Home /News /business /
NPS: মিলবে নিশ্চিত রিটার্ন! আগামী মাসেই ন্যাশনাল পেনশনে সিস্টেমের অধীনে চালু হতে পারে নয়া স্কিম

NPS: মিলবে নিশ্চিত রিটার্ন! আগামী মাসেই ন্যাশনাল পেনশনে সিস্টেমের অধীনে চালু হতে পারে নয়া স্কিম

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে জাতীয় পেনশন সিস্টেমের অধীনে এই নতুন স্কিমটি চালু করা হতে পারে।

  • Share this:

#কলকাতা: ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম (National Pension System) বা এনপিএস (NPS)-এ বিনিয়োগকারীদের জন্য খুশির খবর। পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (PFRDA) খুব শীঘ্রই একটি নতুন স্কিম চালু করার পরিকল্পনা করছে। এই প্রকল্পের বিনিয়োগকারীরা নিয়মিত নিশ্চিত পেনশনের সুবিধা পাবেন। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে জাতীয় পেনশন সিস্টেমের অধীনে এই নতুন স্কিমটি চালু করা হতে পারে।

‘মানিকন্ট্রোল’-এর একটি প্রতিবেদন থেকে এই খবরটি জানা গিয়েছে। পিএফআরডিএ চেয়ারপার্সন সুপ্রতিম বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে, পিএফআরডিএ বিনিয়োগকারীদের মুদ্রাস্ফীতি বান্ধব রিটার্ন প্রদান করে থাকে। বেঙ্গালুরুতে সংবাদমাধ্যমের কাছে একটি সাক্ষাৎকারে তিনি জানান যে, সংস্থাটি ন্যূনতম গ্যারান্টি রিটার্ন স্কিমের উপর কাজ করছে। তিনি বলেন যে, আশা করা হচ্ছে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর তারিখ থেকে এই প্রকল্পটি চালু করা হবে।

আরও পড়ুন: মোদি সরকারের কর্মীদের DA Hike-এর পরে ১৮ মাসের বকেয়া নিয়ে সব থেকে বড় আপডেট

দুর্দান্ত রিটার্ন: সুপ্রতিম বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, পিএফআরডিএ গত ১৩ বছরে ১০.২৭ শতাংশ হারে চক্রবৃদ্ধি সুদ (CAGR) প্রদান করেছে। পিএফআরডিএ রিটার্ন সব সময় মুদ্রাস্ফীতির হারের চেয়ে বেশি থাকে। তিনি আরও বলেন যে, তাদের মোট পেনশন সম্পদের পরিমাণ ৩৫ লক্ষ কোটি টাকা। এই মোট টাকার প্রায় মধ্যে ২২ শতাংশ অর্থাৎ মোট ৭.৭২ লক্ষ কোটি টাকা জাতীয় পেনশন সিস্টেমের (NPS) অধীনে রয়েছে। তহবিলের মোট পরিমাণের ৪০ শতাংশ কর্মচারীদের ভবিষ্যৎ তহবিল সংস্থার কাছে রয়েছে। সুপ্রতিমবাবু আরও বলেন, এই বছরে বিনিয়োগকারীদের সংখ্যা ৩.৪১ লক্ষ থেকে বেড়ে ৯.৭৬ লক্ষে পৌঁছেছে। চলতি আর্থিক বর্ষে এই সংখ্যা আরও ২০ লক্ষ বৃদ্ধি পাবে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম কী? ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম (NPS) হল একটি মার্কেট লিঙ্কড প্রোডাক্ট (Market Linked Product)। এই ক্ষেত্রে বিনিয়োগে রিটার্ন ওঠা-নামা করতে পারে। এনপিএস-এর অধীনে মোট দুই ধরনের অ্যাকাউন্ট খোলা যেতে পারে - টিয়ার-১ এবং টিয়ার-২। টিয়ার-২ অ্যাকাউন্ট হল সেভিংস অ্যাকাউন্ট। এটি একটি ভলান্টারি অ্যাকাউন্ট, যেখান থেকে থেকে টাকা তোলার ক্ষেত্রে কোনও সীমা বা বাধা থাকে না। টিয়ার-১ অ্যাকাউন্ট হল রিটায়ারমেন্ট অ্যাকাউন্ট। এই অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তোলার সময় কিছু শর্ত প্রযোজ্য হয়। টিয়ার-১-এর ক্ষেত্রে অবসর গ্রহণের আগে শুধুমাত্র আংশিক পরিমাণ টাকা তোলা যেতে পারে। এর অর্থ হল লগ্নিকারী শুধুমাত্র কিছু পরিমাণ টাকাই তুলতে পারবেন।

First published:

Tags: NPS, Pension

পরবর্তী খবর