Home /News /cooch-behar /
Cooch Behar: সন্ধ্যে নামলেই অন্ধকারে বিভিন্ন পৌর এলাকা! সমস্যায় বাসিন্দারা

Cooch Behar: সন্ধ্যে নামলেই অন্ধকারে বিভিন্ন পৌর এলাকা! সমস্যায় বাসিন্দারা

সন্ধ্যে [object Object]

দীর্ঘ কিছুদিন যাবৎ সন্ধ্যে নামলেই অন্ধকারে ঢেকে যাচ্ছে কোচবিহার পৌর এলাকাগুলোর একাংশ। আর তার জেরেই নিত্য ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পৌর বাসিন্দাদের। বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে পথবাতি।

  • Share this:

    #কোচবিহার: দীর্ঘ কিছুদিন যাবৎ সন্ধ্যে নামলেই অন্ধকারে ঢেকে যাচ্ছে কোচবিহার পৌর এলাকাগুলোর একাংশ। আর তার জেরেই নিত্য ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পৌর বাসিন্দাদের। বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে পথবাতি। আর এই সমস্যা স্থানীয় ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের বারংবার জানানো হলেও কোন সদুত্তর ভূমিকা পালন করছেন না তারা। বেশিরভাগ এলাকার এই সমস্যা প্রায় দিন সাতেকের বেশি সময় ধরে চলে আসছে। পৌর এলাকার এক বাসিন্ধা মৌমিতা পাল বলেন, \"আমরা দীর্ঘ সাত দিনের বেশি সময় ধরে এই সমস্যার সম্মুখীন হয়ে রয়েছি। সন্ধ্যে নামলেই আমাদের এলাকা অন্ধকারে ডুবে থাকছে। আর মাঝে মাঝে বৃষ্টি থাকার কারণে এলাকার রাস্তায় জল জমে গিয়ে ভোগান্তি আরোও বাড়িয়ে তুলছে। এছাড়া কিছু কিছু গলির রাস্তা দীর্ঘ দিন সংস্কারের অভাবে ভেঙে গিয়েছে। তার ফলে অন্ধকারে যখন তখন একটা বিপদের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। আমরা বারংবার ওয়ার্ডের কাউন্সিলরকে বিষয়টি নিয়ে জানিয়ে আসলেও কোন সমাধান হয়নি সমস্যার। আমাদের আশ্বস্ত করা হলেও কাজ কিছুই হচ্ছে না।\"

    কোচবিহারের বিভিন্ন পৌর এলাকার প্রবীণ নাগরিকদের বক্তব্য চলাফেরা করতে অসুবিধে হচ্ছে পৌর এলাকা অন্ধকার থাকার কারণে। যদি দ্রুত এই সমস্যা সমাধান না করা হয়। তবে আমরা এলাকাতে আন্দোলন করতে বাধ্য হব।

    আরও পড়ুনঃ এই বাগানেই রয়েছে কিছু বিরল প্রজাতির বাদুড়! যাবেন নাকি এই বাদুড় বাগানে!

    তবে এই বিষয় নিয়ে পৌর প্রসাশক মন্ডলীর প্রধান কোচবিহার পৌরসভার চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ মহাশয়কে ফোন মারফত যোগাযোগ করা হলে তিনি সম্পূর্ন বিষয়টি শুনে বলেন, \"আমি দ্রুত পদক্ষেপ নিচ্ছি এই সমস্ত সমস্যার যাতে খুব অল্প সময়ের মধ্যে সমাধান করে নেওয়া সম্ভব হয়।

    আরও পড়ুনঃ রাখি পূর্ণিমা উপলক্ষে রাখি বিক্রি শুরু কোচবিহারে, ভিড় জমছে দোকানে!

    এছাড়া আমি কিছুটা ব্যস্ত থাকার কারণে সরাসরি সাক্ষাৎকার দিতে পারলাম না। তবে আমি পৌর এলাকার নাগরিকদের সুস্থ এবং স্বাভাবিক পৌর পরিষেবা যাতে দ্রুত ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব হয়। সেই বিষয়ে সব সময় কড়া নজর রাখছি।\"

    Sarthak Pandit
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Cooch behar

    পরবর্তী খবর