corona virus btn
corona virus btn
Loading

অনেকটা কম দামেই দেশে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে স্কোডা র‍্যাপিড TSI AT

অনেকটা কম দামেই দেশে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে স্কোডা র‍্যাপিড TSI AT

কেন কিনবেন স্কোডা র‍্যাপিড TSI AT ? এই গাড়ির বিশেষত্ব হল...

  • Share this:

 গাড়ি প্রেমীদের জন্য সুখবর। এবার ভারতের বাজারে আসছে নতুন স্কোডা র‍্যাপিড TSI AT ১.০। দামও সাধ্যের মধ্যে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন এই গাড়ি মাত্র ৯.৪৯ লাখ টাকায় পাওয়া যাবে। এক ভার্চুয়াল লঞ্চের মাধ্যমে স্কোডা অটো ইন্ডিয়ার তরফে একথা জানানো হয়েছে।

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) থেকেই র‍্যাপিড TSI অটোমেটিকের ডেলিভারি শুরু হচ্ছে। বুকিং করতে গিয়ে কোনওরকম ঝক্কি পোহাতে হবে না। যে কোনও স্কোডার শোরুম কিংবা স্কোডা অটোর ওয়েবসাইট থেকে করা যাবে নতুন গাড়ির এই বুকিং । এক্ষেত্রে বুকিংয়ের জন্য নেওয়া ২৫,০০০ টাকা ফেরত যোগ্য। তাই অযথা দুশ্চিন্তার কারণ নেই।

একনজরে দেখে নিন কোন মডেল মিলছে কত টাকায়--

রাইড প্লাস পাওয়া যাবে ৯.৪৯ লাখ টাকায়। এরপরই ১১.২৯ লাখে পাওয়া যাবে অ্যাম্বিশন AT । তার থেকে একটু বেশি অর্থাৎ ১১.৪৯ লাখে মিলছে অনিক্স AT। তবে স্টাইল AT মডেল পেতে হলে পকেট থেকে খোয়াতে হবে ১২.৯৯ লাখ।

কেন কিনবেন স্কোডা র‍্যাপিড TSI AT ? এই গাড়ির বিশেষত্ব হল এটি ১.০ -লিটার, থ্রি সিলিন্ডার ১.০ পেট্রোল ইঞ্জিন দিয়ে তৈরি। যা ৫০০০- ৫,৫০০ আরপিএমে ১১০ পি এস (৮১ KW) পর্যন্ত পাওয়ার সরবরাহ করতে পারে। পাশাপাশি ইঞ্জিনের সঙ্গে থাকছে সিক্স স্পিড অটোমেটিক টর্ক কনভার্টার গিয়ারবক্সও। এই ইঞ্জিনের কার্যক্ষমতা অনুযায়ী গাড়িটি এক লিটার তেলে প্রায় ১৬.২৪ কিলোমিটার পর্যন্ত চলতে পারবে।

এর আগে র‍্যাপিড রেঞ্জে ১.৬ MPI ইঞ্জিন বসানো হয়েছিল। কিন্তু নতুন র‍্যাপিড TSI AT আগের থেকে ৫ শতাংশ বেশি শক্তিশালী ও ১৪ শতাংশ টর্ক আউটপুট দিতে সক্ষম। ফুয়েলের ক্ষেত্রেও আগের ব্র্যান্ডের মোটরের তুলনায় এই নতুন ব্র্যান্ডের মোটর বেশি কর্মক্ষম। এই র‍্যাপিড TSI AT একটি সিক্স স্পিড অটোমেটিক ট্রান্সমিশন প্রযুক্তিও নিয়ে আসছে। এটি খুবই নির্ভরযোগ্য একটি প্রযুক্তি। তাই এই গাড়ি চালিয়ে যে কোনও চালকই দারুণ অভিজ্ঞতা পাবেন। এজন্যই এই ব্র্যান্ড বেস্ট সেলারও হতে পারে বলে মনে করছেন স্কোডা অটো ইন্ডিয়ার ব্র্যান্ড ডিরেক্টর জ্যাক হলিস।

ভার্চুয়াল লঞ্চের সময় সংস্থার তরফে কয়েকটি বড় ঘোষণাও করা হয়। জানানো হয়, ২০২২ সালের মধ্যে ভারতে তাদের শোরুমের সংখ্যা দ্বিগুণ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এর পাশাপাশি ভবিষ্যতে আরও ১৫ টি নতুন শহরে ব্যবসা শুরু করার চেষ্টাও চলছে।

Published by: Pooja Basu
First published: September 23, 2020, 11:45 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर