২০০ বছরের পুরনো স্কুলে অপরিচ্ছন্নতার অভিযোগ, কুকুরের কামড় খাচ্ছেন পড়ুয়ারা

News18 Bangla
Updated:Jul 11, 2018 04:19 PM IST
২০০ বছরের পুরনো স্কুলে অপরিচ্ছন্নতার অভিযোগ, কুকুরের কামড় খাচ্ছেন পড়ুয়ারা
Hindu School
News18 Bangla
Updated:Jul 11, 2018 04:19 PM IST

#কলকাতা: শহরের প্রথম সারির বাংলা মিডিয়াম স্কুলে অপরিচ্ছন্নতার অভিযোগ। হিন্দু স্কুলে বিক্ষোভ দেখান অভিভাবকরা। তাঁদের অভিযোগ, স্কুলের ভিতরে যত্রতত্র নোংরা পড়ে থাকে। রাস্তার কুকুর ঘুরে বেড়ায়। শৌচাগারের অবস্থাও তথৈবচ। অপরিচ্ছন্ন থাকায় পড়ুয়ারা শৌচাগারে যেতে চায় না। এ ব্যাপারে স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। এদিন প্রায় ঘণ্টা খানেক বিক্ষোভ দেখান অভিভাবকরা। স্কুল কর্তৃপক্ষের সাফাই, সাফাইয়ের লোক কম। পুরসভার সঙ্গে যোগাযোগ করে কুকুর সমস্যা মেটানো হবে। কর্তৃপক্ষের আশ্বাস, পরিস্থিতি উন্নতি করার চেষ্টা করছে।

ঐতিহ্যবাহী হিন্দু স্কুলের যত্রতত্র ঘুরে বেড়াচ্ছে কুকুর। যেখানে সেখানে পড়ে নোংরা-আবর্জনা। তার মধ‍্যেই চলছে ক্লাস। এই অভিযোগে আজ বিক্ষোভ দেখান অভিভাবকরা। সমস‍্যার কথা মেনে নিলেও, স্কুল কর্তৃপক্ষের গলায় সাফাইয়ের সুর।

এই স্কুল নিজেই এক ইতিহাস। ২০০ বছর ধরে তার পথ চলা। ইতিহাস আর ঐতিহ‍্য হাত ধরে চলেছে। এই সেই হিন্দু স্কুল যার প্রাক্তনীর তালিকা মণি-মুক্তোয় ভরা। সুরেন্দ্রনাথ বন্দোপাধ‍্যায়, মাইকেল মধুসূদন দত্ত, সত‍্যেন্দ্রনাথ বসু, প্রশান্তচন্দ্র মহালানবিশ, মেঘনাদ সাহা- তালিকাটি দীর্ঘ। এ হেন হিন্দু স্কুলেরই এখন শোচনীয় অবস্থা ৷

আরও পড়ুন 

ফের মামলার ফাঁসে শিক্ষক নিয়োগ, হাইকোর্টের তোপের মুখে SSC

Loading...

২০০ বছরের ঐতিহ্যবাহী হিন্দু স্কুল। সেখানে পড়াশোনা করতে গিয়ে কুকুরের কামড় খেতে হচ্ছে পড়ুয়াদের। অভিভাবকদের অভিযোগ, স্কুলের পরিবেশ অত‍্যন্ত অস্বাস্থ‍্যকর। একাধিকবার কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও লাভ হয়নি।

স্কুলের অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের প্রতিবাদে বুধবার বিক্ষোভ দেখান অভিভাবকরা। সমস্যার কথা মেনে নিলেও হিন্দু স্কুল কর্তৃপক্ষের গলায় সাফাইয়ের সুর।

আরও পড়ুন 

৪০ জন নার্সারি পড়ুয়াকে অন্ধকার ঘরে আটকে রাখল স্কুল, আসল কারণ জানলে শিউরে উঠবেন

কর্তৃপক্ষের দাবি, তারা সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে। কিন্তু, অভিভাবকরা বলছেন, এ কথা তাঁরা অনেক দিন ধরেই শুনছেন। কিন্তু, কাজ হচ্ছে কোথায়? ঐতিহাসিক, ঐতিহ্যবাহী হিন্দু স্কুলের এমন দুর্দশা কি ঘুচবে না?

First published: 04:18:00 PM Jul 11, 2018
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर