বাজেট ২০২১: দেশের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আকর্ষণ করতে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে হবে সরকারকে!

এই পরিস্থিতিতে দেশে বিনিয়োগ টানাটাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর ঠিক এখানেই ভূমিকা নিতে পারে আসন্ন বাজেট। কিন্তু কী ভাবে? আসুন জেনে নেওয়া যাক কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা!

এই পরিস্থিতিতে দেশে বিনিয়োগ টানাটাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর ঠিক এখানেই ভূমিকা নিতে পারে আসন্ন বাজেট। কিন্তু কী ভাবে? আসুন জেনে নেওয়া যাক কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা!

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দিন দু'য়েক পরেই পেশ হতে চলেছে ২০২১-২২ অর্থবর্ষের কেন্দ্রীয় বাজেট। দেশের প্রতিটি ক্ষেত্র করোনা-পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়াতে বাজেটের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দেশে বিনিয়োগ টানাটাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর ঠিক এখানেই ভূমিকা নিতে পারে আসন্ন বাজেট। কিন্তু কী ভাবে? আসুন জেনে নেওয়া যাক কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা!

এ নিয়ে বিশদে আলোচনা করেছেন PwC India-এর ট্যাক্স অ্যান্ড রেগুলেটরি পার্টনার এন মাধন (N Madhan)। তাঁর কথায় বিনিয়োগকারীদের কাছে দেশকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে হবে। অ্যালবার্ট আইনস্টাইনের উক্তি তুলে ধরে তিনি জানিয়েছেন- In the midst of every crisis, lies great opportunity। তাই এই কঠিন পরিস্থিতি থেকে শিক্ষা নিতে হবে। দেশের দুর্বল জায়গাগুলিকে চিহ্নিত করে সেখান থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। কঠিন পরিস্থিতির মাঝে লুকিয়ে থাকা সুযোগগুলিকে খুঁজে বের করতে হবে। এক্ষেত্রে প্রথমেই রাজ্য-কেন্দ্র বোঝাপড়া ও ফিস্কাল ডেফিসিটের দিকে নজর দিতে হবে। এগুলি নিশ্চিত হলে ব্যবসায়িক পরিকাঠামো গড়ে উঠবে। আর বিনিয়োগ আসতে শুরু করবে।

এন মাধনের কথায়, একটি স্থিতিশীল ট্যাক্স ইকোসিস্টেম খুব জরুরি। এতে ব্যবসার পরিসর বাড়বে। বিনিয়োগও বাড়বে। তবে নীতি প্রণয়ণকারীদের ইনসেনটিভস ও ট্যাক্সের মধ্যে একটা সমতা বজায় রাখার পথ খুঁজতে হবে। ইনফ্রাস্ট্রাকচার সেক্টরে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত কম ট্যাক্স রেট বেনিফিটের (১৭.১৬ শতাংশ) বিষয়টির উপরেও নজর দিতে হবে। আর এক্ষেত্রে আগামী দু'টি অর্থবর্ষ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এর পাশাপাশি আসন্ন বাজেটে প্রোডাকশন লিঙ্কড ইনসেনটিভস (PLI) স্কিম নিয়েও একটি রূপরেখা তৈরি করার প্রয়োজনীয়তা আছে। এর জেরে অটোমোবাইল, ফার্মা, ইলেকট্রনিক, টেকনোলজি-সহ একাধিক ক্ষেত্র সমৃদ্ধ হবে। পরের দিকে এই ক্ষেত্রগুলি MNE গ্রুপ বা অন্যান্য সংস্থা থেকে তাৎপর্যপূর্ণ বিনিয়োগ টানতে পারে এই সেক্টরগুলি। সব শেষে কর্পোরেট ট্যাক্স স্কিমে রদবদল বা সরলীকরণ, GST, ট্যাক্স লিটিগেশন, এক্সপোর্ট ইনসেনটিভসের ক্ষেত্রেও বিচার-বিবেচনা করতে হবে। যদি বাজেটে এই বিষয়গুলিকে গুরুত্ব দেওয়া হয়, তাহলে বিনিয়োগকারীদের কাছে ভারতকে একটি আকর্ষণীয় ব্যবসায়িক ক্ষেত্র হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব বলে জানিয়েছেন তিনি।

Published by:Simli Raha
First published: