corona virus btn
corona virus btn
Loading

রেকর্ড সৃষ্টি করল রিলায়েন্স-এর রাইটস ইস্যু, শেয়ার হোল্ডারদের ধন্যবাদ জানালেন মুকেশ অম্বানী

রেকর্ড সৃষ্টি করল রিলায়েন্স-এর রাইটস ইস্যু, শেয়ার হোল্ডারদের ধন্যবাদ জানালেন মুকেশ অম্বানী
রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড-এর চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মুকেশ অম্বানী৷

রাইটস ইস্যু-তে বিনিয়োগের পরিমাণ রেকর্ড সৃষ্টি করলেও পুরো প্রক্রিয়াটিই ডিজিটাল মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে৷

  • Share this:

#মুম্বই: ৫৩,১২৪.২০ কোটি টাকার রাইটস ইস্যু প্রক্রিয়া সফল ভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানাল রিলায়েন্স৷ প্রায় ১.৫৯ গুন সাবস্ক্রিপশন হয়েছে রিলায়েন্স রাইটস ইস্যু-র৷ সম্মিলিত ভাবে বিনিয়োগের পরিমাণ ৮৪ হাজার কোটি টাকা৷ রাইটস ইস্যু- শুরু করার পর থেকেই বিনিয়োগকারীদের থেকে বিপুল সাড়া পাওয়া গিয়েছিল৷ ছোট বিনিয়োগকারী থেকে বড় বড় প্রতিষ্ঠান, দেশ- বিদেশ থেকে সবাই বিনিয়োগে আগ্রহ দেখিয়েছেন৷ রাইটস ইস্যু-তে পাবলিক অংশীদারিত্বের সাবস্ক্রিপশন ছিল ১.২২ গুন৷

আগামী ১০ জুন নাগাদ ইক্যুইটি শেয়ার বণ্টন করা হবে৷ রাইটস শেয়ারগুলি বিএসই এবং এনএসই-কে ১২ জুন পৃথক ISIN-এর অধীনে তালিকাভুক্ত করা হবে৷

বিনিয়োগকারীদের রাইটস ইস্যু সম্পর্কে অবহিত করতে বিভিন্ন মাধ্যমে অভিনব প্রচার কৌশল অবলম্বন করেছিল সংস্থা৷ টেলিভিশন, রেডিও, সংবাদপত্র, ডিজিটাল এবং সামাজিক মাধ্যম এবং এই প্রথমবার AI বেসড চ্যাটবট, ই মেল এবং এসএমএস পাঠিয়ে শেয়ার হোল্ডারদের অবহিত করা হয়েছিল৷

সবথেকে বড় কথা, রাইটস ইস্যু-তে বিনিয়োগের পরিমাণ রেকর্ড সৃষ্টি করলেও পুরো প্রক্রিয়াটিই ডিজিটাল মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে৷ কোভিড ১৯-এর কারণে জারি হওয়া লকডাউন চললেও কোনও বাধা সৃষ্টি হয়নি৷ ভারত এবং বিশ্ব বাজারে যা নয়া রেকর্ড৷ ভারতর প্রায় ৮০০ শহর এবং বিদেশের বড় বড় অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান গুলির নিয়ন্ত্রক, ব্যাঙ্কার, আর্থিক সংস্থা, খুচরো বিনিয়োগকারী এবং অন্যান্যরা বাড়ি বা অফিসে বসেই মসৃণভাবে গোটা প্রক্রিয়া সারতে পেরেছেন৷ একদিকে যেমন এর মাধ্যমে ডিজিটাল যুগের শক্তি বোঝা যায়, সেরকমই ভারত যে এই ক্ষেত্রে পথীকৃত এবং উদ্ভাবনী শক্তি বের করতে পারে, তাও প্রমাণিত হয়েছে৷

এই সাফল্যের বিষয়ে বলতে গিয়ে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড-এর চেয়ারম্যান এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর মুকেশ অম্বানী বলেন, 'আমাদের প্রিয় এবং সম্মানীয় শেয়ার হোল্ডারদের রাইটস ইস্যু প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করার জন্য এবং একে এতটা সফল করে ভারতের মূলধনী বাজারে নজির সৃষ্টি করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই৷ রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড-এর প্রতিষ্ঠাতা ধীরুভাই অম্বানীর সময় থেকেই শেয়ার হোল্ডাররাই আমাদের সবথেকে বড় শক্তি৷ দশকের পর দশক ধরে বিশ্বাসের উপর গড়ে ওঠা এই সম্পর্ক আমাদের নতুন শিখরে পৌঁছতে উৎসাহিত করেছে৷ রিলায়েন্স-এর উপরে ভরসা রাখার জন্য আমরা উচ্ছ্বসিত এবং কৃতজ্ঞ৷ আমাদের বরাবরের লক্ষ্য, ডিজিটাল প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ভারতের সার্বিক এবং দ্রুত গতিতে উন্নতি, যার ফলে দেশের ১৩০ কোটি মানুষের জীবনেও উন্নতি ঘটে৷ রাইটস ইস্যুতে বিপুল সাড়া এটাই প্রমাণ করেছে যে আমাদের শেয়ার হোল্ডাররাও আমাদের এই দৃষ্টিভঙ্গিকেই সমর্থন করেন৷ তাঁদের সমর্থন নতুন ভারতের জন্য নতুন রিলায়েন্স তৈরির আমাদের অঙ্গীকারকে আরও সুদৃঢ় করবে৷'

মুকেশ অম্বানী আরও বলেন, 'কোভিড ১৯ মহামারির মধ্যেই রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড-এর রাইটস ইস্যু-র এই সাফল্য দেশ- বিদেশের বিনিয়োগকারী এবং ছোট খুচরো শেয়ার হোল্ডারদের ভারতীয় অর্থনীতির স্বকীয় শক্তির উপর আস্থারই পরিচয়৷ আমি নিশ্চিত, ভারতীয় অর্থনীতি খুব আগামী দিনে আবার উচ্চ হারে বৃদ্ধির পথে ফিরবে এবং ভারতকে গোটা বিশ্বের অগ্রণী ডিজিটাল দেশ হিসেবে উন্নীত করবে৷'

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড বেসরকারি ক্ষেত্রে ভারতের বৃহত্তম সংস্থা৷ যার বাৎসরিক সম্মিলিত লেনদেনের পরিমাণ ৬৫৯,২০৫ কোটি টাকা৷ নগদ মুনাফার পরিমাণ ৭১,৪৪৬ কোটি টাকা এবং ৩১ মার্চ ২০২০-তে শেষ হওয়া আর্থিক বছরে মোট লাভের পরিমাণ ৩৯,৮৮০ কোটি টাকা৷

RIL-এর সুবৃহৎ কর্মকাণ্ড হাইড্রোকার্বন উত্তোলন থেকে উৎপাদন, পেট্রোলিয়াম পরিশোধন এবং মার্কেটিং, পেট্রোকেমিক্যালস, রিটেল এবং ডিজিটাল ক্ষেত্রে বিস্তৃত রয়েছে৷ বিশ্বের সর্ববৃহৎ পাঁচশোটি প্রতিষ্ঠানের যে তালিকা Fortune তৈরি করেছে, তাতে শীর্ষ ভারতীয় সংস্থা হিসেবে স্থান পেয়েছে RIL৷ রাজস্ব এবং মুনাফা উভয় মানদণ্ডেই সেই তালিকায় ১০৬ নম্বর স্থানে রয়েছে RIL৷ ২০১৯ সালের Forbes Global 2000 ক্রমতালিকায় ভারতীয় সংস্থাগুলির মধ্যে শীর্ষে থেকে ৭১তম স্থানে রয়েছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড৷ ২০১৯ সালের সেরা কর্মস্থল হিসেবে ভারতীয় সংস্থাগুলির মধ্যে LinkedIn-এর বিচারে ১০ নম্বর স্থানে রয়েছে RIL৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: June 3, 2020, 10:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर