বাজেট ২০২১: করোনা-বিধ্বস্ত অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনে TDS নিয়ে কী ভাবছে সরকার

বাজেট ২০২১: করোনা-বিধ্বস্ত অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনে TDS নিয়ে কী ভাবছে সরকার
অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, ব্যয় ও অর্থবরাদ্দ যথাযথ রাখতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে ট্যাক্স ডিডাকটেড অ্যাট সোর্স বা TDS

অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, ব্যয় ও অর্থবরাদ্দ যথাযথ রাখতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে ট্যাক্স ডিডাকটেড অ্যাট সোর্স বা TDS

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনা-বিধ্বস্ত অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করতে মরিয়া সরকার। সংক্রমণ তুলনামূলকভাবে নিম্নমুখী। তবে ক্ষতির ঘা এখনও শুকোয়নি। এদিকে দিন কয়েক পরেই পেশ হতে চলেছে কেন্দ্রীয় বাজেট। এক্ষেত্রে করোনা পরবর্তী সময়ে অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে TDS। অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, ব্যয় ও অর্থবরাদ্দ যথাযথ রাখতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে ট্যাক্স ডিডাকটেড অ্যাট সোর্স বা TDS। আসুন জেনে নেওয়া যাক বিশদে।

এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন ট্যাক্স অ্যান্ড রেগুলেটরি PwC India-এর কর্ণধার সঞ্জয় তোলিয়া (Sanjay Tolia)। তাঁর কথায়, সরকারের তরফে যে পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করা হয়, তার অনেকটাই নির্ভর করে আয়কর সংগ্রহের উপরে। আয়কর সংগ্রহের বিষয়টি নির্ধারণ করে সরকারের খরচের গতিবিধিকেও। আর ঠিক এখানেই TDS অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অনেক সময় অর্থবর্ষের শেষে ট্যাক্স সংগ্রহ তুলনামূলক কঠিন হয়ে যায়, আর এখানে এনফোর্সমেন্ট পেমেন্ট সিস্টেম হিসেবে কাজ করে TDS। এই সূত্রে ধরেই এসেছে ট্যাক্স কালেক্টেড সোর্স (TCS)। বর্তমানে বিদেশি মুদ্রা লেনদেনের কোনও ক্রেডিট কার্ড, সোনা, বাড়ি কিংবা গাড়ির ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য এই TCS। কিন্তু এই করোনা পরবর্তী সময়ে সবাই যখন ঘুরে দাঁড়ানোর প্রবল চেষ্টা করছে, তখন এই TCS বা TDS নিয়ে একটু বিবেচনা করতে হবে। এক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় নিয়ে ভাবনা-চিন্তা করতে পারে সরকার-

সুদ দেওয়ার ক্ষেত্রে করদাতাদের একাংশের কাছে একটি সেল্ফ ডিক্লেয়ার অপশন বা 15H/15G ফর্মের সুবিধা রয়েছে। এক্ষেত্রে ট্যাক্স স্টেটাস দেখে TDS-এ ছাড় দেওয়া যেতে পারে। সরকার এই ক্ষেত্রটির সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য বিষয়গুলি নিয়েও আলোচনা করতে পারে। এই সেল্ফ ডিক্লেয়ার অপশন প্রক্রিয়াকরণের উপরে আরও বিশদে কাজ করা যেতে পারে।


অনেক সময়ে কোনও করদাতা সংশ্লিষ্ট ট্যাক্স অফিসারের কাছে আবেদন জানাতে পারেন। তুলনামূলক কম রেটের TDS-এর জন্য একটা সার্টিফিকেট চাইতে পারেন। কিন্তু এই সার্টিফিকেট পাওয়া এতটা সোজা নয়। এক্ষেত্রে এই লোয়ার TDS সার্টিফিকেট প্রক্রিয়াকরণের বিষয়ে বিচার-বিবেচনা করতে পারে আয়কর দফতর। সার্টিফিকেট পাওয়ার প্রক্রিয়াকে আরও সহজ ও দ্রুত করা যেতে পারে।

রিফান্ড ইস্যু করার প্রক্রিয়াকরণের গতি বাড়াতে পারে সরকার। অনেক ক্ষেত্রেই TDS বা TCS-এর জন্যই বাকি থেকে যায় এই রিফান্ড প্রক্রিয়া। তাই এই বিষয়টির উপরে নজর দেওয়া যেতে পারে।

করোনা-পরবর্তী এই নিউ নর্মালে একাধিক ব্যবসা লড়াই করছে। এক্ষেত্রে TDS-এর টাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অনেক সময়ে করদাতাদের মধ্যে TDS ক্রেডিট নিয়ে একাধিক জটিলতা দেখা যায়। এই বিষয়টির সমাধানে এগিয়ে আসতে পারে সরকার।

যাঁরা সঠিক ভাবে ট্যাক্স দিচ্ছেন, তাঁদের স্বার্থে ফেসলেস অ্যাসেসমেন্ট, ট্যাক্স পেয়ার চার্টার, কুইকার রিফান্ড-সহ একাধিক পরিষেবা ও পদক্ষেপ করছে সরকার। সেই সূত্রে ধরে TDS সংস্কার নিয়েও নানা পদক্ষেপ করা হতে পারে বলে জানাচ্ছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের কথায়, TDS-সংক্রান্ত কিছু পরিবর্তন তথা নীতিগুলিকে যদি কাঙ্ক্ষিতরূপে বাস্তয়বায়ন করা যায়, তাহলে এই কঠিন সময়ে একটা বড় অংশের মানুষ স্বস্তির নিশ্বাস নিতে পারবে।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: