রেপো রেট অপরিবর্তিত, দেশের আর্থিক বৃদ্ধির হার নেগেটিভই থাকবে, জানালেন RBI গভর্নর

রেপো রেট অপরিবর্তিত, দেশের আর্থিক বৃদ্ধির হার নেগেটিভই থাকবে, জানালেন RBI গভর্নর
আরবিআই গভর্নর শক্তিকান্ত দাস

বৃহস্পতিবার রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ঋণনীতি ঘোষণায় আরবিআই-এর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস জানান, করোনা পরিস্থিতিতে তাত্‍পর্যপূর্ণ ভাবে স্বর্ণ ঋণ বা গোল্ড লোন নেওয়ার পরিমাণ ৭৫ শতাংশ থেকে বেড়ে ৯০ শতাংশ হয়ে গিয়েছে৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে মানুষের হাতে টাকা নেই৷ আর্থিক পরিস্থিতি ধুঁকছে৷ এ হেন অবস্থায় রেপো রেট (যে সুদের হারে বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলিকে ঋণ দেয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক) অপরিবর্তিতই রাখল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক৷ অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে রিভার্স রেপো রেটও৷ যার নির্যাস, বিভিন্ন লোনের উপরে সুদের হার বাড়ছে না৷ একই সঙ্গে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পূর্বাভাস, দেশের জিডিপি বৃদ্ধির হার নেগেটিভ থাকবে ২০২০-২১ আর্থিক বছরে৷

    বৃহস্পতিবার রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ঋণনীতি ঘোষণায় আরবিআই-এর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস জানান, করোনা পরিস্থিতিতে তাত্‍পর্যপূর্ণ ভাবে স্বর্ণ ঋণ বা গোল্ড লোন নেওয়ার পরিমাণ ৭৫ শতাংশ থেকে বেড়ে ৯০ শতাংশ হয়ে গিয়েছে৷ রেপো রেট ৪ শতাংশ ও রিভার্স রেপো রেট ৩.৩৫ শতাংশই রাখা হয়েছে৷

    তবে অর্থনীতির চাকা ঘোরার বিষয়ে সেরকম কোনও আশার বাণী শোনাতে পারেননি আরবিআই গভর্নর৷ তিনি বলেন, 'কৃষি ক্ষেত্রে খানিকটা উন্নতির সম্ভাবনা উজ্জ্বল হচ্ছে খারিপ শস্যের ভাল উত্‍পাদন ও ভাল বর্ষার জেরে৷ তাই গ্রামীণ অর্থনীতি আশা করছি শীঘ্রই ঘুরে দাঁড়াবে৷' কিন্তু যেহেতু বিশ্ব অর্থনীতির নড়বড়ে অবস্থা, তাই ভারতের সার্বিক আর্থিক বৃদ্ধির হার নেগেটিভই থাকবে বলে জানান তিনি৷

    রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নরের কথায়, 'দেশের জিডিপির অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। মূল জিডিপি প্রথম প্রথমার্ধে খুবই প্রান্তিক অবস্থায় থাকবে। ২০২১-২২ সালেও জিডিপির অবস্থায় খুব বেশি পরিবর্তন আসবে না।'

    Published by:Arindam Gupta
    First published:

    লেটেস্ট খবর