• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • বড় সিদ্ধান্ত: খালাসি সিস্টেম শেষ করতে চলেছে রেল, আর হবে না নতুন নিয়োগ

বড় সিদ্ধান্ত: খালাসি সিস্টেম শেষ করতে চলেছে রেল, আর হবে না নতুন নিয়োগ

রেলের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ১৪ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ঝুপড়ি খালি করে দেওয়ার জন্য সময় দেওয়া হয়েছে বাসিন্দাদের৷ তার পরে জায়গা ফাঁকা না করলে রেলের তরফে ওই ঝুপড়িবাসীদের তুলে দেওয়া হবে৷

রেলের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ১৪ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ঝুপড়ি খালি করে দেওয়ার জন্য সময় দেওয়া হয়েছে বাসিন্দাদের৷ তার পরে জায়গা ফাঁকা না করলে রেলের তরফে ওই ঝুপড়িবাসীদের তুলে দেওয়া হবে৷

রেল বোর্ড টেলিফোন অ্যাটেন্ডেন্ট কাম ডাক খালাসি (Telephone attendant-cum-dak khalasis -TADKs) পদ নিয়েও সমীক্ষা করেছে ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ব্রিটিশ রাজের সময় থেকে চলে আসা খালাসি সিস্টেম (Telephone attendant-cum-dak khalasis -TADKs) বন্ধ করতে চলেছে ভারতীয় রেল ৷ পাশাপাশি বাংলো পিওন (Railway Ban glow Peon) নিয়োগও আর করা হবে না ৷ সংবাদসংস্থা পিটিআই-এর খবর অনুযায়ী, বাংলো পিওনরা রেলওয়ে আধিকারিকদের বাড়িতে কাজ করে থাকেন ৷ এই পোস্টে নতুন নিয়োগ এবার বন্ধ করল রেল ৷

    এই বিষয়ে ৬ অগাস্ট রেলের তরফে নির্দেশ জারি করা হয়েছিল ৷ রেলে এখনও একাধিক ব্যবস্থা রয়েছে যা ব্রিটিশদের সময়ের থেকে চলে আসছে ৷ রেলের বেশিরভাগ আধিকারিক যতদিন চাকরি করেন ততদিন বাংলো পিওনের সুবিধা নিয়ে থাকেন ৷ আধিকারিকরা নিজেদের ইচ্ছে মতো যে কোনও ব্যক্তিকে বাংলো পিওন হিসেবে রেলের চাকরি দিয়ে থাকতেন ৷ দু’তিন বছর সেই আধিকারিকের বাংলোতে তারা কাজ করতেন এবং পরে নিজের পছন্দের জায়গায় পোস্টিং নিয়ে নিতেন ৷ আর আধিকারিকের কাছে এরপর নতুন বাংলো পিওন চলে আসত ৷

    রেল বোর্ডের নতুন নির্দেশ- রেল বোর্ড টেলিফোন অ্যাটেন্ডেন্ট কাম ডাক খালাসি (Telephone attendant-cum-dak khalasis -TADKs) পদ নিয়েও সমীক্ষা করেছে ৷ পিটিআই-এর খবর অনুযায়ী, ডাক খালাসির নিয়োগ রেল বোর্ডের সমীক্ষার অধীনে রয়েছে তাই এখন নতুন নিয়োগ করা হবে না ৷

    রেলে ডাক মেসেঞ্জার হয় ৷ রেলের কলকাতা, মুম্বই, সেকেনদরাবাদ, চেন্নাই, হুবলিতে অবস্থিত কার্যালয় থেকে মেসেঞ্জার নিয়মিত খবর নিয়ে যাওয়া আসে করে ৷ এখন এই সমস্ত কাজ ফোন, ফ্যাক্স বা ই-মেলের মাধ্যমেই করা যেতে পারে ৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও এখনও প্রতি বছর পুরনো এই ব্যবস্থায় প্রায় কোটি কোটি টাকা খরচ করা হয়ে থাকে ৷ সেটাই এবার বন্ধ করা হল {

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: