Home /News /business /
Breaking News: ট্যুইটারের সঙ্গে ৪৪ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি স্থগিত! হঠাৎ কেন এমন লিখলেন এলন মাস্ক

Breaking News: ট্যুইটারের সঙ্গে ৪৪ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি স্থগিত! হঠাৎ কেন এমন লিখলেন এলন মাস্ক

এলন মাস্কের ফাইল ছবি

এলন মাস্কের ফাইল ছবি

Elon Musk On Twitter: এই ঘোষণার পর থেকেই ট্যুইটারের বাণিজ্যিক ক্ষতি শুরু হয়েছে। শেয়ার বাজারে ২০ শতাংশ শেয়ারের দাম পড়েছে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বাণিজ্য জগতে বড় খবর। ট্যুইটারের সঙ্গে ৪৪ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি স্থগিত রাখতে চলেছেন ধনকুবের এলন মাস্ক। সম্প্রটি ট্যুইটারেই সে কথা ঘোষণা করেছেন তিনি। টেসলা নামে সংস্থাটির সিইও ট্যুইটারে লিখেছেন, ফেক ও স্প্যাম অ্যাকাউন্ট নিয়ে বিস্তারিত তথ্যের সরবরাহ সংস্থা করতে পারেনি, সেই কারণেই আপাতত এই চুক্তি স্থগিত থাকতে চলেছে। যদিও তিনি উল্লেখ করেছেন, এই ধরনের ফেক অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ৫ শতাংশেরও সামান্য বেশি, তবু বিস্তারিত তথ্য না পেলে তিনি চুক্তি স্থগিত রাখবেন।

    আরও পড়ুন - টমেটো জ্বর! রহস্যজনক রোগে কেরলে আক্রান্ত বহু শিশু, রোগ দ্রুত ছড়াচ্ছে অন্য রাজ্যেও

    গত মাসেই ট্যুইটার কেনার বিষয় নিয়ে একটা বড় খবর আসে। মোট ৪৪ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়মে এই সংস্থার সঙ্গে একটি বাণিজ্য চুক্তি করছেন এলন মাস্ক। মাস্ক, পৃথিবীর ধনীতম ব্যক্তি এই চুক্তির পর থেকে স্প্যাম বট সরানোর বিষয়ে দাবি তুলে আসছেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। তার পরেই গত মাসে ট্যুইটারের তরফ থেকে দাবি করা হয়, বছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে ট্যুইটারের অন্দরে মোট ৫ শতাংশের সামান্য বেশি ফেক বা স্প্যাম অ্যাকাউন্টের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে।

    আরও পড়ুন - বড় আবিষ্কার বিজ্ঞানীদের, চাঁদেও নাকি চাষ করে ফসল ফলানো সম্ভব, দেখুন অবাক কাণ্ড

    এই ঘোষণার পর থেকেই ট্যুইটারের বাণিজ্যিক ক্ষতি শুরু হয়েছে। শেয়ার বাজারে ২০ শতাংশ শেয়ারের দাম পড়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত এই নিয়ে ট্যুইটার কর্তৃপক্ষের কোনও জবাব পাওয়া যায়নি। এর আগে অবশ্য এলন মাস্কের সঙ্গে চুক্তি পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া নিয়ে বিস্তর আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে ট্যুইটারের অন্দর থেকে। সংস্থা বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে ততটা গ্রহণযোগ্য থাকবে কি না, তা নিয়েও আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

    শুধু তাই নয়, ট্যুইটারের শীর্ষপদস্থ ভারতীয় বংশোদ্ভুত পরাগ আগরওয়ালের পদে থাকা নিয়েও বিতর্ক তৈরি হয়। এলন মাস্কের ইঙ্গিত ছিল, তিনি এই চুক্তি চূড়ান্ত করার পরেই শীর্ষপদ থেকে পরাগকে সরিয়ে দিতে পারেন, অন্য কাউকে আনতে পারেন। যদি কে আসবে, তা নিয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি। সব মিলিয়ে প্রযুক্তি ক্ষেত্রে ট্যুইটার ছিল আলোচনার কেন্দ্রে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এলনের এই চুক্তিই যদি বাতিল হয়ে যায়, তা হলে বাজার অর্থনীতিতে এর প্রভাব পড়বে, প্রভাব পড়বে ট্যুইটারের বাজারেও।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Elon Musk

    পরবর্তী খবর