Home /News /business /
ফর্ম ১৬-এ ট্যাক্স ডিডাকশনের নেওয়ার উল্লেখ নেই? কী করতে হবে জেনে নিলে মিটবে ঝামেলা

ফর্ম ১৬-এ ট্যাক্স ডিডাকশনের নেওয়ার উল্লেখ নেই? কী করতে হবে জেনে নিলে মিটবে ঝামেলা

ট্যাক্স সময়মতো জমা করা জরুরি

ট্যাক্স সময়মতো জমা করা জরুরি

আপডেটেড ফর্ম ১৬ এবং ২৬ এএএস আসার পরে কি ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ভেরিফাই করা উচিত, না এখনই সেটি জমা করে দেওয়া উচিত?

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতার বাসিন্দা সুদেশ একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে চাকরি করেন। তিনি এই বছর নিজের আয়কর রিটার্ন সঠিক সময়ে জমা করেছিলেন। কিন্তু সঠিক সময়ে আয়কর রিটার্ন ফাইল জমা করেও তিনি সমস্যার মধ্যে পড়েছেন। কারণ তাঁর কোম্পানি থেকে তাঁকে দেওয়া ফর্ম ১৬ এবং ফর্ম ২৬ এএএস-এ ট্যাক্স কেটে নেওয়ার কোনও উল্লেখ করা হয়নি অর্থাৎ তাঁর থেকে যে পরিমাণ ট্যাক্স কেটে নেওয়া হয়েছে তার কোনও উল্লেখ সেই ফর্মে করা হয়নি। এর ফলে তিনি খুবই সমস্যায় পড়েছেন।

এর ফলে সুদেশ এখন খুবই চিন্তিত। কারণ তিনি মনে করছেন তাঁর ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল বাতিল করে দেওয়া হতে পারে এবং তাঁকে আয়কর বিভাগের থেকে নোটিশ পাঠানো হতে পারে। সুদেশ জানিয়েছেন যে তিনি ইতিমধ্যেই কোম্পানিকে ফর্ম ১৬ এবং ফর্ম ২৬ এএএস আপডেট করে রিটার্ন করার অনুরোধ জানিয়েছেন। এর ফলে সুদেশ এখনও নিজের ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল ভেরিফাই করতে পারেননি। তিনি বুঝতে পারছেন না আপডেটেড ফর্ম ১৬ এবং ২৬ এএএস আসার পরে কি ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ভেরিফাই করা উচিত, না এখনই সেটি জমা করে দেওয়া উচিত। সুদেশের মতো এই সমস্যায় অনেকেই পড়েছেন। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক এই ধরনের সমস্যা থেকে বাঁচার উপায়।

বিশেষজ্ঞদের মতামত -

আয়কর বিশেষজ্ঞ বলবন্ত জৈন জানিয়েছেন, যে সকল করদাতা নিজেদের ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ৩১ জুলাইয়ের আগে জমা করে দিয়েছে তাঁদের ১২০ দিনের মধ্যে ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল ভেরিফাই করতে হয়। এই কাজ করা যায় ওটিপির মাধ্যমে ইলেকট্রনিক ডিভাইসের সাহায্যে। এছাড়াও নিজেদের ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল বেঙ্গালুরুতে অবস্থিত আয়কর বিভাগে পাঠিয়ে অফলাইন মোডের মাধ্যমেও ভেরিফাই করা যেতে পারে।

আরও পড়ুন: 'ইডি-CBI-এর কাছে সব তথ্য পাঠাচ্ছেন কুণাল ঘোষ', বিস্ফোরক দাবি সৌমিত্র খাঁ'র! তুমুল চাঞ্চল্য

আরও পড়ুন: 'আমি জানতাম দিদি আমার পাশে দাঁড়াবে', মমতার মন্তব্যে যেন প্রাণ ফিরে পেলেন 'কেষ্ট'

তিনি জানিয়েছেন যে, যদি কেউ ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন জমা করে দিয়ে থাকেন তাহলে ৩১ ডিসেম্বরের আগে তাঁকে রিভাইস ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন জমা করতে হবে। কারণ ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল প্রসেসিং শুরু হওয়ার পরেই এর অ্যাসেসমেন্ট শুরু হয়ে যায়। এর ফলে যখন কেউ রিভাইস রিটার্ন জমা করেন তখন সেটি অরিজিনাল রিটার্নের জায়গা নিয়ে নেয়। করদাতারা চাইলে ৩১ ডিসেম্বরের আগেই নিজেদের ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন জমা করতে পারেন।

বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ যা মাথায় রাখতে হবে-

বিশেষজ্ঞদের মতে অরিজিনাল ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল ভেরিফাই না করেই রিভাইস ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল জমা করে দিলে সেটাকে নতুন আয়কর রিটার্ন হিসাবে গণ্য করা হবে। কারণ ভেরিফাই না করা আয়কর রিটার্ন একটি সঠিক আয়কর রিটার্ন ফাইল হিসাবে মনে করা হয় না। এর জন্য করদাতাদের নিজেদের ফর্ম ১৬ এবং ২৬ এএএস আপডেট হয়ে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। এরপর নিজেদের অরিজিনাল ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল ভেরিফাই করার পর রিভাইস ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন দাখিল করতে হবে।

এছাড়াও করদাতাদের একটি বিষয় মাথায় রাখার প্রয়োজন রয়েছে। এক্ষেত্রে করদাতাদের নিজেদের কোম্পানিকে টিডিএস রিটার্ন জমা করার জন্য বলতে হবে। এর ফলে তাঁদের ফর্মে কেটে নেওয়া ট্যাক্সের ডিটেলস দেখা যাবে। এর ফলে করদাতাদের রিভাইস ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন করতে সুবিধা হবে।

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Income Tax

পরবর্তী খবর