Home /News /cooch-behar /
Cooch Behar News: দুরন্ত গতিতে ছুটছে মোটরবাইক, হঠাৎ হারাল নিয়ন্ত্রণ! তার পর? মর্মান্তিক...

Cooch Behar News: দুরন্ত গতিতে ছুটছে মোটরবাইক, হঠাৎ হারাল নিয়ন্ত্রণ! তার পর? মর্মান্তিক...

Cooch Behar News

Cooch Behar News

সময় আনুমানিক প্রায় সাড়ে ১০টা। কোচবিহারের ১৫নং ওয়ার্ডের মসজিদ পাড়া এলাকায় বাঁধের বাইপাস রোডের উপর ঘটে এই দুর্ঘটনা। (Cooch Behar News)

  • Share this:

    #কোচবিহার: গতকাল রাতে কোচবিহার শহরের ১৫নং ওয়ার্ডের মসজিদ পাড়া এলাকায় বাঁধের বাইপাস রোডের উপর ঘটে এই দুর্ঘটনা। তখন সময় আনুমানিক প্রায় সাড়ে ১০টা। একটা বাইক নিয়ে দুজন যুবক প্রায় ৮০ কিলোমিটার গতিবেগে এই রাস্তা দিয়ে আসছিল। যুবক দুজনের নাম আয়ুব হোসেন এবং সুমন আখতার। তাদের বয়স ২০ বছর এবং ১৮ বছর। তখন আচমকাই বাইকের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যায় তাদের। এবং তারা বাইক নিয়ে গিয়ে সজোরে রাস্তার পাশের গার্ড ওয়ালে ধাক্কা মারে। ধাক্কা মারার ফলে বাইক নিয়েই দুজন ছিটকে পরে। এই ঘটনার জেরে বাইকের চালকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে চালকের পেছনে যে ছেলেটি বসেছিলেন তার বিশেষ কোন গুরুতর চোট লাগেনি। এই ঘটনার পর এলাকার স্থানীয়রা দুজনকে উদ্ধার করে কোচবিহার মহারাজা জিতেন্দ্র নারায়ণ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে ইমারজেন্সিতে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা করার পর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

    আরও পড়ুন: চোরের হাত থেকে স্কুলকে বাঁচালেন শিক্ষিকা, উপায় শুনলে তাজ্জব হয়ে যাবেন!

    দুজনের অবস্থার বিষয়ে চিকিৎসক জানান, "বিশেষ কিছু বলা সম্ভব নয়। একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে অপরজনের সামান্য কিছু চোট লেগেছে। আমি একজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা পর ছেড়ে দিতে বলেছি। এবং অপরজনকে, যে সব থেকে বেশি আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে। তার মাথার স্ক্যান করার পর হাসপাতালে ভর্তির কথা লিখে দিয়েছি"।

    আরও পড়ুন: জ্ঞানেশ্বরী দুর্ঘটনায় আজও 'নিখোঁজ' বাবা, ১২ বছর পরও মৃত্যুর শংসাপত্র পাওয়ার লড়াই জারি পরিবারের!

    দুর্ঘটনার এই গোটা বিষয়টি নিয়ে এলাকার স্থানীয়রা জানান, "এই দুজন যুবক সম্পূর্ণ মদ্যপ অবস্থায় বাইক নিয়ে এই রাস্তা দিয়ে আসছিল। এবং তাদের বাইকের গতি ছিল বেশ অনেকটাই। আনুমানিক প্রায় ৮০ কিলোমিটার গতিবেগ। তখন আচমকাই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে তারা। এবং বাইক নিয়ে সজোরে গিয়ে ধাক্কা মারে রাস্তার পাশে গার্ড ওয়ালে। তখন আমরা সেখানে দৌড়ে যাই। এবং দেখতে পাই একজনের অবস্থা রীতিমতো আশঙ্কাজনক। তার মাথা ফেটে গেছে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। অপরদিকে আরেকজনের সেরকম কিছু ক্ষতি হয়নি। তারপর আমরা দুজনকে কোচবিহার এমজেএন মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাই"। সার্থক পন্ডিত

    First published:

    Tags: Bangla News, Cooch Behar news

    পরবর্তী খবর