corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘আমানতকারীদের অর্থ সুরক্ষিত, পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক হবে’, বললেন আরবিআই গভর্নর শক্তিকান্ত দাস

‘আমানতকারীদের অর্থ সুরক্ষিত, পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক হবে’, বললেন আরবিআই গভর্নর শক্তিকান্ত দাস

সাংবাদিকরা ইয়েস ব্যাঙ্ক সংকট নিয়ে তাঁকে প্রশ্ন করলে তিনি স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছেন, ‘ইয়েস ব্যাঙ্কের সমস্যা দ্রুত মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

  • Share this:

#নয়া দিল্লি: ইয়েস ব্যাঙ্ক নিয়ে কোনও চিন্তার কারণ নেই৷ দ্রুত সমস্ত সমস্যা সমাধানের কাজ করছে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, আমানতকারীদের আশ্বস্ত করে একথা জানালেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস৷

সাংবাদিকরা ইয়েস ব্যাঙ্ক সংকট নিয়ে তাঁকে প্রশ্ন করলে তিনি স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছেন, ‘ইয়েস ব্যাঙ্কের সমস্যা দ্রুত মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ ৩০ দিনের সময় নেওয়া হয়েছে৷ আরবিআই পরিস্থিতি সামলাতে দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছে৷ ইয়েস ব্যাঙ্ক নিয়ে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তার একটা বৃহত্তর গুরুত্ব রয়েছে৷ শুধু মাত্র এই ব্যাঙ্কের সমস্যা মেটাতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি৷ দেশের ব্যাঙ্কিং সেক্টরের পরিস্থিতি ঠিক রাখতেও এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷

আরও পড়ুন: ইয়েস ব্যাঙ্কের টাকা তোলার সর্বোচ্চ সীমা বেঁধে দিল RBI, তোলা যাবে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত

আমি ইয়েস ব্যাঙ্কের সমস্ত গ্রাহকদের জানাতে চাই, তাঁদের আমানত সুরক্ষিত আছে৷ আগামী দিনে এই বিষয়ের সমস্ত ইস্যু নিয়ে আরবিআই গুরুত্ব সহকারে লড়াই করবে৷ ভারতের ব্যাঙ্কিং সেক্টর যাতে আরও মজবুত হয়, সেদিকে খেয়াল রাখবে৷ যে কোনও সমস্যার সমাধান করতে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষকেও যথেষ্ট সময় দেওয়া প্রয়োজন৷ কিন্তু আমরা যখন দেখলাম আর অপেক্ষা করা ঠিক নয়, তখনই হস্তক্ষেপ করতে বাধ্য হলাম৷ আমার মনে হয়, একদম ঠিক সময়ে আমরা হস্তক্ষেপ করেছি৷ খুব দ্রুত সব সমস্যা মিটে যাবে৷’

মুখ্য অর্থনৈতিক উপদেষ্টা কৃষ্ণমূর্তিও জানিয়েছেন, আমানতকারীদের চিন্তার কারণ নেই, তাঁদের অর্থ সুরক্ষিত আছে৷ বৃহস্পতিবারই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ার পরামর্শে ইয়েস ব্যাঙ্কের সমস্ত কার্যকলাপের উপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে অর্থমন্ত্রক৷ আগামী এক মাস এই নিয়ম কার্যকর থাকবে৷ এই নতুন নিয়মে ইয়েস ব্যাঙ্কের গ্রাহকরা সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা ব্যাঙ্ক থেকে তুলতে পারবেন ৷ এই নিয়ম আপাতত ৩ এপ্রিল পর্যন্ত কার্যকর থাকবে বলে জানা যাচ্ছে ৷

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: March 6, 2020, 1:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर