Home /News /cooch-behar /
Cooch Behar: বাড়ির দুর্গাপুজোয় নিজে হাতেই মূর্তি বানান বাড়ির ছেলে সিদ্ধার্থ!

Cooch Behar: বাড়ির দুর্গাপুজোয় নিজে হাতেই মূর্তি বানান বাড়ির ছেলে সিদ্ধার্থ!

নিজের [object Object]

দীর্ঘ ২০ বছরের বসু বাড়ির দুর্গাপুজোর মূর্তি বানায় বাড়ির ছেলে নিজেই। সিদ্ধার্থের হাতের তৈরি মূর্তি দিয়ে দীর্ঘ ১৭ বছরের বেশি সময় ধরেই পুজো হয়ে আসছে বসু বাড়িতে।

  • Share this:

    #কোচবিহার: দীর্ঘ ২০ বছরের বসু বাড়ির দুর্গাপুজোর মূর্তি বানায় বাড়ির ছেলে নিজেই। সিদ্ধার্থের হাতের তৈরি মূর্তি দিয়ে দীর্ঘ ১৭ বছরের বেশি সময় ধরেই পুজো হয়ে আসছে বসু বাড়িতে। সাবেকি আদলে তৈরি করা হয় বসু পরিবারের মূর্তি। বাংলার সাবেকি আমার ছোঁয়া বসু পরিবারের মূর্তির কাঠামো লক্ষ্য করা যায়। এ বাড়ির পুজোর আরেকটি বিশেষত্ব হলো,এ বাড়ির পুজো নিজেই করে সিদ্ধার্থ।

    বসু বাড়ির ঠিকানার গুগল ম্যাপ লিঙ্ক:     Bose Studio

    প্রতি বছরের মত এ বছরেও মূর্তি তৈরির ব্যস্ততা একেবারে তুঙ্গে বসে বাড়িতে। দিনের প্রায় বেশিরভাগ সময়ই মূর্তি তৈরি নিয়ে ব্যস্ত হয়ে থাকছে সিদ্ধার্থ। পুজোর সময় এবছর কিছুটা এগিয়ে আসার কারণে এই ব্যস্ততা বলে জানিয়েছে সিদ্ধার্থ। সিদ্ধার্ত আরো বলেন, \"আমার পাশাপাশি বাড়ির সকলের ব্যস্ততাও এ সময়টাতে খুব বেশি থাকে। তার মূল কারণ হলো মূর্তিটা হয়তো আমি তৈরি করি। তবে মূর্তি তৈরির ক্ষেত্রে সাহায্য করার বিষয়ে বাড়ির সকলে ভূমিকা অনেকটাই রয়েছে।\"

    আরও পড়ুনঃ নিউজ ১৮ লোকাল খবরের জের! শুরু হল বেহাল রাস্তা সংস্কারের কাজ

    সিদ্ধার্থর বাবা বলেন, \"ছোটবেলা থেকেই ছেলের পুজোর বিষয়ে অনেকটাই আগ্রহ ছিল। ছোটবেলায় একবার সে কাগজ দিয়ে দুর্গা প্রতিমা তৈরি করেছিল। তখন থেকেই আমরা ওকে উৎসাহিত করতে শুরু করি মাটির মূর্তি তৈরি জন্য। বর্তমানে প্রায় ১৭ বছরের বেশি সময় ধরে সিদ্ধার্থ বাড়ির পুজোর মূর্তিটি তৈরি করছে। ওর এই মূর্তি তৈরি এবং পূজোর বিষয় নিয়ে পরিবারের সকলের পাশাপাশি পাড়া-প্রতিবেশীরাও দারুন খুশি।\"

    আরও পড়ুনঃ শামুকখোল পাখিদের সংরক্ষণের দাবি! তৎপর কোচবিহার বনবিভাগ

    সিদ্ধার্থর এই পুজোর বিষয়ে সিদ্ধার্থের মা জানান, \"ছেলের করা এই দুর্গাপূজা নিয়ে সবসময়ই আমরা আনন্দে থাকি। বছর ঘুরতে না ঘুরতেই মনে হতে থাকে কত দিনে দুর্গা পূজা আসবে। তারপর রথের মেলা থেকে যখন কাঠামোতে মাটিদেওয়া শুরু হয়। তখন থেকে আমাদের বাড়ির সবার মধ্যে একটা অন্যরকম ব্যস্ততা থাকে।\" দুর্গা পুজো আসলেই, দীর্ঘ কুড়ি বছরের বসু পরিবারের এই পুজো রাজ রাজেন্দ্র নারায়ণ রোড এলাকার সমস্ত মানুষের মধ্যে এক অন্যরকম উৎসাহ ছড়িয়ে দেয়।

    Sarthak Pandit
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Cooch behar, Durga Puja

    পরবর্তী খবর