Home /News /business /

Sugar Export : ভারত ২০২১-২২ আর্থিক বর্ষে রফতানি করেছে ৯.৩৯ লাখ টন চিনি

Sugar Export : ভারত ২০২১-২২ আর্থিক বর্ষে রফতানি করেছে ৯.৩৯ লাখ টন চিনি

ভারতে চিনির উৎপাদন অনেকাংশেই বেড়ে গিয়েছে

ভারতে চিনির উৎপাদন অনেকাংশেই বেড়ে গিয়েছে

Sugar Production : চিনির উৎপাদন বেড়ে যাওয়ার জন্য এখনও ভারতে অনেক পরিমাণে চিনি মজুত রয়েছে।

  • Share this:

নয়াদিল্লি: ২০২১-২২ আর্থিক বর্ষে ভারতে রেকর্ড পরিমাণে চিনি রফতানি (sugar export) হয়েছে। এই আর্থিক বর্ষে ভারত প্রায় ৯.৩৯ লাখ টন চিনি রফতানি করেছে। ভারতের চিনি মিল ১ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া আর্থিক বর্ষ ২০২১-২২-এ ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই প্রায় ৯.৩৯ লাখ টন চিনি রফতানি করেছে। অখিল ভারতীয় চিনি ব্যবসায়ী সঙ্ঘ জানিয়েছে যে বিশ্ববাজারে চিনির দাম কিছুটা হলেও কম হয়েছে। এর ফলে ভারতে রেকর্ড পরিমাণে চিনি উৎপন্ন হলেও তা তাড়াহুড়ো করে বিক্রি করার কোনও প্রয়োজন নেই। অখিল ভারতীয় চিনি ব্যবসায়ী সঙ্ঘ এক বয়ানে জানিয়েছে যে, প্রায় ৪.৬৮ লাখ টন চিনি তৈরি হওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে রয়েছে। এছাড়াও চিনি মিলগুলো আর্থিক বর্ষ ২০২১-২২-এ এখনও পর্যন্ত সরকারের সাবসিডি ছাড়া ৩৩ লাখ টন চিনি উৎপাদন করার প্রস্তুতি নিয়েছে। এর ফলে ভারতে চিনির উৎপাদন অনেকাংশেই বেড়ে গিয়েছে। চিনির উৎপাদন বেড়ে যাওয়ার জন্য এখনও ভারতে অনেক পরিমাণে চিনি মজুত রয়েছে।

চিনির আর্থিক বর্ষ অক্টোবর থেকে সেপ্টেম্বর

চিনির আর্থিক বর্ষ শুরু হয় অক্টোবর মাসে এবং সেটি চলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এই বছর চিনির উৎপাদন সরকারের সাবসিডি ছাড়াই করা হচ্ছে। অখিল ভারতীয় চিনি ব্যবসায়ী সঙ্ঘ জানিয়েছে যে ভারতের চিনি মিলগুলো ১ অক্টোবর থেকে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রায় ৯,৩৯,৪৩৫ টন চিনি রফতানি করেছে। অখিল ভারতীয় চিনি ব্যবসায়ী সঙ্ঘ জানিয়েছে যে, ভারতের চিনি মিলগুলো এখন চিনি বিক্রি করার জন্য তাড়াহুড়ো করতে চায় না। কারণ আগের চিনি বিক্রির টাকা এখনও বাকি আছে। এছাড়াও বিশ্ববাজারে চিনির দাম কিছুটা হলেও কম, যা তাদের আকর্ষিত করছে না।

আরও পড়ুন : এলপিজি গ্রাহকদের জন্য সুখবর, জানুন কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন প্রকল্প নিয়ে এক ঝলকে

মহারাষ্ট্রের চিনি মিল দ্বারা সবথেকে বেশি চিনি উৎপন্ন হয়েছে

অখিল ভারতীয় চিনি ব্যবসায়ী সঙ্ঘ জানিয়েছে যে, মহারাষ্ট্রের চিনি মিল দ্বারা সবথেকে অধিক চিনি উৎপন্ন হয়েছে। এখানে ভারতের সবথেকে বেশি চিনি উৎপন্ন হলেও তাদের বিভিন্ন লজিস্টিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে রেল এবং সড়ক পথে পরিবহনে গুরুতর সমস্যা। এর ফলে মহারাষ্ট্রের চিনি মিলের মালিকেরা পড়েছে বিরাট সমস্যায়।

আরও পড়ুন : মোদি সরকারের সাহায্যে শুরু করতে পারেন এই ব্যবসা; হবে ৫০,০০০ টাকার মুনাফা!

আর্থিক বর্ষ ২০২০-২১-এ ভারতে রেকর্ড পরিমাণ চিনি উৎপাদন করা হয়েছিল। যার পরিমাণ ছিল প্রায় ৭২.৩ লাখ টন। এর মধ্যে বেশিরভাগ চিনি উৎপাদন সরকারের সাবসিডির সাহায্যে করা হয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে দেশে যে চিনি উৎপাদন করা হয়েছে তা সরকারের সাবসিডি ছাড়াই করা হয়েছে।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Sugar

পরবর্তী খবর