সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানুক সরকার, টেলিকম মন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে জানালো রিলায়েন্স জিও

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানুক সরকার, টেলিকম মন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে জানালো রিলায়েন্স জিও
Photo Collected

গত সপ্তাহেই সু্প্রিম কোর্ট department of telecom (DoT) কে জিও, এয়ারটেল ভোডাফোন-আইডিয়া সহ দেশের আটটি টেলিকম সংস্থার থেকে বকেয়া ৯২ হাজার কোটি টাকা আদায়ের নির্দেশ দিয়েছে ৷

  • Share this:

#মুম্বই: আর্থিক সাহায্য ছাড়া বকেয়া মেটানোর কথা জানিয়ে টেলিকম মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদকে চিঠি দিল রিলায়েন্স জিও৷ এর আগে COAI-কে চিঠি দিয়ে একই কথা জানিয়েছিল মুকেশ আম্বানির সংস্থা৷ তাদের দাবি যে বেলআউটের মাধ্যমে বেশ কয়েকটি টেলিকম সংস্থাকে সাহায্য করার চেষ্টা করছে COAI৷ যার বিশেষ প্রয়োজন নেই বলেই জানিয়েছে জিও৷ কারণ এর মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে মান্য করা হচ্ছে না৷ সরকারের উচিৎ শীর্ষ আদালতের নির্দেশ মেনে চলার৷ এই মর্মেই টেলিকম মন্ত্রীকে চিঠি পাঠিয়েছে জিও৷

গত সপ্তাহেই সু্প্রিম কোর্ট department of telecom (DoT) কে জিও, এয়ারটেল ভোডাফোন-আইডিয়া সহ দেশের আটটি টেলিকম সংস্থার থেকে বকেয়া ৯২ হাজার কোটি টাকা আদায়ের নির্দেশ দিয়েছে ৷ শীর্ষ আদালতের সেই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতেই টেলিকম সংস্থার বর্তমান বিপদ ও ক্ষতির খতিয়ান নিয়ে Department of Telecom-কে চিঠি লিখেছে COAI ৷ জিও-এর মতে শীর্ষ আদালতের নির্দেশ নিয়ে প্রশ্ন না তুলে COAI এর মতো সংস্থার নিজের সদস্যদের এই নির্দেশ মেনে নেওয়ার কথা বোঝানো উচিত ৷ জিও-এর দাবী অনুযায়ী, সু্প্রিম কোর্টের আদেশের ভিত্তিতে যে ৯২ হাজার কোটি টাকা বকেয়া মেটাতে হবে টেলিকম সংস্থাগুলিকে, তা সহজেই কোম্পানির সম্পত্তি বিক্রি করে এবং ইকুইটি থেকেই মেটানো সম্ভব তার জন্য কোনও বেল আউট (Bailout Package) দরকার নেই ৷

বুধবারই Cellular Operators Association of India-এর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেয় জিও ৷ ভারতীয় টেলিকমের সবথেকে বড় কোম্পানি জিও-এর তোপের মুখে COAI ৷ তাদের মতামতকে কোনও গুরুত্বই দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ জিও-এর ৷ Department of Telecom-কে Cellular Operators Association of India চিঠির কড়া ভাষায় সমালোচনা করলেন মুকেশ অম্বানির সংস্থা ৷

টেলিকম মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদকে লেখা চিঠিতে COAI জানিয়েছে টেলিকম শিল্পে কোনওরকম সমস্যা না সঙ্কট নেই ৷ এরই তীব্র প্রতিবাদ করেছে জিও ৷ একইসঙ্গে Reliance Jio COAI-এর উপর দুই টেলিকম সংস্থার প্রতি পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনেছে ৷ কোম্পানির তরফে লেখা চিঠিতে জিও-এর তোপ, এমন ব্যবহারই প্রমাণ করেছে যে কোনও ইন্ড্রাস্টি অর্গানাইজেশন নয়, বরং এই দুই টেলিকম কোম্পানিরই মুখপাত্র হয়ে কাজ করছে COAI ৷

জিও প্রশ্ন তুলেছে কিভাবে দুই টেলিকম কোম্পানির অর্থনৈতিক সঙ্কট গোটা টেলিকম সেক্টরের বিপদ বলে ব্যাখা করা যেতে পারে ৷ উল্লেখ্য, Department of Telecom-কে লেখা COAI এর চিঠিতে যেসব সমস্যার কথা বলা হয়েছে, সে সবকটিই অস্বীকার করেছে জিও ৷ একইসঙ্গে COAI-এ উপর সরকারকে ভুল তথ্য দেওয়ার মতো গুরুতর অভিযোগ এনেছে ৷

First published: 02:08:06 PM Nov 03, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर