃশ্য দূষণে মুড়ে যাচ্ছে শৈশব!

স্কুলের গেটে বিজ্ঞাপনের বাহার! 

স্কুলের গেটে বিজ্ঞাপনের বাহার! 

কোচবিহার শহরের মধ্যে রয়েছে অনেক স্কুল। তার মধ্যে কিছু রয়েছে হাই স্কুল এবং কিছু রয়েছে প্রাইমারি স্কুল। আর স্কুল গুলিতে সদর গেটের সামনে লাগানো হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের পোস্টার এবং ব্যানার।

  • Share this:

    #কোচবিহার: কোচবিহার শহরের মধ্যে রয়েছে অনেক স্কুল। তার মধ্যে কিছু রয়েছে হাই স্কুল এবং কিছু রয়েছে প্রাইমারি স্কুল। আর স্কুল গুলিতে সদর গেটের সামনে লাগানো হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের পোস্টার এবং ব্যানার। আর তার জেরেই উদ্বেগ প্রকাশ করছেন অনেকে। শৈশবের স্মৃতি বিজড়িত এই স্কুল গুলির গেটের সামনে এই পোস্টর লাগানোর বিষয় নিয়ে বহুবার সরব হয়েছেন ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকেরা। তবুও বন্ধ হচ্ছে না এই দৃশ্য দূষণ। এই নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে একজন স্কুল শিক্ষক জানান, \"স্কুলের মেইন গেটের সামনে এই ধরনের পোস্টার যাতে না লাগানো হয়। সেই বিষয় নিয়ে আমরা সব সময় সচেতন থাকি। এবং গেটের সামনে লিখে ও দেওয়া হয়, যাতে কেউ স্কুলের গেটে কোন পোস্টার না লাগায়। তবে রাতের দিকে এসে পোস্টার লাগিয়ে দেওয়া হয়। তাই আর তাদের আটকানো যায় না। \"

    স্কুলের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে বহু ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষৎ এবং অতীত স্মৃতি। তবে এই পোস্টর গুলির কারণে দৃশ্য দূষণ হচ্ছে সব সময়। কোচবিহার প্রশাসনিক স্তরের কর্তারা মাঝে মাঝেই সরব হন এই সমস্ত বিষয় নিয়ে। তবু কোন হেলদোল নেই সাধারণ মানুষের। তবে যাতে দ্রুত এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হয় সেই দিকে নজর দেওয়ার আর্জি জানানো হচ্ছে বারংবার।

    আরও পড়ুনঃ ঝুঁকির খেয়া পারাপার অব্যাহত কোচবিহারে!

    এক ছাত্রের অভিভাবক রমেন পাল বলেন, \"স্কুলের গেটের সামনে বিভিন্ন ধরনের পোস্টার লাগানো থাকার কারণে। ছাত্র-ছাত্রীদের মনে খারাপ প্রভাব পড়ে। এই বিষয় নিয়ে আমরা যদি সচেতন না হই তবে তো শৈশব গুলি ধীরে ধীরে হারিয়ে যাবে। স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বিভিন্ন খারাপ বিষয় নিয়ে আসক্তির কারণ হিসেবেও দায়ী থাকে এই ধরনের পোস্টার গুলি। স্কুল চত্বরে অবিলম্বে নানা প্রকারের পোস্টার এবং ব্যানার লাগানো বন্ধ করা হোক এটাই অভিভাবক হিসেবে আমাদের দাবি।\"

    Sarthak Pandit
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Cooch behar

    পরবর্তী খবর