corona virus btn
corona virus btn
Loading

আসন্ন কৃষির মরশুমে বেশি বিক্রি হবে টু-হুইলার, আশায় ডিলাররা! চাষের সঙ্গে এর সম্পর্ক কী?

আসন্ন কৃষির মরশুমে বেশি বিক্রি হবে টু-হুইলার, আশায় ডিলাররা! চাষের সঙ্গে এর সম্পর্ক কী?
প্রতীকী চিত্র ।

ভারতে টু-হুইলার যে পরিমাণ বিক্রি হয়, তার মধ্যে ৭৫ শতাংশই হয় গ্রামীণ অঞ্চল থেকে।

  • Share this:

#কলকাতা: সময়টা গত মাসের শেষের দিক। সেই সময়ে প্রকাশিত এক সমীক্ষা মারফত জানা গিয়েছিল যে দেশে এ বছরে না কি ট্রাক্টরের বিক্রি বেড়ে গিয়েছে রেকর্ড পরিমাণ! অতিমারী আবহে চাষের কাজে মানুষের চেয়ে যন্ত্রের কদর বেড়েছে ঢের বেশি। এই হিসেব বুঝে নিতে সমস্যা নেই কোনও। কিন্তু ওই একই ক্ষেত্র, মানে কৃষির সঙ্গে জুড়ে রয়েছেন যাঁরা, তাঁদের মধ্যে টু-হুইলার বিক্রিও বাড়বে চলতি বছরে, এমনটা কী ভাবে জোর দিয়ে বলছে সাম্প্রতিক ক্রাইসিল রেটিংস-এর অনুমান?

এই সংস্থা জানিয়েছে যে, এ দেশে টু-হুইলার, বিশেষ করে মোটরবাইক সব চেয়ে বেশি হয় গ্রামীণ অঞ্চল থেকেই, শহর এ ব্যাপারে অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে গ্রামের থেকে। ভারতে টু-হুইলার যে পরিমাণ বিক্রি হয়, তার মধ্যে ৭৫ শতাংশই হয় গ্রামীণ অঞ্চল থেকে। গ্রামজীবনে পর্যাপ্ত পরিবহন ব্যবস্থার অভাবে এক দিক থেকে যেমন কাজে আসে টু-হুইলার, তেমনই তা দরকারে ভারবহনের কাজটাও সেরে দেয়।

সংস্থা এই জায়গা থেকেই এক এক করে তার অনুমানের তাস সাজিয়েছে। বলেছে যে চলতি বছরে দেশের কৃষিক্ষেত্র আয়ের মুখ দেখেছে ভালোই। পর্যাপ্ত বৃষ্টি হওয়ার কারণে খারিফ শস্যের ফলন হয়েছে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি। তাই কৃষিক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত অনেকের হাতেই এখন টাকা আছে। অন্য দিকে রবি শস্য অর্থাৎ শীতকালীন চাষের জন্যেও তৈরি রয়েছে দেশ, প্রত্যাশা করা হচ্ছে যে সেটাও ভালই হবে। তাই সব দিক মিলিয়ে সংস্থার অনুমান- গত বছরের তুলনায় এ বছরে বিক্রি অন্তত ১৫-১৭ শতাংশ বাড়বে। যাকে সমর্থন করছে ইতিপূর্বে কেয়ার সংস্থার তরফে প্রকাশিত এক সমীক্ষার রিপোর্টও।

সেই সমীক্ষায় কেয়ার দেখিয়েছে যে সেপ্টেম্বর মাসের পর থেকে দেশে টু-হুইলারের বিক্রি বেড়ে গিয়েছে ১৮.৬ শতাংশ। অন্য দিকে আবার সোসাইটি অফ ইন্ডিয়ান অটোমোবাইল ম্যানুফ্যাকচারার্সের তরফেও এই বিক্রিবাটা নিয়ে আরেক দফা সমীক্ষা এবং তার হিসেব প্রকাশ করা হয়েছিল। যা দাবি করেছে যে যেখানে গত বছর জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে এ দেশে টু-হুইলার বিক্রি হয়েছিল ৪৬,৮২,৫৭১টা; এ বছর তার জায়গায় হয়েছে ৪৬,৯০,৫৬৫টা! মন্দ কী!

Published by: Simli Raha
First published: October 30, 2020, 12:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर