Home /News /business /
Mutual Funds: অনেক মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করে ফেলেছেন? বছরের পয়লা থেকেই বেছেবুছে কমানোর পদ্ধতি জানুন

Mutual Funds: অনেক মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করে ফেলেছেন? বছরের পয়লা থেকেই বেছেবুছে কমানোর পদ্ধতি জানুন

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

অনেক সময় একসঙ্গে অনেকগুলি মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করে ফেলেন বিনিয়োগকারীরা। পরে সংশয়ে ভোগেন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ব্যাঙ্ক হোক বা পোস্ট অফিস, যে কোনও স্থায়ী সঞ্চয় প্রকল্পেই সুদের হার তলানিতে এসে ঠেকেছে। অন্য দিকে আবার শেয়ার বাজারে ভাল রিটার্নের সম্ভাবনা থাকলেও ঝুঁকি রয়েছে প্রবল। অথচ পরিকল্পনা রয়েছে ভবিষ্যতের জন্য বেশ বড় তহবিল গড়ার। এই অবস্থায় মিউচুয়াল ফান্ডেই ভরসা রাখছেন বিনিয়োগকারীরা।

তবে অনেক সময় একসঙ্গে অনেকগুলি মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করে ফেলেন বিনিয়োগকারীরা। পরে সংশয়ে ভোগেন। মনে হয় একটা ফান্ড অন্য ফান্ডকে ওভারল্যাপ করছে। এমনই সমস্যায় পড়েছেন শিবম শর্মা। তিনি জানিয়েছেন, ‘আমার ৩২ বছর বয়স। এসআইপি এবং অন্যান্য মিউচুয়াল ফান্ডের মাধ্যমে প্রতি মাসে ২২০০০ টাকা বিনিয়োগ করি। পাশাপাশি এনপিএস-এ ২০০০ টাকা মাসিক কিস্তি দিতে হয়। দীর্ঘ মেয়াদে বিনিয়োগ পরিকল্পনা রয়েছে। মাঝারি ঝুঁকি নিতে পছন্দ করি’।

পাশাপাশি বিনিয়োগ করা মিউচুয়াল ফান্ডগুলির বিবরণও দিয়েছেন শিবম। তিনি জানিয়েছেন, ‘অ্যাক্সিস ব্লু চিপ ফান্ডে গত ১ বছর ধরে মাসিক ৬ হাজার টাকা, অ্যাক্সিস মিড ক্যাপ ফান্ডে বিগত ২ মাস ধরে মাসিক ২০০০ টাকা, অ্যাক্সিস স্মল ক্যাপ ফান্ডে গত দু’মাস ধরে মাসিক ১০০০ টাকা, মিরা অ্যাসেট ট্যাক্স সেভার ফান্ডে গত ৫ মাস ধরে মাসিক ২০০০ টাকা, টাটা ডিজিটাল ইন্ডিয়া ফান্ডে দুমাস ধরে মাসিক ২০০০ টাকা, টাটা ব্যালেন্স অ্যাডভান্টেজ ফান্ডে এই মাস থেকে ২০০০ টাকা, পরাগ পারিখ ফ্লেক্সি ফান্ডে ৩মাস ধরে মাসিক ৩০০০ টাকা, এসবিআই কন্ট্রা ফান্ডে দু’মাস ধরে মাসিক ২০০০ টাকা, মহিন্দ্রা ম্যানুলাইফ ব্যালান্সড অ্যাডভান্টেজ ফান্ডে দু’মাস ধরে মাসে ১০০০ টাকা এবং মতিলাল অসওয়াল ন্যাসডাক ১০০ এফওএফ-এ দুমাস ধরে মাসে ১০০০ টাকা বিনিয়োগ করছি’।

আরও পড়ুন - মোদি সরকারের কর্মীদের জন্য বড় খবর! DA সংক্রান্ত বিষয়ে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের বিশাল ঘোষণা!

শিবমের প্রশ্ন, ‘আমার মনে হচ্ছে, একসঙ্গে অনেক বেশি ফান্ডে বিনিয়োগ করে ফেলেছি। একটা ফান্ড অন্য ফান্ডকে ওভারল্যাপ করছে। তাই কীভাবে পোর্টফোলিও সংশোধন করা উচিত সেই বিষয়ে পরামর্শ চাইছি। কোন ফান্ডগুলোতে বিনিয়োগ চালিয়ে যাব, কোনগুলি সরিয়ে দেব এবং কোন ফান্ডে কত বিনিয়োগ করব সেই বিষয়ে জানান’।

এই প্রশ্নের উত্তরে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ’১০টি স্কিমে মাসে ২২০০০ টাকা বিনিয়োগ করছেন। পছন্দের প্রতিটা বিভাগ থেকে ভালো ফান্ডগুলিকেই বেছে নিয়েছেন বলে মনে হচ্ছে। তবে আমরা বারবার বলি, খুব বেশি স্কিমে অল্প বিনিয়োগ করে বৈচিত্রের সুবিধা বা সর্বাধিক রিটার্ন, কোনওটাই ভালো পাওয়া যায় না। তবে পোর্টফোলিও গুছিয়ে নেওয়ার একটা সুযোগ রয়েছে। বিনিয়োগকারী কতটা ঝুঁকি নিতে পারবেন এবং তাঁর বিনিয়োগের উদ্দেশ্য বা লক্ষ্য কী, এই দুটোর উপর ভিত্তি করেই স্কিম বেছে নেওয়া উচিত। আপনি দীর্ঘ মেয়াদে বিনিয়োগ করেছেন এবং মাঝারি ঝুঁকি নিতে পছন্দ করেন। এক্ষেত্রে একটি বা দুটি ভালো ফ্লেক্সি ক্যাপে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারেন। এই স্কিমগুলো বাজার মূলধন এবং সেক্টর জুড়ে বিনিয়োগ করে। ফলে ভালো বৈচিত্র দেবে’।

আরও পড়ুন - Modi সরকারের বড় Scheme! ঘরে সন্তানের জন্মতে সরকারি প্রকল্পে টাকা পান

একই সঙ্গে বিশেষজ্ঞরা আরও বলছেন, ‘৮০সি ধারায় আয়কর ছাড় পেতে চাইলে মিরা অ্যাসেট ট্যাক্স সেভার ফান্ডে বিনিয়োগ চালিয়ে যাওয়া উচিত। তবে মিউচুয়াল ফান্ডের মূল বিষয়গুলি বুঝতে না পারলে নির্ভরযোগ্য মিউচুয়াল ফান্ড উপদেষ্টার সাহায্য নিতে হবে। টাকা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করাই ভালো। নিজে বিনিয়োগ পরিচালনা করার আগে জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে’।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Investment, Mutual Fund

পরবর্তী খবর