• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • শিশুকন্যার ভবিষ্যৎ সুরক্ষায় সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা কি যথাযথ? জানুন বিশদে!

শিশুকন্যার ভবিষ্যৎ সুরক্ষায় সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা কি যথাযথ? জানুন বিশদে!

মাথায় রাখতে হবে, কন্যা ১৮ বছর হওয়ার পর বা দশম শ্রেণীর পরীক্ষা পাশ করার পরই তোলা যাবে টাকা।

মাথায় রাখতে হবে, কন্যা ১৮ বছর হওয়ার পর বা দশম শ্রেণীর পরীক্ষা পাশ করার পরই তোলা যাবে টাকা।

মাথায় রাখতে হবে, কন্যা ১৮ বছর হওয়ার পর বা দশম শ্রেণীর পরীক্ষা পাশ করার পরই তোলা যাবে টাকা।

  • Share this:

#নয়া দিল্লি: শিশুকন্যার নিরাপদ ও সুরক্ষিত ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে অধিকাংশই সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনার উপর নির্ভর করেন। অন্যান্য ছোট ছোট পোস্ট অফিস সেভিংসের থেকে এই স্কিমে বেশি পরিমাণে রিটার্ন দেওয়া হয়। কিন্তু পরিস্থিতি বিশেষে সম্পূর্ণরূপে শুধুমাত্র সুকন্যা সমৃদ্ধির উপর নির্ভর করলেই চলবে না। এ ক্ষেত্রে অন্যান্য বিনিয়োগ পরিকল্পনাগুলির উপরেও নজর দেওয়া যেতে পারে।

বর্তমানে SSA-তে সুদের হার ৭.৬ শতাংশ। অন্য দিকে, পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (Public Provident Fund) ও সিনিয়র সিটিজেন সেভিং স্কিমে (Senior Citizens Savings Scheme) যথাক্রমে ৭.১ শতাংশ ও ৭.৪ শতাংশ হারে সুদ দেয়। এ ক্ষেত্রে প্রতিটি কোয়ার্টারে সুদের হার সংশোধিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, যখন SSA-তে সুদের হার খুব বেশি, তখন শুধুমাত্র এই স্কিমের উপর নির্ভর করলে চলবে না। এ ক্ষেত্রে অন্য কোনও ইনভেস্টমেন্ট স্কিম নিয়েও বিচার-বিবেচনা করা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে দীর্ঘ মেয়াদে বিনিয়োগের যথাযথ অপশন হতে পারে ইক্যুইটি।

মিশ্র রণকৌশল

ইক্যুইটির সঙ্গে SSA-কে মিশ্রিত করা যেতে পারে। এই বিষয়ে Finvin Financial Planners-এর ম্যানেজিং পার্টনার মেলভিন জোসেফ জানিয়েছেন, যখন কোনও পরিবার তাঁদের শিশুকন্যার পড়াশোনা বা বিয়ের জন্য টাকা জমা করতে শুরু করেন, তখন SSA-তে অল্প পরিমাণ বিনিয়োগ করা যেতে পারে। আর বেশিরভাগ টাকা বিনিয়োগ করা যেতে পারে ইক্যুইটিতে। পরের দিকে অর্থাৎ লক্ষ্য পূরণের কাছাকাছি চলে এলে, SSA-তে বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়ানো যেতে পারে। অন্য দিকে, ইক্যুইটিতে কমানো যেতে পারে বিনিয়োগের পরিমাণ।

এককথায় বলতে গেলে, পুরোপুরি ভাবে SSA অ্যাকাউন্টের উপর নির্ভর করলে চলবে না। ইনভেস্টমেন্ট পোর্টফলিওর একটি অংশ হিসেবে দেখতে হবে এটিকে।

কী এই SSA বা সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্ট?

SSA-তে সুদের হার নির্ধারণ করে সরকার। প্রতি কোয়ার্টারে এই সুদের হারের পরিবর্তনও হতে পারে। এ ক্ষেত্রে একটি অর্থবর্ষে এই সুকন্যা সমৃদ্ধিতে ন্যূনতম বিনিয়োগের পরিমাণ ২৫০ টাকা ও সর্বোচ্চ বিনিয়োগের পরিমাণ ১.৫ লক্ষ টাকা। তবে কিছু শর্তাবলী রয়েছে। যদি অভিভাবকরা একটি অর্থবর্ষের মধ্যে ন্যূনতম অর্থ বিনিয়োগ না করেন, তা হলে সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্টকে ডিফল্ট অ্যাকাউন্ট হিসেবে ধরে নেবে পোস্ট অফিস। তবে এই ডিফল্ট অ্যাকাউন্টকে পুনরুদ্ধার করা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট খোলার পর থেকে ১৫ বছর পূর্ণ হওয়ার আগে পর্যন্ত যে কোনও সময়ে আবার ন্যূনতম ২৫০ টাকা করে এবং প্রতিটি ডিফল্ট ইয়ারের জন্য অতিরিক্ত ৫০ টাকা করে জমা দিতে হবে।

১০ বছরের নিচে যে কোনও শিশুকন্যার অভিভাবকই SSA অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। এ ক্ষেত্রে একই পরিবারের সর্বোচ্চ দুই শিশুকন্যার জন্য SSA খোলা যাবে। তবে যমজ সন্তানের ক্ষেত্রে দু'টির বেশি অ্যাকাউন্ট খোলা যেতে পারে।

টাকা তোলার বিষয়েও নজর দিতে হবে বিনিয়োগকারীদের। মাথায় রাখতে হবে, কন্যা ১৮ বছর হওয়ার পর বা দশম শ্রেণীর পরীক্ষা পাশ করার পরই তোলা যাবে টাকা। অ্যাকাউন্ট খোলার দিন থেকে ২১ বছর পর্যন্ত বা মেয়ের বিয়ের সময়ে ম্যাচিওর হতে পারে এই SSA অ্যাকাউন্ট।

Published by:Piya Banerjee
First published: