corona virus btn
corona virus btn
Loading

নভেম্বরে ডেলিভারির কথা, ২২ সপ্তাহ পর্যন্ত বাড়ল Mahindra Thar-এর ওয়েটিং পিরিয়ড

নভেম্বরে ডেলিভারির কথা, ২২ সপ্তাহ পর্যন্ত বাড়ল Mahindra Thar-এর ওয়েটিং পিরিয়ড

নতুন Mahindra Thar-এর ওয়েটিং টাইম চার সপ্তাহ থেকে ২২ সপ্তাহ পর্যন্ত বেড়েছে। বিশেষ করে অটোমেটিক ডিজেল ভার্সনের ওয়েটিং পিরিয়ড সব চেয়ে বেশি হতে পারে।

  • Share this:

#কলকাতা: এই মাসের শুরুতে লঞ্চ করেছে Mahindra Thar। ডেলিভারি শুরু হওয়ার কথা ১ নভেম্বর থেকে। এর মাঝেই উঠে এল নতুন তথ্য। সম্প্রতি Carwale-র প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, নতুন Mahindra Thar-এর ওয়েটিং টাইম চার সপ্তাহ থেকে ২২ সপ্তাহ পর্যন্ত বেড়েছে।

কী বলছে Carwale প্রকাশিত খবর? এই প্রতিবেদন অনুযায়ী Mahindra Thar-এর মোট বুকিংয়ের ৫৭ শতাংশ ক্রেতাই নতুন। অর্থাৎ এঁরা সবাই প্রথমবার গাড়ি কিনেছেন। আর Mahindra Thar কিনেছেন। এমনকি গাড়ির অটোমেটিক মডেল সেকশনেও প্রচুর বুকিং হয়েছে। এই প্রতিবেদন সূত্রেই খবর পাওয়া গিয়েছে, নতুন Mahindra Thar-এর ওয়েটিং টাইম চার সপ্তাহ থেকে ২২ সপ্তাহ পর্যন্ত বেড়েছে। বিশেষ করে অটোমেটিক ডিজেল ভার্সনের ওয়েটিং পিরিয়ড সব চেয়ে বেশি হতে পারে। খবর অনুযায়ী, এই গাড়ির দাম ৯.৮০ লক্ষ টাকা। AX সিরিজ, LX ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশন ও LX অটোমেটিক ট্রান্সমিশন মডেলেও পাওয়া যাচ্ছে এই গাড়ি। Mahindra-র এই সিরিজের দ্বিতীয় জেনারেশনের গাড়ি হল ২০২০ থর। তাই এই মডেলে গাড়ির ভিতর ও বাইরের অংশে বেশ কিছু পরিবর্তন এসেছে। তবে সব চেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এ বার এই গাড়িতে পেট্রোল ও ডিজেল দু'ধরনের ইঞ্জিনের ব্যবস্থা রয়েছে। তাই ক্রেতাদের কাছে এ বার বিকল্প বেছে নেওয়ার সুযোগ থাকছে। প্রস্তুতকারী সংস্থার দাবি, দু'টি ইঞ্জিনের পারফরম্যান্সই দুর্দান্ত। Mahindra Thar-এ থাকছে ২.০ লিটার স্ট্যালিয়ন টার্বো পেট্রোল ইঞ্জিন। এটি ১৫০ bhp ও ৩০০ Nm টর্ক পর্যন্ত ক্ষমতা সরবরাহ করতে পারে। এর সঙ্গেই সিক্স স্পিড ম্যানুয়াল ও সিক্স স্পিড টর্ক কনভার্টার অটোমেটিক ট্রান্সমিশন থাকছে গাড়িতে। এ ক্ষেত্রে অটোমেটিক অপশনটি ৩২০ nm পর্যন্ত ক্ষমতা সরবরাহ করতে পারে। ক্রেতারা পছন্দমতো দেখে কিনতে পারেন। টার্বো পেট্রোল ইঞ্জিনের পাশাপাশি থাকছে ২.২ লিটার ডিজেল ইঞ্জিন। এই ডিজেল ইঞ্জিন ১৩০ bhp ও ৩০০ Nm টর্ক পর্যন্ত ক্ষমতা সরবরাহ করতে পারে।

এ ক্ষেত্রে Mahindra Thar মডেলে থাকছে ছ'টি কালার অপশন। এগুলি হল রকি বেইজ, অ্যাকুয়ামেরিন, মিস্টিক কপার, রেড রেজ, নাপোলি ব্ল্যাক ও গ্যালাক্সি গ্রে। গাড়িপ্রস্তুতকারী সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, এ পর্যন্ত এই গাড়ির প্রায় ১৫,০০০ বুকিং হয়েছে। যা রীতিমতো চমকপ্রদ। এই গাড়ির ইন্টিরিয়র ডিজাইন আপনার নজর কাড়বে। নতুন Mahindra Thar-এ থাকছে ডিজিটাল অ'aমিটার। শুধু ডিজিটাল অটোমিটারই নয়, একই সঙ্গে থাকছে ডিজিটাল ক্লক, ইলেকট্রনিক মাল্টি ট্রিপমিটার। আপনার ইনফোটেনমেন্টেরও পুরোপুরি বন্দোবস্ত রয়েছে। Mahindra Thar-এ গাড়ির ভিতরে থাকছে মোনোক্রোম MID ডিসপ্লে। গাড়ির সমস্ত মডেলেই থাকছে ফোর হুইল ড্রাইভ সিস্টেম। এ ক্ষেত্রে লো এবং হাই দু'টি রিডাকশন গিয়ারেই পাওয়া যাচ্ছে ফোর হুইল ড্রাইভ সিস্টেমটি।

Published by: Simli Raha
First published: October 26, 2020, 10:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर