বাজেট ২০২১: সীতারমনের কথা শুরুর আগে এই ১০ তথ্য না জানলেই নয়!

বাজেট ২০২১: সীতারমনের কথা শুরুর আগে এই ১০ তথ্য না জানলেই নয়!
বাজেট ২০২১

করোনার কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যখাতে খরচ বাড়াতে পারে সরকার। তবে সেই ব্যয়ভার বহন করার জন্য জনতার উপরে বাড়তি করের বোঝাও চাপতে পারে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন তো বলে দিয়েছেন সাফ- ২০২১ থেকে ২০২২ অর্থবর্ষের বাজেট হতে চলেছে অভূতপূর্ব, এমনটি না কি কেউ আগে কখনও দেখেননি! যদিও অর্থনীতির সঙ্গে যুক্ত বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নরেন্দ্র মোদি সরকার বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে বাজেট পেশের দিনটিতে কখনই কোনও বড় অর্থনৈতিক সিদ্ধান্তের ঘোষণা করেননি। সেই দিক থেকে বিচার করা সংসদে যে কয়েকটি বাজেট পেশ করা হয়েছে, তার সবক'টিকেই অর্থনীতিবিদরা বলে থাকেন মিনি বাজেট। এবারেও কি সেই মিনি বাজেটই পেশ হতে পারে? জানা যাবে কিছুক্ষণের মধ্যেই, তার আগে চোখ রাখা যাক ১০টি তথ্যে।

আরও পড়ুন বাজেট ২০২১: আয়কর ছাড়ে কি মিলবে স্বস্তি? নির্মলা সীতারমণের বাজেটের দিকে তাকিয়ে সাধারণ মানুষ


১. নরেন্দ্র মোদি সরকার বাজেট নিয়ে ঠিক কী সিদ্ধান্ত নিল, তা কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন আজ বেলা ১১টায় পেশ করবেন। তবে মোদি আগে করোনাকালে ৪-৫টি মিনি বাজেটের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, এটিও তার এক অংশ হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

২. ১১ শতাংশ গ্রোথ রেটের পরিকল্পনায় এবার সীতারমন সারভাইভ্যাল পদ্ধতির বদলে রিভাইভ্যাল পদ্ধতি অবলম্বন করতে পারেন, এ কথা বলছেন অর্থনীতিবিদরা।

৩. করোনাকালীন পরিস্থিতিতে দেশের GDP গিয়েছে পড়ে। এত খারাপ অর্থনৈতিক অবস্থার মুখোমুখি দেশ কখনই হয়নি। সেই দিকে লক্ষ্য রেখে পুরনো প্রকল্পগুলোকেই সংস্কার করা হবে, এবারের বাজেট থেকে নতুন কিছু পাওয়ার আশা কম বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

৪. আগের বছরের চেয়ে ব্যয়ের খাচে ১৫ শতাংশ বৃদ্ধি, ইনফ্রাস্ট্রাকচার সেক্টরে বিনিয়োগ আর বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আকর্ষণের নীতি- এই তিন পথেই এবার সাজানো হতে পারে বাজেট।

৫. করোনার কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যখাতে খরচ বাড়াতে পারে সরকার। তবে সেই ব্যয়ভার বহন করার জন্য জনতার উপরে বাড়তি করের বোঝাও চাপতে পারে।

৬. শিল্পের সঙ্গে যুক্ত মানুষজন এবারের বাজেটে করের বোঝা একটু হালকা হোক- এটাই চাইছেন। তবে সেই সুবিধা পেতে পারেন কেবল ক্ষুদ্র এবং মাঝারি শিল্পপতিরাই, বলছেন অর্থনীতিবিদরা।

৭. আগামী অর্থবর্ষে সরকার যে আর্থিক ব্যবস্থা নেবে, তা চলতি বছরের তুলনায় ৭ শতাংশ বেশি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৮. নানা বিষয়ে করের বোঝা ক্রমাগত বেড়েই চলেছে, এই বাজেটেও তা কমবে না। পাশাপাশি, নানা ক্ষেত্রে আমদানিতে শুল্ক বাড়তে পারে।

৯. পাবলিক সেক্টরের প্রাইভেটাইজেশন হচ্ছেই। তালিকায় আছে LIC। পাশাপাশি, ব্যাড ব্যাঙ্ক তৈরির সম্ভাবনাও রয়েছে।

১০. করেনার টিকাকরণের খাতে ব্য আরও বাড়বে।

Published by:Pooja Basu
First published: