Home /News /business /
Union Budget 2022: প্রভিডেন্ট ফান্ডে কর ধার্যের ঊর্ধ্বসীমা আড়াই লক্ষ থেকে বাড়ানো হোক, আবেদন বণিকসভার

Union Budget 2022: প্রভিডেন্ট ফান্ডে কর ধার্যের ঊর্ধ্বসীমা আড়াই লক্ষ থেকে বাড়ানো হোক, আবেদন বণিকসভার

বাজেট নিয়ে কেন্দ্রকে প্রস্তাব বণিক সভার৷ Photo- File

বাজেট নিয়ে কেন্দ্রকে প্রস্তাব বণিক সভার৷ Photo- File

আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটের দিকে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এই অনুরোধ করেছে পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (Union Budget 2022-23)।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ( PHDCCI) কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন করেছে যে প্রভিডেন্ট ফান্ডের (Provident Fund) ট্যাক্সের সুদের কথা মাথায় রেখে সেই টাকার পরিমাণ বাড়িয়ে দেওয়া হোক। তারা চায় কেন্দ্রীয় সরকার বছরে ২.৫ লাখ টাকার প্রভিডেন্ট ফান্ডের উপরে ট্যাক্স ধার্য করুক। আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটের (Union Budget 2022- 23) দিকে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এই অনুরোধ করেছে পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি।

পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির ট্রেড বডি জানিয়েছে যে, ভারতে খুব বেশি পরিমাণে সোশ্যাল সিকিউরিটি স্কিম নেই। এই কারণে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রভিডেন্ট ফান্ডের ট্যাক্সের (Tax) বিষয়ে ভেবে দেখা দরকার। বাইরের দেশের তুলনায় এই দেশের বয়স্ক মানুষের কোনও সরকারি সোশ্যাল সিকিউরিটি নেই। এর ফলে কেন্দ্রীয় সরকারের এই বিষয়ে ভেবে দেখা দরকার। একজন বয়স্ক নাগরিকের শেষ সম্বল প্রভিডেন্ট ফান্ড। সুতরাং সেই প্রভিডেন্ট ফান্ডের ট্যাক্সের জন্য বছরে তার পরিমান ২.৫ লাখ টাকার বেশি করা উচিত। এর ফলে দেশের অনেকের সুবিধা হবে।

পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির মতামত-

- ফিনান্স অ্যাক্ট ২০২১ এর সেকশন ১০(১১) এবং সেকশন ১০(১২) মুছে ফেলা প্রয়োজন।

- প্রভিডেন্ট ফান্ডের ক্ষেত্রে ট্যাক্স ধার্য করার পরিমাণ ২.৫ লাখ টাকা থেকে বাড়ানো প্রয়োজন।

আরও পড়ুন: রাজস্ব একীকরণের উদ্যোগ? আসন্ন বাজেট থেকে কী কী আশা? দেখুন এক নজরে!

পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির মতে করোনা মহামারীর নতুন ভ্যারিয়ান্ট ওমিক্রনের (Omicron) দিকে নজর দিয়ে আসন্ন বাজেটে কেন্দ্রীয় সরকারের এই বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া দরকার। আসন্ন কেন্দ্রীয় বাজেটে কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত প্রভিডেন্ট ফান্ডের ট্যাক্স ধার্য করার লিমিট ২.৫ লাখ টাকা থেকে বাড়ানো হোক। এর ফলে উপকৃত হবে ভারতের বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ। যে সকল বয়স্ক নাগরিক তাদের প্রভিডেন্ট ফান্ডের আশায় বেঁচে রয়েছে, সেই সকল বয়স্ক নাগরিক বিশেষ ভাবে উপকৃত হবে।

আরও পড়ুন: বিমায় বিনিয়োগে আগ্রহী? এই বিকল্পগুলিতে লগ্নি করলে দিতে হবে না কোনও ট্যাক্স!

অন্যান্য দেশের তুলনায় এই দেশে সোশ্যাল সিকিউরিটি স্কিমের সংখ্যা খুবই কম। এই ধরনের কোনও সরকারি স্কিম এই দেশে নেই বললেই চলে। এর ফলে যে প্রভিডেন্ট ফান্ডের ওপরে অনেকের সোশ্যাল সিকিউরিটি নির্ভর করছে, কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত সেই বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করা।

পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি স্পষ্টভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন করেছে যে, প্রভিডেন্ট ফান্ডের বিষয়ে নতুন নীতি প্রণয়ণ করা দরকার। প্রভিডেন্ট ফান্ডের ট্যাক্সের জন্য টাকার পরিমাণ ২.৫ লাখ টাকা থেকে বাড়ানো দরকার।

First published:

Tags: Budget 2022, Union Budget 2022

পরবর্তী খবর