Home /News /business /
Mutual Fund: ব্যাঙ্কের তুলনায় মিউচুয়াল ফান্ডে টাকা ঢালতে বেশি আগ্রহী বিনিয়োগকারীরা, কিন্তু কেন?

Mutual Fund: ব্যাঙ্কের তুলনায় মিউচুয়াল ফান্ডে টাকা ঢালতে বেশি আগ্রহী বিনিয়োগকারীরা, কিন্তু কেন?

ব্যাঙ্কের তুলনায় মিউচুয়াল ফান্ডে টাকা ঢালতে বেশি আগ্রহী বিনিয়োগকারীরা, কিন্তু কেন?

ব্যাঙ্কের তুলনায় মিউচুয়াল ফান্ডে টাকা ঢালতে বেশি আগ্রহী বিনিয়োগকারীরা, কিন্তু কেন?

Mutual Fund: মানুষ নিরাপদ বিনিয়োগের খোলস ছেড়ে বেরোচ্ছে। ঝুঁকি নিতে পছন্দ করছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: একটা সময় ছিল যখন আম-আদমি টাকা রাখতে ব্যাঙ্কে ছুটত। বর্তমানে আমূল বদলে গিয়েছে ছবিটা। বিনিয়োগের কেন্দ্র বিন্দু থেকে ধীরে ধীরে সরে যাচ্ছে ব্যাঙ্ক। সেই পরিসর দ্রুত দখল করছে মিউচুয়াল ফান্ড (Mutual Fund)। বর্তমানে মিউচুয়াল ফান্ডে (Mutual Fund) বিনিয়োগ করাটাই ট্রেন্ড। এর অন্যতম কারণ হল, মানুষ নিরাপদ বিনিয়োগের খোলস ছেড়ে বেরোচ্ছে। ঝুঁকি নিতে পছন্দ করছে।

প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে নিরাপদ বিনিয়োগের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হল ফিক্সড ডিপোজিট। কিন্তু বর্তমানে মানুষ অনেক বেশি সচেতন। বিনিয়োগের বিভিন্ন ক্ষেত্র সম্পর্কে সে অনেক বেশি ওয়াকিবহাল (Mutual Fund Investment)। তাছাড়া দৃষ্টিকোণও বদলে গিয়েছে। অতীতে মানুষ নিশ্চিত রিটার্ন পেতে নিরাপদ বিনিয়োগ পছন্দ করত। এখন উচ্চ হারে রিটার্ন চান বিনিয়োগকারীরা। সে জন্য ঝুঁকি নিতেও পিছ-পা হন না তাঁরা।

মেয়াদ শেষে ফিক্সড ডিপোজিটে কত রিটার্ন পাওয়া যাবে তা অঙ্ক কষে বের করা যায়। মুদ্রাস্ফীতির ঝুঁকিও নেই। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, যদি এফডি-তে ৬-৭ শতাংশ রিটার্ন দেয় এবং মুদ্রাস্ফীতি ৪ শতাংশ হয় তাহলে আসল রিটার্ন হবে ২-৩ শতাংশ। মুদ্রাস্ফীতি ৬ শতাংশের উপরে উঠলে রিটার্ন হবে নগণ্য। তাছাড়া এতে সর্বোচ্চ হারে ট্যাক্স কাটা হয়। যদি কেউ ৩০ শতাংশ ট্যাক্স ব্র্যাকেটে থাকেন তবে ৭ শতাংশ হারে ফিক্সড ডিপোজিটে শুধুমাত্র ট্যাক্স পরবর্তী ৪.৯ শতাংশ রিটার্ন দেবে।

আরও পড়ুন-রাশিফল ৩ ফেব্রুয়ারি; দেখে নিন কেমন যাবে আজকের দিন
 ভিন্ন কর কাঠামো মানেই কর পরবর্তী রিটার্ন ভিন্ন ভিন্ন হবে। ফিক্সড ডিপোজিটে রিটার্ন মেলে সুদের হারের উপর। অন্য দিকে মিউচুয়াল ফান্ডে মূলধনের লাভের উপর রিটার্ন নিশ্চিত করা হয়। ট্যাক্স কার্যকর রিটার্ন ছাড়াও মিউচুয়াল ফান্ডের একাধিক বৈশিষ্ট আছে যা ফিক্সড ডিপোজিট কোনও ভাবেই দিতে পারে না।

বাজারে ৪-৫ রকমের এফডি আছে। সুদের হার আগে থেকেই স্থির করা থাকে। মেয়াদ ৭ দিন থেকে ১০ বছর হতে পারে। মিউচুয়াল ফান্ডে বিকল্পের সুবিধা অনেক বেশি। ইক্যুইটি, ঋণ বা সোনার মতো বিনিয়োগের একাধিক মাধ্যম রয়েছে।

ব্যাঙ্কে ফিক্সড ডিপোজিটের থেকে কেন কিউএমএফওএফ বেছে নেওয়া উচিত? কারণ ঝুঁকি কমায়। একাধিক মাধ্যম থাকায় বিনিয়োগে বৈচিত্র আসে। মিউচুয়াল ফান্ড কিংবা অন্য যে কোনও বিনিয়োগ থেকে প্রাপ্ত আয় কিংবা লাভ বেশ কিছু বিষয়ের উপর নির্ভর করে। এগুলি হল- কোন ধরনের ফান্ডে বিনিয়োগ করা হয়েছে, কতদিন ধরে লগ্নি করা হয়েছে, শেয়ার বাজারের ওঠা-পড়া এবং সর্বোপরি ফান্ড ম্যানেজারের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা কতটা।

First published:

Tags: Investment, Mutual Fund

পরবর্তী খবর