• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ড বিনিয়োগকারীরা উপকৃত হবে নিপ্পন লাইফের যোগদান থেকে

রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ড বিনিয়োগকারীরা উপকৃত হবে নিপ্পন লাইফের যোগদান থেকে

  • Share this:

    জাপানের নিপ্পন লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি সম্প্রতি বাইন্ডিং এগ্রিমেন্ট সই করেছে রিলায়েন্স ক্যাপিটালের সাথে। এর ফলে এর অংশীদারি বেড়ে যাচ্ছে রিলায়েন্স নিপ্পন অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডএ (RNAM ), যা রিলায়েন্স ক্যাপিটালের মিউচুয়াল ফান্ড বিসনেস, বেড়ে হচ্ছে ৭৫%। এটা সম্ভব হচ্ছে কোম্পানিতে রিলায়েন্স ক্যাপিটালের অংশীদারি কিনে নেবার জন্য।

    বর্তমানে RNAM একটি যৌথ উদ্যোগ নিপ্পন লাইফ ইন্সুরেন্স এবং রিলায়েন্স ক্যাপিটালের মধ্যে যেখানে দুই অংশীদার ৪২.৮৮% ইকুইটি অংশীদারি ধারণ করছে। এই ম&এ চুক্তি এক্সেকিউট হবার পরে RNAM জাপানি কোম্পানির সাবসিডিয়ারি হয়ে যাবে আর রিলায়েন্স ক্যাপিটাল মিউচুয়াল ফান্ড বিসনেস থেকে বেরিয়ে যাবে। এই চুক্তিটি ভারতের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে হওয়া অন্যতম বৃহত্তম বিদেশী প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ (FDI)।

    নিপ্পন লাইফ ইন্সুরেন্স RNAM এর স্ট্রাটেজিক অংশীদার ছিল বিগত ৭ বছর ধরে। ২০১২ তে নিপ্পন লাইফ তার প্রথম বিনিয়োগ করে $২৯০ মিলিয়নের এবং RNAM এর ২৬% অংশীদারি লাভ করে। এর পরে ২০১৪ ও ২০১৫তে বিনিয়োগ করে কোম্পানিটি তার বর্তমান অংশীদারিত্বে পৌঁছায়। RNAM তার ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং (IPO) বাজারে আনে অক্টোবর ২০১৭তে। সেই IPOটি ছিল ভারতে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট বিসনেসএর পক্ষে প্রথম এবং দারুন সফল (প্রায় ৮০ গুলি ওভারসাবস্ক্রিব হয় এটি)

    নিপ্পন লাইফ ইন্সুরেন্স কি? * নিপ্পন লাইফ একটি অর্থনৈতিক সমন্বিত সংস্থা যার বিনিয়োগ আছে সারা পৃথিবী জুড়ে

    * নিপ্পন লাইফ, একটি ফরচুন ৫০০ কোম্পানি, প্রায় ৪৯ লক্ষ কোটি টাকার ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে, এটি ভারতের মোট মিউচুয়াল ফান্ড বিসনেসএর দ্বিগুন। এটি রিলায়েন্স ADAG তুলনায় অনেক বেশি সম্পদশালী।

    * নিপ্পন লাইফ ইন্সুরেন্স একটি ১৩০ বছরের পুরোনো সংস্থা, এবং জাপানের অন্যতম বড়ো লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি। এর অ্যাসেট $ ৭০০ বিলিয়নের বেশি, আয় প্রায় $৭০ বিলিয়ন এবং মুনাফা $৬।৮ বিলিয়ন।

    * বেসরকারি লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানিগুলির মধ্যে নিপ্পন লাইফ ইন্সুরেন্স জাপানে সবচেয়ে বেশি মার্কেট শেয়ার রাখে, এর প্রায় ৭০০০০ কর্মচারী আছে, এবং প্রায় ১৪ মিলিয়ন কাস্টমারকে পরিষেবা প্রদান করে।

    এখন যখন রিলায়েন্স গ্রূপ মিউচুয়াল ফান্ড বিসনেস বিক্রি করে দিচ্ছে, রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ড স্কিম গুলিতে বিনিয়োগকারীদের ওপর কি প্রভাব পড়বে? * যদি কোনো প্রভাব পরেও তাহলে এখন রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ড স্কিমএ বিনিয়োগ করা আরো ভালো। যেখানে জানা যাচ্ছে যে ফান্ড ম্যানেজার, স্কিম অবজেক্টিভ আর ব্যবসার গঠনের পরিবর্তন হচ্ছে না।

    * মিউচুয়াল ফান্ড গুলি সেবী মিউচুয়াল ফান্ড নিয়ন্ত্রণ ১৯৯৬ দিয়ে নিয়ন্ত্রিত হয়। এতে ত্রিস্তরীয় গঠন বলেছে যথা স্পনসর (এদেরকে এমসির প্রোমোটার ভাবা যেতে পারে) ট্রাস্টি এবং এমসি।

    * স্পনসরদের যোগ্যতার মানদণ্ড মেনে চলতে হয়, যেমন অর্থনৈতিক পরিষেবা ব্যবসায় কম করে ৫ বছর থাকা, কমপক্ষে ৩ বছর মুনাফা করা, এবং সব ৫ বছরে পসিটিভ নেট ওয়ার্থ রাখা, তারা এমসির নেট ওয়ার্থএর কম করে ৪০% বিনিয়োগ করবে। এছাড়া তাদের বাজারে সুনাম এবং সুচারু পরিচালন ব্যবস্থা থাকতে হবে।

    * ট্রাস্টিরা মিউচুয়াল ফান্ডের বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষা করেন। এরা জিম্মাদার হিসাবে কাজ করেন এবং নজর রাখেন যে এমসি সেবী গাইডলাইন মোতাবেক কাজ করছে। সাধারণত একটা আলাদা ট্রাস্ট গঠন করা হয় যেখানে অন্ততপক্ষে ২-৩ জন নিরপেক্ষ ডিরেক্টর থাকেন, যেটি বিনিয়োগকারীদের তাকে কেনা অ্যাসেটকে রক্ষা করে। তারা সেবিকে প্রতি ৬ মাসে এমসির কাজ সম্পর্কে জানান এবং রেগুলেটরের কাছে বিনিয়োগকারীদের নিরাপত্তার জন্য জবাবদিহি করতে বাধ্য থাকেন।

    এমসি ট্রাস্টের ইনভেস্টমেন্ট ম্যানেজার। * এই তিনজনা একে ওপরের থেকে পৃথক হয়ে কাজ করে, যাকে অনেক সময় বলে আর্মস-লেংথ- সম্পর্ক।

    যেমন উদাহরণ স্বরূপ ICICI ব্যাঙ্ক এবং Prudential Plc ICICI Prudential মিউচুয়াল ফান্ডএর স্পনসর।

    অর্থাৎ, এটা হলো একটি এমসির মিউচুয়াল এসেটগুলোর অন্য একটা এমসির বা বলা ভালো এমসি-ট্রাস্টের কিনে নেয়া। মানে পুরোনো স্কিমগুলো এখনো বহাল আছে এবং ইনভেস্ট ম্যানেজার বদল হয়েছে। (উদাহরণ স্বরূপ জুরিখ মিউচুয়াল ফান্ড স্কিমগুলোর HDFC মিউচুয়াল ফান্ডের কিনে নেয়া) এবং এই বিষয়ে বিনিয়োগকারীদের চিন্তা করার কোনো কারণ নেই।

    এই মালিকানা বদল কিভাবে রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ড স্কিমএ বিনিয়োগকারীদের উপকার করছে? * নিপ্পন লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি, একটি ফরচুন ৫০০ কোম্পানি, এবং ১৩০ বছরের সফলার ইতিহাস সঙ্গে নিয়ে এসে ঝুঁকি এবং আমানত ব্যবস্থাপনাকে শক্তিশালী করবে এবং কর্পোরেট গভর্নেন্স পদ্ধতিকে শক্তিশালী করবে।

    * রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষুরধার বাজার গবেষণা এবং শক্ত বাজারকে আরো বেশি দৃঢ় ও স্থায়ী করবে

    * ফান্ডগুলি আরো উপকৃত হবে আরো বেশি AUM, জাপানের বাজারে নিপ্পনের কর্তৃত্ব, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক আর সেরা অভ্যাসগুলির জন্য। এর ফলে ভারতে আরো বিদেশি বিনিয়োগ আসবে।

    রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারহোল্ডারদের ওপর কি প্রভাব পড়বে? * নিপ্পন লাইফ তার সঙ্গে আনছে নৈকষ্যসম্পন্ন প্রত্যয় আর প্রোমোটার হিসাবে অর্থনৈতিক দৃঢ়তা

    * ৪৮টা দেশে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট এবং বিশ্বব্যাপী ইন্সুরেন্স ব্যবসায় উপস্থিতি নিয়ে নিপ্পন লাইফ সারা বিশ্বের বিনিয়োগকারীদের ভারতে বিনিয়োগ করতে আকর্ষণ করবে এছাড়াও রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ডএর অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট দক্ষতাকে বিশ্বের বাজারে ব্যবহার করতে পারবে।

    উপসংহার আমরা এডভাইসরখোঁজে এটা মনে করি যে RNAM চুক্তি সবার জন্য উপকারী হবে যেমন শেয়ারহোল্ডারস, মিউচুয়াল ফান্ড ইন্ডাস্ট্রি, এবং সবচেয়ে বড়ো কথা বিনিয়োগকারীদের। নিপ্পন লাইফ ইতিমধ্যেই সন্দীপ শুক্লার তক্তাবধানে থাকে ম্যানেজমেন্ট টিমের প্রতি নিজেদের বিশ্বাস প্রকাশ করেছে এবং তাদেরকেই ভবিষ্যতে এগিয়ে নিয়ে যাবার কথা বলেছে। ম্যানেজমেন্ট ধারাবাহিকতা নিয়ে কোনো অসুবিধা হবে না, বিনিয়োগকারীদের ক্ষেত্রেও এটা স্বাভাবিক ব্যবসা হবে।

    সন্দীপ শুক্লা সিইও এবং এক্সেকিউটিভ ডিরেক্টর বলেছেন যে RNAM "নিপ্পন লাইফের ব্যবসার ঝুঁকি নিয়ন্ত্রক অভ্যাস থেকে উপকার পেতে থাকবে এবং এর বিশ্বব্যাপী সম্পর্ক ভারতে আরো বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াবে" একজন রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ড বিনিয়োগকারী হিসাবে, আপনার ওপর কোনো ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে না। যদি আপনার আরও কোনো প্রশ্ন থাকে আপনি আপনার ফিনান্সিয়াল এডভাইসর বা আপনার শহরের রিলায়েন্স মিউচুয়াল ফান্ড শাখায় যোগাযোগ করুন।

    First published: