corona virus btn
corona virus btn
Loading

কস্ট ও কভারের কথা ভেবে বড় টার্ম ইনস্যুরেন্সের জায়গায় নিতে পারেন দু'টি প্ল্যান, কারণটা জেনে নিন!

কস্ট ও কভারের কথা ভেবে বড় টার্ম ইনস্যুরেন্সের জায়গায় নিতে পারেন দু'টি প্ল্যান, কারণটা জেনে নিন!

একটি বড় টার্ম ইনস্যুরেন্সের চেয়ে ভাল হবে যদি তাকে ভেঙে দু'টি টার্ম ইনস্যুরেন্স বা প্ল্যান নেওয়া যায়।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনাকালে জীবন ও ভবিষ্যতের সুরক্ষার তাগিদে প্রায়শই ইনস্যুরেন্সে বা বিমা করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এ ক্ষেত্রে বাজারে একাধিক টার্ম ইনস্যুরেন্সের প্ল্যান রয়েছে। তবে কোন প্ল্যান বা পলিসি বেছে নেওয়া হবে, তা নিয়ে আলোচনার প্রয়োজন রয়েছে। এ ক্ষেত্রে পলিসি কস্ট বা কভার সব চেয়ে উল্লেখযোগ্য। কোনও টার্ম নেওয়ার আগে তার কস্ট ও কভার খতিয়ে দেখার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। অনেকে বলছেন, একটি বড় টার্ম ইনস্যুরেন্সের চেয়ে ভাল হবে যদি তাকে ভেঙে দু'টি টার্ম ইনস্যুরেন্স বা প্ল্যান নেওয়া যায়। আসুন জেনে নেওয়া যাক বিশদে।

কী ভাবে বাঁচানো যাবে টাকা ও ভেঙে নেওয়া যেতে পারে টার্ম ইনস্যুরেন্সকে:

ধরা যাক, কারও বয়স ৩৫। ৭৫ বছর পর্যন্ত একটি ১.৫ কোটি টাকার টার্ম প্ল্যানের খোঁজে রয়েছেন তিনি। এ ক্ষেত্রে আগামী ৪০ বছরের জন্য প্রতি বছর প্রিমিয়াম হবে প্রায় ২১,০০০ টাকা। যা মোট ৮ লক্ষ ৪০ হাজার টাকার মতো। এ বার যদি ৬০ বছর পর্যন্ত একটি ১ কোটি টাকার টার্ম প্ল্যান নেওয়া হয় এবং ৭৫ বছর পর্যন্ত একটি ৫০ লক্ষ টাকার প্ল্যান নেন, তা হলে অঙ্ক একটু আলাদা হবে। এ ক্ষেত্রে ২৫ বছরের মেয়াদে ১ কোটি টাকায় প্রায় ১১,০০০ টাকা করে প্রিমিয়াম দিতে হবে। অন্য দিকে, ২৫ বছরের মেয়াদে ৫০ লক্ষ টাকায় ৮০০০ টাকা করে প্রিমিয়াম দিতে হবে। এ ক্ষেত্রে মোট প্রিমিয়াম গিয়ে দাঁড়াবে ৫.৯৫ লক্ষ টাকায়।

দু'টি ক্ষেত্রেই ৬০ বছর পর্যন্ত ১.৫ কোটি টাকার কভার পাবেন আপনি। কিন্তু একটি বড় প্ল্যান দুটি প্ল্যানে আলাদা হয়ে যাওয়ায় প্রিমিয়াম কমল। যা রিটায়ারমেন্ট পরবর্তী জীবনে খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ রিটায়ারমেন্টের পর আয়ও সীমাবদ্ধ হয়ে যায়।

পরিবারে কার টার্ম ইনস্যুরেন্স  নেওয়া উচিৎ?

কোনও পরিবারের প্রাইমারি আর্নিং মেম্বরেরই টার্ম ইনস্যুরেন্স থাকা উচিৎ। তবে এ ক্ষেত্রে বয়স উল্লেখযোগ্য। কারণ বেশি দেরি করা উচিৎ নয়। একবার আয় শুরু করলেই ধীরে ধীরে টার্ম ইনসিওরেন্স নিয়ে নেওয়া উচিৎ। মাথায় রাখতে হবে, একই কভারের জন্য যদি আগে শুরু করা যায়, তা হলে প্রিমিয়ামও কম হবে। উদাহরণ হিসেবে যদি আপনার বয়স ৩০ হয়, তা হলে ৭০ বছর পর্যন্ত একটি ১ কোটি টাকার টার্ম প্ল্যানে বার্ষিক প্রিমিয়াম হবে ১২,০০০ টাকা। ৪০ বছর বয়সে একই প্ল্যানের জন্য প্রিমিয়াম হবে ২১,০০০ টাকা। আর ৪৫ বছরে সেই প্ল্যানের জন্যই প্রিমিয়াম হবে ৩২,০০০ টাকা। আপনার বিমায় কতটা কভার হতে পারে?

একটি ঠিকঠাক টার্ম প্ল্যান আপনার সমস্ত কাজ অর্থাৎ ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা, বিয়ে ও অন্যান্য খরচ কভার করতে পারে। ধরে নেওয়া যাক, আপনার হোম লোন ৫০ লক্ষ, কার লোন ৩ লক্ষ এবং ছেলে-মেয়ের উচ্চশিক্ষার জন্য প্রায় ২০ লক্ষ টাকা লাগবে। এ ক্ষেত্রে আপনার ৬০ বছর বয়স হওয়া পর্যন্ত এই সমস্ত কিছু কভার করতে পারে টার্ম প্ল্যানগুলি। আর এ ক্ষেত্রে একটি উপায় আছে। ভালো হবে, যদি এই টার্ম প্ল্যানকে দু'ভাগে ভাগ করে নেওয়া যেতে পারে। একটি ৬০ বছর পর্যন্ত। অন্যটি ৭০-৭৫ বছর পর্যন্ত। এটি কস্ট ও কভার দু'টি বিষয়েই আপনার সমস্যা মেটাবে। টার্ম প্ল্যানে কত বছর পর্যন্ত কভার করতে পারেন আপনি?

টার্ম প্ল্যানে অনেকটা সময় কভার করা যেতে পারে। এই সময়ে আপনার ছেলে-মেয়েরা পড়াশোনা সেরে ফেলতে পারে। তারা স্বনির্ভর হয়ে উঠতেও পারে। এ ক্ষেত্রে আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। যদি দেখা যায়, ৬০ বছরের মধ্যে এই সমস্ত কাজ ভালো ভাবে হয়ে যাবে, তা হলে আর ৬০ বছরের পর আলাদা করে কোনও টার্ম প্ল্যানের প্রয়োজনীয়তা নেই। এ ক্ষেত্রে রিটায়ারমেন্ট প্ল্যানিংও উল্লেখযোগ্য। যদি মনে করেন, তা হলে ৬০ বছরের পরও পরিবারের সদস্যদের প্রয়োজনে কোনও ছোট ছোট টার্মের প্ল্যান নিতে পারেন।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: November 27, 2020, 11:15 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर