Home /News /business /
Reliance|| ক্রীড়াক্ষেত্রে বড়সড় পদক্ষেপ! সাউথ আফ্রিকার টি-২০ লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনল রিলায়েন্স

Reliance|| ক্রীড়াক্ষেত্রে বড়সড় পদক্ষেপ! সাউথ আফ্রিকার টি-২০ লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনল রিলায়েন্স

RIL welcomes franchise in Cricket South Africa’s T20 league: কেপ টাউনের এই নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি মুম্বই ইন্ডিয়ানস (Mumbai Indians) ব্র্যান্ডকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে।

  • Share this:

#মুম্বই: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ময়দানে ধীরে ধীরে নিজেদের অবস্থান মজবুত করছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ (Reliance Industries)। ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা (Cricket South Africa)-র আসন্ন টি-২০ লিগে ফ্র্যাঞ্চাইজি (Franchise) কেনার কথা ঘোষণা করছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। কেপ টাউনের এই নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি মুম্বই ইন্ডিয়ানস (Mumbai Indians) ব্র্যান্ডকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে। পাশাপাশি, সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর আন্তর্জাতিক লিগ টি-২০ দল অধিগ্রহণের কাজও প্রায় হয়েই এসেছে।

খেলার দুনিয়ায় ক্রিকেট ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা, ভারতের ফুটবল লিগ, খেলা সংক্রান্ত স্পনসরশিপ, কনসালটেন্সি এবং অ্যাথলিট ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রভৃতি আরও বাড়ানোর ক্ষেত্রে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। এ-ছাড়াও রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন স্পোর্টস (Reliance Foundation Sports)- রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের সিএসআর উইং ভারতের অলিম্পিক মুভমেন্টের ক্ষেত্রেও বড় ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। দেশের অ্যাথলিটরা যাতে চ্যাম্পিয়ন হতে পারেন, তার জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি ভারত যাতে বিশ্বব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উপস্থাপনা করতে পারে, সেই জায়গাটাও মজবুত করা হচ্ছে। চলতি বছরের গোড়ার দিকে নীতা আম্বানি দীর্ঘ ৪০ বছরের ব্যবধানে আগামী ২০২৩ সালে মুম্বইয়ে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি সেশন উপস্থাপনা করার একটি সফল প্রস্তাব দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন: বিনিয়োগের আগে ধারণা থাকুক সাফ; মিউচুয়াল ফান্ড সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ ১৫ বিষয় না জানলেই নয়!

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের ডিরেক্টর নীতা আম্বানি (Mrs. Nita Ambani) বলেন, “রিলায়েন্স পরিবারে আমাদের নতুন টি-২০ দলকে স্বাগত জানাতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত! মুম্বই ইন্ডিয়ানস ব্র্যান্ডের নির্ভীক এবং বিনোদনমূলক ক্রিকেটকে দক্ষিণ আফ্রিকায় নিয়ে যেতে পেরে আমরা অত্যন্ত উচ্ছ্বসিত। আসলে এই দেশটাও আমাদের ভারতের মতোই ক্রিকেটকে খুবই ভালবাসে। দক্ষিণ আফ্রিকায় রয়েছে মজবুত ক্রীড়া পরিকাঠামো আর আমরা এই কোলাবরেশনের সেই ক্ষমতাকেই কাজে লাগাতে চাইছি। মুম্বই ইন্ডিয়ানসের বিশ্বব্যাপী ক্রিকেটের এই পদক্ষেপের মাধ্যমে আমরাও সমৃদ্ধ হচ্ছি এবং খেলার মাধ্যমে আনন্দ ছড়িয়ে দেওয়ার কাজে অঙ্গীকার করছি।”

রিলায়েন্স জিও (Reliance Jio)-র চেয়ারম্যান আকাশ আম্বানি (Mr. Akash Ambani) বলেন, “দক্ষিণ আফ্রিকার এই ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে সঙ্গে আমাদের হাতে এখন রয়েছে তিনটি দেশের তিনটি টি-২০ দল। ক্রিকেট সংক্রান্ত সমস্ত কিছুর বিষয়ে আমাদের দক্ষতা এবং জ্ঞানের পরিধি যাতে বাড়ে, আমরা সেই দিকটাও দেখছি। আর ব্র্যান্ড মুম্বই ইন্ডিয়ানস দলটিকে গঠন করতে সাহায্য করবে এবং ভক্তদের ক্রিকেট খেলার ক্ষেত্রে দারুণ অভিজ্ঞতা এনে দেবে।”

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Mumbai Indians, Reliance

পরবর্তী খবর