Home /News /business /
Union Budget 2022: বাজেটে কি গ্রামই টার্গেট নির্মলার? কৃষকদের মান ভাঙাতে থাকতে পারে জনমোহিনী প্রতিশ্রুতি!

Union Budget 2022: বাজেটে কি গ্রামই টার্গেট নির্মলার? কৃষকদের মান ভাঙাতে থাকতে পারে জনমোহিনী প্রতিশ্রুতি!

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

Union Budget 2022: এই বাজেটে কৃষকদের জন্যে বড়সড় ‘উপহার’ থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: এবারের বাজেটের অভিমুখ কি গ্রাম? ফেব্রুয়ারিতেই উত্তর প্রদেশ এবং পঞ্জাব-সহ ৫ রাজ্যে ভোট। শেষ মুহূর্তে গ্রামীণ ভোটারদের মনে জায়গা পেতে কেন্দ্রীয় বাজেটে নির্মলা সীতারমণ (Nirmala Sitharaman) বড় ঘোষণা করতে পারেন বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। সদ্য শেষ হয়েছে কৃষক আন্দোলন। ফলে এই বাজেটে কৃষকদের জন্যে বড়সড় ‘উপহার’ থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বিশেষ করে পিএম কিষাণ যোজনার সুবিধা যাঁরা পান, তাঁদের জন্যেও বিশেষ ঘোষণা হতে পারে।

রাজনীতির কারবারিরা বলেন, দিল্লির রাস্তা উত্তর প্রদেশ হয়েই যায়। তাই স্বাভাবিকভাবেই যোগী রাজ্যে জিততে মরিয়া বিজেপি। এই ৫ রাজ্যের ভোটের ফল ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে পড়তে পারে, এই সহজ সত্যটা গেরুয়া শিবির ভালোই বোঝে। কৃষক আন্দোলনের পর কৃষকদের মধ্যে, আরও ভালো করে বললে পশ্চিম উত্তর প্রদেশের কৃষকদের মধ্যে বিজেপির জনপ্রিয়তায় টান পড়েছে। ফলে আসন্ন বাজেটে কৃষকদের মন জয়ের সুযোগ কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ছাড়বে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন- বাজেটে এই ১০ পদক্ষেপ নিতে হবে নির্মলাকে, তবেই হাসি ফুটবে আমজনতার মুখে!

অর্থনীতিবিদ প্রণব সেন বলছেন, ‘সন্দেহ নেই, এবারের বাজেটে প্রতিশ্রুতির বন্যা বইয়ে দেবে মোদী সরকার। উত্তর প্রদেশে ডবল ইঞ্জিন সরকারের স্লোগান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি স্বয়ং। তাই বাজেটে এমন কিছু কেন্দ্রীয় প্রকল্পের ঘোষণা থাকতে পারে, যা ভোটমুখী উত্তর প্রদেশে ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারকে সুবিধে পাইয়ে দেবে’। ডেলয়েট ইন্ডিয়ার অর্থনীতিবিদ রুমকি মজুমদারের মতে, ‘এবারের বাজেটে কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং কর্মশক্তিকে দক্ষ করার দিকে নজর দেবে সরকার’।

আরও পড়ুন- ২০১৭ সালে রেল বাজেটকে কেন কেন্দ্রীয় বাজেটে জুড়ে দেওয়া হয়? জানুন কারণ

রুমকির দাবি, এ থেকেই লাভ তুলতে পারে বিজেপি। কীভাবে? তিনি বলছেন, ‘ধরা যাক, গ্রামীণ যুবকদের জন্য কোনও চাকরির প্রকল্প ঘোষণা করলেন নির্মলা। বা চলতি প্রকল্পগুলিতে ভর্তুকি বাড়িয়ে দিলেন। মডেল আচরণ বিধির কারণে এই সম্পর্কে বিস্তারিত বিরবণ দেবেন না। তবে উত্তর প্রদেশ এবং উত্তরাখণ্ডের বিজেপি তার উপরেই স্লোগান তৈরি করে প্রচার করবে।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী নীতি আয়োগের ভাইস চেয়ারম্যান রাজীব কুমার বলেছেন, তৃতীয় ঢেউয়ে করোনা ছড়াচ্ছে অত্যন্ত দ্রুতহারে। তেমনই তৃতীয় ঢেউ স্তিমিতও হয়ে যাবে খুব দ্রুত। তাই জানুয়ারি এবং ফ্রেবুয়ারিতে অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার খুব একটা বাড়বে না। তবে রাজীব কুমার মনে করেন, করোনার প্রতিকূলতা এবার অনেক কম। তাই ২০২১-২২ অর্থবর্ষে জিডিপি ৯ থেকে ৯.২ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পাবে, যা প্রত্যাশার তুলনায় অনেকটাই কম।

First published:

Tags: Nirmala Sitharaman, Union Budget 2022

পরবর্তী খবর