Home /News /business /
PPF: সন্তানের নামেও খোলা যায় পিপিএফ অ্যাকাউন্ট, জেনে নিন তার নিয়মাবলী!

PPF: সন্তানের নামেও খোলা যায় পিপিএফ অ্যাকাউন্ট, জেনে নিন তার নিয়মাবলী!

দারুণ চমক

দারুণ চমক

PPF: এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড অর্গানাইজেশন (EPFO)-এর নিয়ম অনুসারে, এক জন ব্যক্তি নিজের নামে একটির বেশি পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন না।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় সঞ্চয় প্রকল্প হল পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড বা পিপিএফ (PPF)। এই প্রকল্প জনপ্রিয় হওয়ার মূল কারণ হল - এটি অত্যন্ত নিরাপদ এবং এর থেকে ভালো রিটার্ন পাওয়া যায়। এছাড়া এটি একটি আকর্ষণীয় হারে সুদও দিয়ে থাকে। বর্তমানে পিপিএফ-এর বার্ষিক সুদের হার ৭.১ শতাংশ। এই সমস্ত কারণের জন্যই প্রচুর মানুষ বিনিয়োগের জন্য পিপিএফ-কেই বেছে নেন।

এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড অর্গানাইজেশন (EPFO)-এর নিয়ম অনুসারে, এক জন ব্যক্তি নিজের নামে একটির বেশি পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন না। কিন্তু EPFO-র নিয়ম অনুযায়ী, ​​সেই ব্যক্তি নিজের নাবালক সন্তানের নামে পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। কিন্তু এক জন অভিভাবক শুধুমাত্র নিজের নাবালক সন্তানের নামে একটিই পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। কারওর যদি দুটি সন্তান থাকে, তবে একজন নাবালক সন্তানের নামে পিপিএফ অ্যাকাউন্ট তার মা এবং অন্য সন্তানের নামে পিপিএফ অ্যাকাউন্ট তার বাবা খুলতে পারবেন।

আরও পড়ুন: সর্বনাশ! খোলা হচ্ছিল পদ্মা সেতুর নাটবল্টু, কে এই ব্যক্তি? কী ছিল উদ্দেশ্য? আঁতকে উঠবেন

আরও পড়ুন: আসানসোলে প্রথম বার 'দিদি'র সঙ্গে একমঞ্চে, মনের কথা বলেই দিলেন বাবুল সুপ্রিয়!

৫০০ টাকা দিয়ে শুরু করা যেতে পারে বিনিয়োগ: একজন নাবালকের পিপিএফ অ্যাকাউন্টে এক বছরে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১.৫ লক্ষ টাকা জমা করা যেতে পারে। কিন্তু সন্তানের সঙ্গে যদি বাবা-মায়েরও নিজস্ব পিপিএফ অ্যাকাউন্ট থাকে, তবে তাঁদের নিজেদের এবং সন্তানের পিপিএফ অ্যাকাউন্ট মিলিয়ে সর্বোচ্চ বিনিয়োগ সীমা হবে বার্ষিক ১.৫ লক্ষ টাকা।

কর ছাড়: পিপিএফ অ্যাকাউন্টে বিনিয়োগ করার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল- এতে সম্পূর্ণ রূপে কর ছাড় পাওয়া যায়। পিপিএফ অ্যাকাউন্টে বিনিয়োগ করা টাকা, বিনিয়োগ থেকে প্রাপ্ত সুদ এবং বিনিয়োগের মোট মূল্যের উপর কোনও রকম কর দিতে হয় না। প্রতি তিন মাসে পিপিএফ-এর সুদের হার পরিবর্তিত হয়। পিপিএফ অ্যাকাউন্টের একটি বৈশিষ্ট্য হল যে, কোনও আদালত বা আদেশের কারণে লোন বা অন্যান্য আর্থিক দায়ের সময় পিপিএফ অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা যাবে না।

সন্তান সাবালক হলে সে নিজেই পরিচালনা করতে পারবে পিপিএফ অ্যাকাউন্ট: নাবালক সন্তানের বয়স ১৮ বছর হলে অর্থাৎ সন্তান সাবালক হলে তার অ্যাকাউন্টের স্থিতি পরিবর্তন করার জন্য একটি আবেদন জমা দিতে হয়। এর পর থেকে গ্রাহকের প্রাপ্তবয়স্ক সন্তান নিজেই নিজের অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করতে পারবেন।

১৫ বছরের মেয়াদ: পিপিএফ অ্যাকাউন্টের মেয়াদ সাধারণত ১৫ বছরের হয়। তার পরে এই অ্যাকাউন্ট থেকে সমস্ত টাকা তুলে নেওয়া যেতে পারে। তবে কেউ টাকা তুলতে না-চাইলে সেই মেয়াদ আরও ৫ বছরের জন্যও বাড়ানো যায়। পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খুলতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: সন্তানের নামে পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য কিছু নথিপত্রের প্রয়োজন হয়। তার মধ্যে অন্যতম হল সন্তানের বয়সের প্রমাণপত্র (আধার কিংবা জন্ম শংসাপত্র), সন্তানের ছবি, অভিভাবকের কেওয়াইসি (KYC) নথি এবং প্রাথমিক বিনিয়োগের জন্য একটি ব্যাঙ্ক চেক।

First published:

Tags: Investment, PPF

পরবর্তী খবর