Home /News /business /

Investment Plan: ব্যাঙ্কের এই ডিপোজিট স্কিমে পাওয়া যাবে সবচেয়ে বেশি সুদ! জানুন বিস্তারিত!

Investment Plan: ব্যাঙ্কের এই ডিপোজিট স্কিমে পাওয়া যাবে সবচেয়ে বেশি সুদ! জানুন বিস্তারিত!

ব্যাঙ্কের বিনিয়োগের বিষয়ে জানুন

ব্যাঙ্কের বিনিয়োগের বিষয়ে জানুন

Investment Plan: এটি এমন একটি বিকল্প যেখানে অর্থ লগ্নি করে সবচেয়ে বেশি রিটার্ন পাওয়া যায় কারণ সুদের হার সবচেয়ে বেশি হয়।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ব্যাঙ্ক ডিপোজিটের (Bank Deposits) বিষয়ে প্রায় সকলেই অবগত। এর অর্থ হল ব্যাঙ্কে একটি অ্যাকাউন্ট খুলে সেখানে টাকা জমা রাখা যার ওপর কিছু পরিমাণ সুদও পাওয়া যায়। অনেকে ব্যাঙ্ক ডিপোজিটকে বিনিয়োগ হিসেবেও গণনা করে। যদিও, বেশিরভাগ মানুষের জানা নেই যে ব্যাঙ্কে বিভিন্ন উপায়ে টাকা রাখা যায় যেখান থেকে তুলনামূলক বেশি পরিমান রিটার্ন পাওয়া যেতে পারে। রেকারিং ডিপোজিট (Recurring Deposits) হল তার মধ্যে অন্যতম। এটি এমন একটি বিকল্প যেখানে অর্থ লগ্নি করে সবচেয়ে বেশি রিটার্ন পাওয়া যায় কারণ সুদের হার সবচেয়ে বেশি হয়।

আরও পড়ুন: মেয়ের বিয়ের আর চিন্তা করতে হবে না, এই স্কিমে বিনিয়োগ করলে পাওয়া যাবে ১০ লাখ টাকা থেকে ৬৫ লাখ টাকা!

রেকারিং ডিপোজিট (RD) সাধারণ ডিপোজিটের থেকে একটু ভিন্ন। যে সমস্ত বিনিয়োগকারীরা কম সময়ের জন্য ব্যাঙ্কে টাকা জমা রাখতে চান সাধারণত তাঁরাই রেকারিং ডিপোজিট বেছে নেন। রেকারিং ডিপোজিট ফিক্সড ডিপোজিটের মতোই নিরাপদ। লগ্নিকারিরা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত জন্য প্রতি মাসে নির্ধারিত পরিমাণ টাকা জমা দিতে থাকে। স্কিমের মেয়াদ শেষে গ্রাহক সুদসহ মূল পুঁজি ফেরত পেয়ে যায়। রেকারিং ডিপোজিট একটি স্বল্পমেয়াদী বিকল্প এবং এতে সুদের হার সবচেয়ে বেশি হয়।

রেকারিং ডিপোজিটের বৈশিষ্ট্য কী?

রেকারিং ডিপোজিটের অন্যতম মুখ্য বৈশিষ্ট্য হল বিনিয়োগকারী কম পরিমাণ টাকা দিয়েও (Recurring Deposits) অ্যাকাউন্ট শুরু করতে পারে। পছন্দ এবং প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী ১ মাস, ৩ মাস বা ৬ মাসের স্কিম বেছে নেওয়া যেতে পারে। রেকারিং ডিপোজিটের মাধ্যমে ভবিষ্যতের জন্য পুঁজি জমা করা যেতে পারে।

আরও পড়ুন: মোদি সরকারের বড় সিদ্ধান্ত, ২০২৪ অবধি চালু থাকবে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা গ্রামীণ প্রকল্প!

রেকারিং ডিপোজিটে প্রতি মাসে টাকা জমা দিতে হয় সেক্ষেত্রে এটি গ্রাহককে নিয়মিত সঞ্চয় করার জন্য উৎসাহিত করে। এই প্রকল্পগুলিতে বিনিয়োগ গ্রাহকদের অর্থনৈতিক সচলতাকে ট্র্যাকে রাখতে সাহায্য করে। একটি রেকারিং ডিপোজিটে স্কিমের ধরন অনুযায়ী প্রতি মাসে কিস্তিতে টাকা প্রদান করতে হয়, ফলে পরিশোধের ওই পরিমাণ টাকা প্রত্যেক মাসের শুরুতেই আলাদা করে রাখতে হয়। ফলস্বরূপ, অপ্রয়োজনীয় খরচ নিজে থেকেই অনেক কমে যায় এবং সঞ্চয়ের অনুপ্রেরণা জাগে।

১০ বছরের বেশি বয়সী যে কোনও ব্যক্তি ব্যাঙ্কে রেকারিং ডিপোজিট স্কিম চালু করতে পারে। শর্ত হল ওই ব্যাঙ্কে আগে থেকে গ্রাহকের নামে একটি অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। যদিও, একাধিক ব্যাঙ্ক বাবা-মা বা আইনি অভিভাবকের যৌথ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে যুবকদের রেকারিং ডিপোজিট স্কিমে বিনিয়োগের পরিষেবা প্রদান করে। এছাড়া, একই ভাবে নাবালকদের নামেও এই প্রকল্পে লগ্নির সুবিধা প্রদান করা হয়।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Recurring Deposit, Savings Account

পরবর্তী খবর