Home /News /business /
Business News: নিরাপদ ভবিষ্যতের জন্য রইল ১০ সেভিংস কাম ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যানের হদিশ!

Business News: নিরাপদ ভবিষ্যতের জন্য রইল ১০ সেভিংস কাম ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যানের হদিশ!

প্রতীকী ছবি ৷

প্রতীকী ছবি ৷

Business News: এখানে তেমনই ১০টি সেভিংস কাম ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান সম্পর্কে আলোচনা করা হল।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: টাকা জমানো এবং টাকার পরিমাণ বৃদ্ধি করা আর্থিক পরিকল্পনার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। সবাই চায় নামমাত্র ঝুঁকিতে বেশি রিটার্ন পেতে। একমাত্র সঠিক জায়গায় বিনিয়োগ করলেই সেটা সম্ভব হয়। কিন্তু আজকের দ্রুত পরিবর্তিত অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে এক জায়গায় বিনিয়োগ করে ভালো রিটার্ন পাওয়াটা কষ্ট-কল্পনা ছাড়া আর কিছুই নয়। তাই বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতে হবে। যাতে বৈচিত্র্য আসে। এখানে তেমনই ১০টি সেভিংস কাম ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান সম্পর্কে আলোচনা করা হল।

মিউচুয়াল ফান্ড:

যাদের বাজার সম্পর্কে কোনও ধারণা নেই, অথচ ঝুঁকি নিতে ভয় পান না এবং উচ্চ হারে রিটার্ন চান, তাঁদের জন্য মিউচুয়াল ফান্ড আদর্শ। এর মাধ্যমে স্টক, বন্ড এবং রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগ করা যায়। ভারতে অসংখ্য মিউচুয়াল ফান্ড আছে, যারা বিনিয়োগকারীরের জন্য একাধিক ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের ফান্ড নিয়ে এসেছে। এখানে মাসিক বা ত্রৈমাসিক কিস্তিতেও বিনিয়োগ করা যায়।

আরও পড়ুন: Petrol Diesel Price Hike: জোড়া চাপে মধ্যবিত্তের বিরাট ধাক্কা! ১৪ দিনে ১২'বার পেট্রোল-ডিজেলের দাম বৃদ্ধি, সপ্তাহে তৃতীয়বার CNG মহার্ঘ

ইক্যুইটি লিঙ্কড সেভিংস স্কিম বা ইএলএসএস:

প্রকৃতিগত ভাবে এটা আর পাঁচটা সাধারণ মিউচুয়াল ফান্ডের মতো হলেও ইএলএসএস-এর মাধ্যমে মূলত স্টকে বিনিয়োগ করা হয়। ট্যাক্স বাঁচানোর যে ক’টি প্রকল্প বাজারে চালু রয়েছে, তার মধ্যে এটা অন্যতম। বিনিয়োগকারী বিনিয়োগ করা অর্থের পুরোটাই ৮০সি ধারায় ছাড় পান। সাধারণ মিউচুয়াল ফান্ডের মতো এ ক্ষেত্রেও দু’রকম ভাবে বিনিয়োগ করা যায়— মাসিক ভিত্তিতে (এসআইপি) অথবা একবারে বিনিয়োগ করে (লাম্পসাম)। তিন বছরের লক-ইন থাকে এই দু’টি ক্ষেত্রেই।

আরও পড়ুন:  Tips To Retain Healthy heart: হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আগে এই ৬ সঙ্কেত সময় থাকতে থাকতেই বুঝে নিন, এড়িয়ে গেলেই মহাবিপদ!

ফিক্সড ডিপোজিট:

অন্যতম জনপ্রিয় বিনিয়োগ মাধ্যম হল ফিক্সড ডিপোজিট। এতে একবারে মোটা অঙ্কের টাকা বিনিয়োগ করে লক-ইন করে দেওয়া হয়। বর্তমানে ফিক্সড ডিপোজিটে ২.৮ শতাংশ থেকে ৬ শতাংশ পর্যন্ত সুদ পাওয়া যাচ্ছে। প্রবীণ নাগরিকদের ক্ষেত্রে সুদের হার ৫০ বেসিস পয়েন্ট বেশি। ঝুঁকিহীন এবং নিরাপদ বিনিয়োগের জন্য ফিক্সড ডিপোজিট অত্যন্ত জনপ্রিয়।

পোস্ট অফিস সেভিংস স্কিম:

মাত্র ৫০০ টাকা দিয়ে পোস্ট অফিসের সেভিংস অ্যাকাউন্ট খোলা যায়। এই স্কিমে বর্তমানে ৪ শতাংশ হারে সুদ পাওয়া যাচ্ছে। এতে ট্যাক্স ছাড়ের সুবিধাও মেলে।

আরও পড়ুন: 7th Pay Commission: Modi সরকারের কর্মীদের জন্য অত্যন্ত বিরাট খবর, DA-এর পরে বাড়ছে HRA! ২০,৪৮৪ টাকার বিরাট সুবিধা

সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা:

সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা হল মেয়েদের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের একটি স্বল্প সঞ্চয় প্রকল্প। যা 'বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও' অভিযানের অধীনে চালু করা হয়েছিল। বছরে ন্যূনতম ২৫০ টাকা রাখতে হবে আমানতকারীকে। বছরে চাইলে সর্বোচ্চ ১.৫ লক্ষ টাকা জমা রাখা যাবে অ্যাকাউন্টে। ৭.৬ শতাংশ ইন্টারেস্ট রেট। মোট ১৫ বছর টাকা দিতে হয় সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনায়। পরবর্তী ৬ বছর টাকা না-দিলেও সুদ পাবেন আমানতকারী।

গোল্ড সেভিংস স্কিম:

সোনায় বিনিয়োগ করার সুযোগ। ট্যাক্স ছাড়ের সুবিধাও মেলে। মুদ্রাস্ফীতি এবং বাজারের অস্থিরতা থেকে বাঁচতে চাইলে গোল্ড সেভিংস স্কিমে বিনিয়োগ অত্যন্ত লাভজনক। এক্ষেত্রে মাসিক কিস্তিতে টাকা জমা করা যায়। মেয়াদ শেষে বোনাস মেলে।

আরও পড়ুন: Cooking Oil Price|Edible Oil Price: ফের সস্তা সরষের তেল! নতুন দাম জানলে কেনার জন্য ঝাঁপাবেন আপনিও

এনপিএস:

জাতীয় পেনশন প্রকল্প হল কেন্দ্রীয় সরকারের অন্যতম সামাজিক সুরক্ষা প্রদানকারী উদ্যোগ। সেই প্রকল্পে সরকারি, বেসরকারি এবং অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মীরা স্বেচ্ছায় বিনিয়োগ করতে পারেন। তাতে নির্দিষ্ট সময় অন্তর নিয়মিত টাকা দেওয়ার সুযোগ আছে। যা পরবর্তী কালে পেনশন হিসেবে পাবেন গ্রাহক।

ইউনিট লিঙ্কড ইনস্যুরেন্স প্ল্যান:

এতে বিমা কাম লগ্নির সুবিধা মেলে। এর মাধ্যমে ইক্যুইটি অর্থাৎ শেয়ারে, সরকারি বন্ড ও কর্পোরেট ডেটে লগ্নির সুযোগ রয়েছে। পাশাপাশি বিমার সুবিধাও মিলবে।

চাইল্ড ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান:

সন্তানের পড়াশোনা এবং অন্যান্য চাহিদা পূরণ করতে চাইল্ড ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান আদর্শ। এতে ট্যাক্স ছাড়ের সুবিধাও মেলে।

সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম:

দেশে জনপ্রিয় সরকারি স্বল্প সঞ্চয় প্রকল্পগুলির মধ্যে সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম অন্যতম। ৬০ বছরের বেশি বয়সী যে কোনও ব্যক্তি সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমের জন্য অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। এর মেয়াদ ৫ বছর। এই প্রকল্পের আওতায় এক জন ব্যক্তি সর্বোচ্চ ১৫ লক্ষ টাকা লগ্নি করতে পারেন।

First published:

Tags: Business, Investment, Savings

পরবর্তী খবর