Home /News /cooch-behar /
Cooch Behar: ঝুঁকির খেয়া পারাপার অব্যাহত কোচবিহারে!

Cooch Behar: ঝুঁকির খেয়া পারাপার অব্যাহত কোচবিহারে!

ঝুঁকি [object Object]

কোচবিহার শহরের ওপর দিয়েই বয়ে গেছে তোর্সা নদী। আর এই নদী পারাপারের একটি মাত্র সেতু থাকার কারণে এখনও নদী পারাপার হয় ডিঙ্গি নৌকার মধ্যে দিয়ে।

  • Share this:

    #কোচবিহার: কোচবিহার শহরের ওপর দিয়েই বয়ে গেছে তোর্সা নদী। আর এই নদী পারাপারের একটি মাত্র সেতু থাকার কারণে এখনও নদী পারাপার হয় ডিঙ্গি নৌকার মধ্যে দিয়ে। রীতিমত ঝুঁকি নিয়েই পারাপার করেন বহু মানুষ। তবে এই সমস্যার দীর্ঘ দিনের। প্রতিদিন প্রায় ২০০ জনের বেশি মানুষ এই ভাবেই নদী পারাপার করে আসছেন। তবে এই সমস্যা সমাধান হবে কবে কেউ সঠিক ভাবে সেটা জানেন না। ডিঙ্গি নৌকার চালক বছর ৬০টের বৃদ্ধ অমৃত দাস জানান, \"আজ প্রায় কুড়ি বছরের বেশি সময় ধরেই এই নদী পারাপার করিয়ে আসছেন তিনি। তবে বর্ষার সময় নদীর জল বাড়লে খুব সমস্যায় পড়তে হয়। তবে বছরের অন্যান্য সময় সেরকম একটা সমস্যা হয় না। বর্ষার সময় নদীর জল বাড়লে পাড় ভেঙ্গে যায় মাঝে মাঝেই। তখন নদীর ঘাটের খুব সমস্যা হয়।\"

     

     

    সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নদীর দুই পাড়ের বাসিন্দাদের পাশাপাশি কোচবিহার বাসীর একাংশ প্রায় অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছেন এই নদী পারাপার করার বিষয়ে। তবে তারা আজও চান যে যাতে এই নদী পারাপার করার জন্য আরেকটি বিকল্প সেতু তৈরি হয় কোচবিহারের মধ্যে। কারণ একটি সেতু থাকার কারণে অনেকটা ঘুরে চলাফেরা করতে হয় তাদের।

    আরও পড়ুনঃ ময়না কাঠের দন্ডের শক্তিপুজোর মাধ্যমে সূচনা বড় দেবীর পুজোর

     

     

    তাতে অনেকটাই সময় ব্যয় হয়। এবং অসুবিধাও হয় অনেক। এমনই একজন নদী পারাপার করা কোচবিহারবাসী রফিকুল ইসলাম বলেন, \"আমার বাড়ি অনেকটা দূরে শহরের ঘুঘুমারি সেতু দিয়ে আসা যাওয়া করতে হলে অনেকটা সময় লাগে। এছাড়া অসুবিধা হয় অনেক।

    আরও পড়ুনঃ স্কুলের গেটে বিজ্ঞাপন! দৃশ্য দূষণে মুড়ে যাচ্ছে শৈশব!

     

     

    মূলত সেই কারণেই নৌকা দিয়ে পারাপার করি। তবে যদি একটি বিকল সেতু তৈরি হয় তোর্সা নদীতে তবে খুবই সুবিধা হয়।\" এই ভাবে ঝুঁকি নিয়ে নদী পারাপার করার সময় বিপদের আশঙ্কা লেগেই থাকে। তবে সময়ে সঙ্গে সঙ্গে এই ঝুঁকি নিয়ে চলাফেরা করতে একপ্রকার অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে কোচবিহারের মানুষেরা।

     

     

     

    Sarthak Pandit

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Cooch behar

    পরবর্তী খবর