লাগবে না কোনও ফি, আনলিমিটেড ওয়ালেট পেমেন্টের সুবিধা পাচ্ছেন Paytm মার্চেন্টরা!

ক্রেডিট লিমিটও বাড়ানো হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে প্রায় ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ক্রেডিট লিমিট রয়েছে। তবে যথাসময়ে রিপেমেন্ট হয়ে গেলে এই ক্রেডিট লিমিট বাড়তেও পারে।

ক্রেডিট লিমিটও বাড়ানো হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে প্রায় ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ক্রেডিট লিমিট রয়েছে। তবে যথাসময়ে রিপেমেন্ট হয়ে গেলে এই ক্রেডিট লিমিট বাড়তেও পারে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: জিরো পার্সেন্ট ফি। এ বার Paytm Wallet, UPI বা যে কোনও Rupay কার্ডের সাহায্যে আনলিমিটেড পেমেন্টের সুবিধা পেতে চলেছেন Paytm মার্চেন্টরা। সম্প্রতি এক ঘোষণায় এ কথা জানিয়ে দিল ডিজিটাল পেমেন্ট সংস্থা Paytm। Paytm-এর তরফে জানানো হয়েছে, সংস্থার এই পদক্ষেপে সংশ্লিষ্ট ডিজিটাল পেমেন্ট প্ল্যাটফর্মের ১৭ মিলিয়নের বেশি ব্যবসায়ী উপকৃত হতে পারেন। কারণ এ বার থেকে তাঁরা নির্দ্বিধায় ব্যাঙ্কগুলিতে টাকা ট্রান্সফার করতে পারবেন। আর এই কাজে কোনও রকম টাকাও কাটা যাবে না। এর আরও একটি সুবিধা রয়েছে। Paytm জানাচ্ছে, এই পদক্ষেপের জেরে ক্রেতাদের জন্য কাউন্টারে আর একাধিক QR কোড রাখতে হবে না Paytm মার্চেন্টদের। সম্প্রতি এক প্রেস বিবৃতিতে Paytm-এর তরফে জানানো হয়েছে, Paytm wallet, Paytm UPI ও অন্যান্য UPI অ্যাপ থেকে পেমেন্ট নেওয়ার জন্য এ বার 'all-in-one QR' অপশন সিলেক্ট করতে পারবে সমস্ত বিজনেস অ্যাকাউন্টগুলি। এ বিষয়ে Paytm-এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট কুমার আদিত্য জানিয়েছেন, দেশ জুড়ে Paytm-এর মার্চেন্ট পার্টনারদের স্বার্থেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে অতিরিক্ত কোনও চার্জ নিয়ে চিন্তাভাবনার কারণ নেই। আনলিমিটেড ওয়ালেট পেমেন্টের পাশাপাশি সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকউন্টে টাকা জমা হয়ে যাবে। প্রতিটি ট্রানজাকশনেই আরও বেশি করে টাকা বাঁচাতে পারবেন মার্চেন্টরা। কারণ কোনও টাকা কাটা যাবে না। টাকা ট্রানজাকশনের কোনও লিমিটও থাকবে না। এর জেরে অন্যান্য ব্যবসায়ীরাও Paytm-এর পরিষেবা নেওয়ার জন্য উৎসাহিত হবেন। ই-কমার্স এক্সপার্টদের কথায়, এই করোনাকালে যখন ডিজিটাল পেমেন্ট অধিকমাত্রায় গুরুত্ব পাচ্ছে, তখন Paytm-এর এই সিদ্ধান্ত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি পোস্টপেইড গ্রাহকদের জন্য নতুন পরিষেবা নিয়ে এসেছে Paytm। কারণ এ বার পোস্টপেইড গ্রাহকরা তাঁদের মোট মাসিক বিলকে EMI-তে রূপান্তরিত করতে পারবেন। এ বার কেনার জন্য বাজেটের কথা না ভেবে ও এককালীন মাসিক বিলের কোনও রকম চাপ ছাড়াই অতি সহজে ইনস্টলমেন্ট বিল মেটাতে পারবেন গ্রাহকরা। এ ক্ষেত্রে সুদের হারও ন্যূনতম। এ নিয়ে এক ঘোষণায় Paytm-এর তরফে জানানো হয়েছে, বিল জেনারেট হওয়ার প্রথম সাতদিনের মধ্যেই পোস্টপেইড বিলকে EMI-তে রূপান্তরিত করা যাবে। সমস্ত ক্ষেত্রেই পাওয়া যাবে এই সুবিধা। এ ক্ষেত্রে রিলায়েন্স ফ্রেশ, হলদিরাম, অ্যাপোলো ফার্মেসি, ক্রোমা, শপার্স স্টপ-সহ একাধিক জায়গা থেকে বাড়ির জিনিসপত্র কিনতে পারেন Paytm পোস্টপেইড ব্যবহারকারীরা। এবং ইনস্টলমেন্টে মেটাতে পারেন সেই বিল। ক্রেডিট লিমিটও বাড়ানো হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে প্রায় ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ক্রেডিট লিমিট রয়েছে। তবে যথাসময়ে রিপেমেন্ট হয়ে গেলে এই ক্রেডিট লিমিট বাড়তেও পারে। Paytm-এর তরফে জানানো হয়েছে, তিনটি আলাদা ক্রেডিট লিমিটে পাওয়া যাবে এই পোস্টপেইড সার্ভিস। এই তিনটি ক্রেডিট লিমিট হল Lite, Delite ও Elite। এ ক্ষেত্রে Postpaid Lite-এর ক্রেডিট লিমিট হল ২০,০০০ টাকা। মূলত যাঁদের কোনও ক্রেডিট স্কোর নেই, তাদের কথা ভেবেই বিশেষ পরিষেবা আনা হচ্ছে। অন্য দিকে, মাসিক খরচে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ক্রেডিট লিমিট পাওয়া যাবে Delite ও Elite পোস্টপেইডে। কোনও অতিরিক্ত চার্জও লাগছে না।

Published by:Pooja Basu
First published: