Home /News /business /
গ্রিন এনএফটি কি জানেন? বিনিয়োগের নতুন এই পন্থা নিয়ে আপনি কি ভেবে দেখতে চান?

গ্রিন এনএফটি কি জানেন? বিনিয়োগের নতুন এই পন্থা নিয়ে আপনি কি ভেবে দেখতে চান?

প্রতীকী ছবি ৷

প্রতীকী ছবি ৷

যাঁরা সবুজ এনএফটি-র বিষয়ে এখনও জানেন না তাঁদের জন্য এই বিষয়টি নিয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বেশিরভাগ ক্রিপ্টো বিনিয়োগকারীরা মনে করেন যে এখনও পর্যন্ত শক্তি এবং ভারী প্রক্রিয়াকরণ পদ্ধতি ব্যবহার করেই NFT টোকেন তৈরি করা হয়। যদিও ক্রিপ্টো এবং এনএফটি এক্সচেঞ্জের দিকে সরাসরি নজর দিলে স্পষ্ট হয়ে যায় যে বর্তমানে স্থিতিশীল এবং সবুজ প্রযুক্তি ব্যবহার করে নতুন NFT তৈরি করা শুরু হয়ে গিয়েছে। গ্রিন NFT কী? যাঁরা সবুজ এনএফটি-র বিষয়ে এখনও জানেন না তাঁদের জন্য এই বিষয়টি নিয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

    বেশিরভাগ NFT প্রুফ-অফ-ওয়ার্ক (PoW) ব্লকচেইনে তৈরি করা হয়। এই এনএফটি তৈরি করতে মাইনিং প্রক্রিয়ার জন্য প্রচুর পরিমাণে কম্পিউটিং শক্তি প্রয়োজন। অধিকাংশ NFT Ethereum ব্লকচেইনেই নির্মিত হয়। ইথেরিয়াম এনার্জি কনজাম্পশন ইনডেক্স-এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী ইথেরিয়াম ব্লকচেইনে নির্মিত প্রত্যেকটি এনএফটি-এর জন্য ২২৩.৮৫ কিলোওয়াট প্রতি ঘন্টা (kWh) বিদ্যুৎ খরচ হয়। PoW অনুযায়ী, Ethereum ব্লকচেইনে এক ইউনিট NFT লেনদেনের ১২৪.৮৬ কেজি কার্বন ডাই-অক্সাইড নিষ্কৃত হয়। স্বাভাবিকভাবেই নতুন প্রজন্মের এনএফটিগুলিকে পরিবেশ-বান্ধব এবং কার্বন-পজিটিভ করার জন্য কিছু পরিবর্তন আনা প্রয়োজন যাতে এনএফটি তৈরিতে বেশি শক্তির অপচয় হয় এমন প্রক্রিয়া বন্ধ করা যেতে পারে।

    গ্রিন NFT কী?

    গ্রিন NFT ব্যবহারকে ইমপ্যাক্ট এনএফটিও বলা হয়। গ্রিন এনএফটিগুলি একটি প্রুফ অফ স্টেক (PoS) ব্লকচেইনে বা একটি সাধারণ কার্বন মাইনিং প্রক্রিয়া ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। এই প্রক্রিয়ায় মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায় এই NFT টোকেনগুলি পরিবেশবান্ধব এবং কিছু ক্ষেত্রে তারা জলবায়ুর জন্য উপকারীও সাব্যস্ত হতে পারে। আসলে সম্পূর্ণ ইথেরিয়াম ব্লকচেইন একটি PoS সিস্টেমে রূপান্তরিত হতে চলেছে যাতে ভবিষ্যতে NFT-এর কারণে পরিবেশের উপর খুব কম ক্ষতিকারক প্রভাব পড়ে।

    ZebPay ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ প্ল্যাটফর্মের প্রধান কার্যনির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) অবিনাশ শেখর বলেছেন যে, “নির্মাণ হোক বা প্রযুক্তি, তা স্থিতিশীল হওয়া প্রয়োজন। ভারতে লক্ষ লক্ষ দক্ষ স্থানীয় শিল্পী ও কারিগর রয়েছেন। গ্রিন এনএফটি মার্কেটপ্লেস তাঁদের নতুন সুযোগ প্রদান করতে পারে। ক্রিপ্টোকারেন্সি স্পেসে অনেক কোম্পানিই কার্বন নিঃসরণ কমাতে পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির উৎসগুলির ব্যবহারের দিকে এগোচ্ছে। যদিও এটি একটি নতুন স্পেস এবং একাধিক ক্রিপ্টো কোম্পানি অত্যাধুনিক সমাধান বের করার জন্য নিয়মিত কাজ করে চলছে।”

    সোলানা (Solana) এবং কার্ডানো (Cardano) জাতীয় প্রযুক্তি কোম্পানি তাদের টোকেন প্রভাবের মাধ্যমে NFT-এর ধারণাকে আরও উন্নত করে চলেছে। এই কারণেই তারা খুব অল্প সময়েই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যাঁরা এনএফটিতে বিনিয়োগ করতে চাইছেন এবং কীভাবে বিনিয়োগ করবেন তা বুঝতে পারছেন না, তাঁদের জন্য সবচেয়ে ভালো বিকল্প হল ZebPay। এটি ভারতের সবচেয়ে পুরনো ক্রিপ্টো কোম্পানি যারা লগ্নিকারিদের ১০০-এর বেশি এনএফটি টোকেন বিকল্প প্রদান করে। ৷

    ডিজিটাল আর্টিস্টরা গ্রিন NFT-র প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছেন

    Beeple নামে পরিচিত ডিজিটাল আর্টিস্ট মাইক উইঙ্কেলম্যান হলেন তাঁদের মধ্যে একজন যাঁরা সুরক্ষিত এবং স্থিতিশীল ভবিষ্যতের জন্য NFT-র উপর নির্ভর করছেন। তিনি তাঁর শিল্পকর্ম ‘Everydays: The First 5000 Days’ ৬৯ মিলিয়ন ডলারে ক্রিস্টিতে (Christie) বিক্রি করে NFT-র প্রতি তাঁর বিশ্বাস দেখিয়েছেন। Beeple সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছে যে তাঁর শিল্পকর্ম কার্বন নিরপেক্ষ বা কার্বন নেগেটিভ হবে। এর অর্থ হল এই এনএফটি ভবিষ্যতে বায়ুমণ্ডল থেকে CO2 গ্রহণ এমন প্রযুক্তি, পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি এবং সংরক্ষণ প্রকল্প বা প্রযুক্তিতে বিনিয়োগ করে কার্বন ডাই-অক্সাইড নির্গমণকে সম্পূর্ণরূপে প্রতিরোধ করতে সাহায্য করবে।

    আরও পড়ুন:  Maruti Suzuki: বাজেট গাড়ি চাইছেন? রেনো কুইড আর মারুতি সুজুকি অল্টোর মধ্যে কোনটা নিলে ঠকবেন না?

    দোজা ক্যাট এবং জন লেজেন্ডের মতো সঙ্গীত শিল্পিরাও কুইন্সি জোন্সের NFT বিক্রির জন্য মার্কেটপ্লেসে রেখেছেন। ন্যান্সি বেকার কাহিল এবং জুলিয়ান অলিভারের মতো অন্যান্য ডিজিটাল আর্টিস্টরাও সবুজ এনএফটি-র প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। পরিবেশ দূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে চিন্তিত ব্যক্তিরা যদি NFT-র প্রতি আগ্রহী হন তবে চিন্তার কোনও কারণ নেই, তাঁদের কাছে পরিবেশ সহায়ক বিকল্প রয়েছে।

    আরও পড়ুন:  Multibagger Stock: আগামী এক বছরে এই ৪টি স্টকে ৩৮% রিটার্ন! মালামাল হওয়া সময়ের অপেক্ষা?

    তবে বিনিয়োগ করার আগে গ্রিন এনএফটি এবং যে সম্পস্ত শিল্পীরা কার্বন নিরপেক্ষ বা কার্বন নেগেটিভ প্রকল্প বা প্রযুক্তিতে বিনিয়োগ করার পরিকল্পনা করছেন তাঁদের বিষয়টি ভালোভাবে জেনে নেওয়া উচিত। এছাড়া, নিরাপদ লেনদেনের জন্য ZebPay-এর মতো বিশ্বাসযোগ্য ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জে প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করা উচিত। এই প্ল্যাটফর্মে একটি অ্যাকাউন্ট খুলে খুব সহজেই বিনিয়োগ এবং লেনদেন শুরু করা যাবে।

    First published:

    Tags: Business

    পরবর্তী খবর