?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

গোল্ড লোন নিয়েছেন ? জেনে নিন লোনের টাকা কীভাবে মেটাবেন

গোল্ড লোন নিয়েছেন ? জেনে নিন লোনের টাকা কীভাবে মেটাবেন
Representational Image

গোল্ড লোন নিয়ে থাকলে জেনে নিন ঋণ ফেরতের স্কিমগুলি।

  • Share this:

#কলকাতা: গোল্ড লোন নেওয়ার বিষয়ে গ্রাহকরা এখন অনেকটাই ওয়াকিবহাল। ব্যাঙ্ক কিংবা নন ব্যাঙ্কিং প্রতিষ্ঠানগুলি থেকেও সহজে মিলছে গোল্ড লোন। এর একটি অন্যতম কারণ হল গোল্ড লোন সম্পর্কিত একাধিক আকর্ষণীয় স্কিম। যার মাধ্যমে সুবিধামতো ঋণের টাকা ফেরত দিতে পারছেন ঋণগ্রহীতারা। আপনিও কী Gold Loan নিয়েছেন? কীভাবে মেটানো যায় ঋণের টাকা। আসুন জেনে নেওয়া যাক ঋণ ফেরতের স্কিমগুলি।

শুধুমাত্র মাসে মাসে সুদ মেটান

এক্ষেত্রে গোল্ড লোনের EMI অনুযায়ী মাসিক কিস্তি ও সুদের টাকা দিতে হবে গ্রাহককে। তবে ম্যাচিওর হওয়ার সময় প্রিন্সিপ্যাল অ্যামাউন্ট দিতে হবে। এবিষয়ে Paisabazaar.com-এর CEO ও কো ফাউন্ডার নবীন কুকরেজা জানাচ্ছেন, নগদ টাকার পরিমাণ কম থাকলে, ঋণগ্রহীতা এই বিকল্পকে কাজ লাগাতে পারেন। এক্ষেত্রে ঋণ নেওয়ার মেয়াদকালে তাকে শুধু সুদের টাকাই মেটাতে হচ্ছে। তবে ঋণগ্রহীতাকে সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক বা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে নিতে হবে। কীভাবে দেওয়া যাবে এই মাসিক সুদ ? ধরা যাক আপনার তিন বছরের মেয়াদে পাঁচ লাখ টাকার গোল্ড লোন রয়েছে । এই গোল্ডলোনে সুদের হার বছরে ৭.৫০ শতাংশ। ঋণের সময়কালে আপনি মাসিক ৩,১২৫ টাকা করে সুদ দেবেন। তাহলে তিনবছরে আপনি মোট ১,১২,৫০০ টকা সুদ দিচ্ছেন। এক্ষেত্রে ম্যাচিওর হওয়ার সময় আপনাকে শুধুমাত্র মূলধন অর্থাৎ পাঁচ লাখ টাকা শোধ করতে হবে।

মাসিক EMI

এটিও একটি বিকল্প। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, যাদের আয়ের একটি সুনিশ্চিত উৎস আছে বা নগদ অর্থ রয়েছে, তারা এই বিকল্প বেছে নিতে পারেন। এক্ষেত্রে ঋণের সময়কালের শুরুর মাস থেকেই আপনাকে সংশ্লিষ্ট EMI দিতে হয়।

বুলেট রি পেমেন্ট

এক্ষেত্রে মাসে মাসে সুদ আদায় করে ব্যাঙ্ক। ঋণের সময়কালের শেষে মূলধনের সঙ্গে এই সুদের টাকা একসঙ্গে জমা হয়। সাধারণত স্বল্প মেয়াদি গোল্ড লোনের পক্ষে এইধরনের বিকল্প বেছে নেওয়া খুব ভাল । কিন্তু কীভাবে হয় এই বুলেট রিপেমেন্ট। ধরা যাক, বুলেট রিপেমেন্ট স্কিমে ৯ শতাংশ হারে আপনি এক বছরের মেয়াদে পাঁচ লাখ টাকার গোল্ডলোন নিয়েছেন। ঋণের সময়কালে আপনি মূলধন বা সুদ দিলেন না। তবে, ঋণের মেয়াদ শেষে, আপনাকে ৫ লাখ ৪৫ হাজার টাকা ফেরত দিতে হবে। যার মধ্যে সুদের পরিমাণ হবে ৪৫ হাজার টাকা এবং ৫ লক্ষ টাকা প্রিন্সিপাল অ্যামাউন্ট ৷

আংশিক টাকা দেওয়া

এক্ষেত্রে যখন আপনার কাছে পর্যাপ্ত সঞ্চয় থাকবে, তখন আপনি আপনার গোল্ড লোন প্রদানকারীকে আংশিক টাকা মেটাতে পারেন। আপনাকে EMI মেটাতে হবে না। এক্ষেত্রে ঋণদানকারী সংস্থা আপনাকে সুদের বা মূলধনের আংশিক টাকা ফেরত দেওয়ার সুবিধা দেয়।

ওভারড্রাফ্ট অ্যাকাউন্টগুলিতে মাসিক সুদ

স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এবং DCB ব্যাঙ্কের মতো ব্যাঙ্কগুলি এক্ষেত্রে গোল্ড লোনের জন্য ওভারড্রাফ্টের সুবিধা দেয়। এই ওভারড্রাফ্ট অ্যাকাউন্টগুলিতে লেনদেনের সুবিধা রয়েছে এবং মাসিক সুদ প্রদানের ব্যবস্থাও থাকে।

প্রিপে বা মেয়াদের আগেই টাকা দেওয়া কি সম্ভব ?

হ্যাঁ, আপনি আপনার গোল্ড লোনের অর্থ আগেই চুকিয়ে দিতে পারেন এবং আপনার খাতা বন্ধ করতে পারেন। অনেকে ব্যাঙ্ক রয়েছে, যেগুলি এই প্রিপেমেন্টের জন্য কোনওরকম চার্জ নেয় না। তবে, অ্যাক্সিস ব্যাঙ্কের মতো বেসরকারী ব্যাঙ্কগুলি ঋণ নিতে পারে। ঋণ পরিশোধের যে সংশ্লিষ্ট তারিখ রয়েছে যদি তার আগে ৩-১১ মাসের মাসের মধ্যে ঋণ পরিশোধ হয়ে যায়, সেক্ষেত্রে ঋণগ্রহীতাদের জন্য ০.৫ -২ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ করতে পারে বেসরকারি ব্যাঙ্কগুলি।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: September 22, 2020, 5:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर