• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • PF Rules changed: চিকিৎসার প্রয়োজনে যখন তখন মিলবে এক লক্ষ টাকা, পিএফ-এর টাকা তোলার নিয়মে বড় বদল

PF Rules changed: চিকিৎসার প্রয়োজনে যখন তখন মিলবে এক লক্ষ টাকা, পিএফ-এর টাকা তোলার নিয়মে বড় বদল

পিএফ-এ টাকা তোলার নিয়মে বড় বদল। এখন চিকিৎসার অগ্রিম পাওয়া যাবে সহজেই।

পিএফ-এ টাকা তোলার নিয়মে বড় বদল। এখন চিকিৎসার অগ্রিম পাওয়া যাবে সহজেই।

PF Rules changed: সম্প্রতি ইপিএফও-র তরফ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: এমপ্লয়ি প্রভিডেন্ট ফান্ডে তালিকাভুক্ত আপনি? তাহলে, নিজের চিকিৎসার জন্য যখন তখন আগাম হিসেবে এক লক্ষ টাকা তুলতে পারেন নিজের এই ফান্ড থেকেই। আপৎকালীন চিকিৎসা ব্যবস্থা বা হাসপাতলে ভর্তি হওয়ার ক্ষেত্রে চটজলদি এই টাকা পাওয়া যেতে পারে। এর জন্য সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে বিলের পরিমাণ জানানো বা অন্যান্য তথ্য দেওয়ারও দরকার নেই। সম্প্রতি ইপিএফও-র তরফ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

    একটি সার্কুলারে বলা হয়েছে, মারণ রোগের ক্ষেত্রে অনেক সময় রোগীকে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। সব সময় টাকা জোগাড় করা সম্ভব হয় না। রোগীকে আইসিইউতে ভর্তি করতে হতে পারে। এই সমস্ত কথা মাথায় রেখেই করোনা-সহ অন্যান্য রোগের ক্ষেত্রেই রোগীকে তড়িঘড়ি চিকিৎসা পরিষেবার মধ্যে আনতে, আগাম অর্থের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

    এক্ষেত্রে রোগীকে অবশ্যই সরকার নথিভূক্ত কোনও হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে। বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হলেও পরিবারের তরফে বিল বিভাগে কথা বলে নিতে হবে, যাতে পরে রিএমবাসমেন্ট পাওয়া যায়।

    রোগীর তরফ থেকে রোগীর পরিবারের সদস্যরাই চিঠি লিখে আবেদন জমা করতে পারেন। সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা অগ্রিম হিসেবে পাওয়া যেতে পারে আবেদন জমা দেওয়ার পর। বিবৃতি বলছে, রোগীর পরিবার দিনের দিনই এই অর্থ পেয়ে যেতে পারেন।

    শুধু এক লাখ টাকা অগ্রিমই নয়, রোগীর পরিবার প্রয়োজনে অ্যাকাউন্ট থেকে আরও এক প্রস্থ টাকাও পেতে পারেন। আগাম অর্থের রশিদ জমা দিয়ে বকেয়া অর্থের পরিমাণ জানাতে হবে। রোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাবার ৪৫ দিনের মধ্যে ইপিএফও-তে  বিল জমা দিতে হবে।

    ইপিএফ-এর ক্ষেত্রে টাকা তোলার মূল শর্ত হলো, মহার্ঘ ভাতা হিসেবে সংস্থার তরফে তিনি যে টাকা তাঁর জন্য বরাদ্দ অথবা তিনি যে মূল্য ইতিমধ্যেই দিয়ে ফেলেছেন করেছেন, তারই অংশ পাওয়া যাবে চিকিৎসার জন্য।

    Published by:Arka Deb
    First published: