• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • INDIAN GST SYSTEM IS ONE OF THE MOST COMPLEX TAX SYSTEMS IN THE WORLD SAYS WORLD BANK

জিএসটির গোড়াতেই গলদ, জানাল বিশ্বব্যাঙ্ক

সর্বভারতীয় একটি ইংরেজি দৈনিকের রিপোর্ট অনুসারে, চাহিদার সঙ্গে ফারাক নিয়ে শীঘ্রই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কাউন্সিল ৷ চাকরি ক্ষেত্রে এর ফলে সঙ্কট তৈরি হতে পারে ৷ ভারতীয় অর্থনীতির বৃদ্ধি ২০১৯-এ গত পাঁচ বছরের মধ্যে তলানিতে ৷ জানুয়ারি থেকে মার্চ এই ত্রৈমাসিকে বৃদ্ধির হার ছিল ৫.৮ শতাংশ ৷Representative image

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: আর্থিক ক্ষেত্রে কি বড় বিপর্যয়ের মুখে দাঁড়িয়ে দেশ? বিশ্বব্যাঙ্কের সমীক্ষায় মিলল তেমনই ইঙ্গিত। তড়িঘড়ি জিএসটি চালুর জেরে সাময়িক বিপর্যয় আসতে পারে অর্থনীতিতে। জিএসটির হার ও কর নীতির রূপায়নেও বড় গলদ উঠে এল সমীক্ষায়। যেভাবে জিএসটিতে পাঁচ ধরনের করের হার চালু হয়েছে, তাতেই সমস্যা শুরু বলেও স্পষ্ট বিশ্বব্যাঙ্কের রিপোর্টে।

    জিএসটি ইন ইন্ডিয়া- ‘অ্যান আউটলুক’ শীর্ষক রিপোর্টে মোদি সরকারের দাবি নিয়েই প্রশ্নচিহ্ন তুলে দিয়েছে। সমীক্ষায় উঠে এসেছে, জিএসটি চালুর পর থেকেই কমছে কর সংগ্রহের হার। ব্যবসায়ীদের অগ্রিম কর ফেরত দেওয়ার কাজও চলছে ধীর কদমে। পরিকাঠামো তৈরি না থাকাতেই এই হাল - সমীক্ষায় তাও স্পষ্ট। এমন চললে আর্থিক বৃদ্ধি ধাক্কা খাবে। জিএসটি বাবদ আয়ও কমতে পারে বলেও আশঙ্কা সমীক্ষা রিপোর্টে। বেশ কয়েকটি গলদ রয়েছে বলে দাবি উঠেছে সেই সমীক্ষায়৷

    সমীক্ষাটিতে জানানো হয়েছে, জিএসটিতে পাঁচটি হার হওয়াতেই সমস্যা চরমে৷ এর বদলে এখানে একটি বা দুটির করের হার থাকা উচিত৷ দেশে জিএসটির হার বিশ্বে দ্বিতীয় সবোর্চ্চ৷ তবুও জিএসটির পদ্ধতিগত জটিলতা মেটানো যায়নি৷ উল্টে বিল তৈরি না করে কর ফাঁকি চলছে৷ গোড়াতেই রয়েছে বেশষ খথানিকটা গলদ৷ ধাপে ধাপে জিএসটি চালু করা উচিত ছিল৷ জটিলতায় আটকে রিফাণ্ডের কাজও৷ বড় থেকে ছোট প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার সংস্থাকে নিয়ে সমীক্ষা চালিয়েছিল বিশ্বব্যাঙ্ক।

    First published: