• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • Bank Return Scheme: ভাল রিটার্ন চাইছেন? এই ৩ স্কিমে বিনিয়োগ করুন, সুদের পরিমান সবচেয়ে বেশি

Bank Return Scheme: ভাল রিটার্ন চাইছেন? এই ৩ স্কিমে বিনিয়োগ করুন, সুদের পরিমান সবচেয়ে বেশি

তিনটি স্কিমে নজর দেওয়া যেতে পারে। আসুন বিশদে জেনে নেওয়া যাক!

তিনটি স্কিমে নজর দেওয়া যেতে পারে। আসুন বিশদে জেনে নেওয়া যাক!

তিনটি স্কিমে নজর দেওয়া যেতে পারে। আসুন বিশদে জেনে নেওয়া যাক!

  • Share this:

#কলকাতাঃ প্রায়শই ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে নানা ধরনের স্কিমে বিনিয়োগ করেন মানুষজন। একাধিক ইনভেস্টমেন্ট স্কিম নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু করেন। কোথাও অবসর পরবর্তী জীবনের নিশ্চয়তা, কোথাও আবার ছেলে-মেয়ের ভবিষ্যৎ- নানা কারণে বিনিয়োগে হাত পাকাতে হয়। কিন্তু সব বিনিয়োগেই ভাল রিটার্ন পাওয়া যায় না। সুদের হার খুব একটা বেশি হয় না। তাছাড়া একাধিক ঝুঁকিও থাকে। এক্ষেত্রে এই তিনটি স্কিমে নজর দেওয়া যেতে পারে। আসুন বিশদে জেনে নেওয়া যাক...

*সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্ট (Sukanya Samriddhi Account)

বর্তমানে সব চেয়ে বেশি অর্থাৎ ৭.৬ শতাংশ করে সুদ পাওয়া যাচ্ছে সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্টে। SSA-তে সুদের হার নির্ধারণ করে সরকার। প্রতি কোয়ার্টারে এই সুদের হারের পরিবর্তনও হতে পারে। এ ক্ষেত্রে একটি অর্থবর্ষে এই সুকন্যা সমৃদ্ধিতে ন্যূনতম বিনিয়োগের পরিমাণ ২৫০ টাকা ও সর্বোচ্চ বিনিয়োগের পরিমাণ ১.৫ লক্ষ টাকা। তবে কিছু শর্তাবলী রয়েছে। যদি অভিভাবকরা একটি অর্থবর্ষের মধ্যে ন্যূনতম অর্থ বিনিয়োগ না করেন, তাহলে সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্টকে ডিফল্ট অ্যাকাউন্ট হিসেবে ধরে নেবে পোস্ট অফিস। তবে এই ডিফল্ট অ্যাকাউন্টকে পুনরুদ্ধার করা যেতে পারে। এক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট খোলার পর থেকে ১৫ বছর পূর্ণ হওয়ার আগে পর্যন্ত যে কোনও সময়ে আবার ন্যূনতম ২৫০ টাকা করে এবং প্রতিটি ডিফল্ট ইয়ারের জন্য অতিরিক্ত ৫০ টাকা করে জমা দিতে হবে। ১০ বছরের নিচে যে কোনও শিশু কন্যার অভিভাবকই SSA অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। এক্ষেত্রে একই পরিবারের সর্বোচ্চ দুই শিশুকন্যার জন্য SSA খোলা যাবে। তবে যমজ সন্তানের ক্ষেত্রে দু'টির বেশি অ্যাকাউন্ট খোলা যেতে পারে। টাকা তোলার বিষয়েও নজর দিতে হবে বিনিয়োগকারীদের। মাথায় রাখতে হবে, কন্যা ১৮ বছর হওয়ার পর বা দশম শ্রেণীর পরীক্ষা পাশ করার পরই তোলা যাবে টাকা। অ্যাকাউন্ট খোলার দিন থেকে ২১ বছর পর্যন্ত বা মেয়ের বিয়ের সময় ম্যাচিওর হতে পারে এই SSA অ্যাকাউন্ট।

*সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম (Senior Citizens Savings Scheme)

বয়স্কদের মধ্যে যাঁরা একটি ভাল স্কিম ও রিটার্নের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন, তাঁদের জন্য সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম যথাযথ। তবে বিনিয়োগের জন্য একটি নির্দিষ্ট সময়সীমা রয়েছে। যদি কেউ আগেই চাকরি থেকে অবসর নিয়ে নেন, তাহলে তাদের ক্ষেত্রে বয়সের সীমা ৫৫ বছর। বিশেষ ক্ষেত্রে অর্থাৎ কোনও সেনা জওয়ান বা প্রতিরক্ষা দফতরে কর্মরত ব্যক্তির ক্ষেত্রে ন্যূনতম বয়সের সীমা ৫০ বছর। এই স্কিমের অধীনে ন্যূনতম ১০০০ টাকা বিনিয়োগ করা যেতে পারে। এর পর ১০০০ টাকার গুণিতকে সর্বোচ্চ বিনিয়োগ করা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বিনিয়োগের পরিমাণ হবে ১৫ লক্ষ। বর্তমানে রিটার্ন রেট ৭.৪ শতাংশ। প্রতি ত্রৈমাসিকে স্কিমের সুদের হার সংশোধিত হতে পারে। এর ম্যাচিওরিটি পিরিয়ড ৫ বছর। যা শর্তসাপেক্ষে আরও তিন বছর বাড়ানো যায়।

*পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (Public Provident Fund)

আর একটি নির্ভরযোগ্য স্কিম হল পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড। PPF-এ অর্থ বিনিয়োগ করতে হলে প্রথমেই ন্যূনতম একটি ৫০০ টাকার অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। স্কিমের ম্যাচিওরিটি পিরিয়ড প্রায় ১৫ বছর। যা শর্তসাপেক্ষে ৫ বছর পর্যন্ত বাড়ানো যায়। PPF-এ বার্ষিক বিনিয়োগের পরিমাণ দেড় লক্ষ। বর্তমানে বার্ষিক ৭.১ শতাংশ রিটার্ন পাওয়া যায়। এ ক্ষেত্রে প্রতি বছর ৩১ মার্চ অ্যাকাউন্টে যুক্ত হয় সংশ্লিষ্ট সুদের টাকা। মাঝে মাঝেই স্কিমের বার্ষিক সুদের হারেও সংশোধন আনা হয়। রয়েছে ট্যাক্স বেনিফিট।

Published by:Shubhagata Dey
First published: