?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

অফলাইন ও অনলাইনে কীভাবে বানাবেন Ration Card, বেশ কিছু রাজ্য বদলাল নিয়ম

অফলাইন ও অনলাইনে কীভাবে বানাবেন Ration Card, বেশ কিছু রাজ্য বদলাল নিয়ম

রাজ্য সরকার রেশন কার্ড তৈরি করে থাকে ৷ ফলে রেশন কার্ড তৈরির নিয়ম আলাদা আলাদা রাজ্যে আলাদা হয় ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে ৮১ কোটির বেশি রেশন কার্ড হোল্ডারদের বিনামূল্যে রেশন দিয়েছে কেন্দ্র সরকার ৷ মার্চ মাস থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত সুবিধা মিলবে ৷ সরকারি বিভিন্ন যোজনার সুবিধা পাওয়ার জন্য রেশন কার্ড থাকা বেশ জরুরি ৷ পাশাপাশি অন্যান্য ক্ষেত্রে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট হিসেবে দেখা হয়ে থাকে ৷ দেখে নিন কীভাবে রেশন কার্ড বানাবেন ?

ভারতে তিন প্রকারের রেশন কার্ড হয় ৷ দারিদ্র সীমার ওপরে থাকা মানুষের জন্য এপিএল (APL), দারিদ্র সীমার নিচে থাকা মানুষের জন্য বিপিএল (BPL) আর সবচেয়ে গরিব পরিবারগুলির জন্য অন্ত্যোদয়া (Antyodaya) ৷ রাজ্য সরকারের তরফে নাগরিকদের রেশন কার্ড জারি করা হয়ে থাকে, যা একটি পরিচয়পত্র হিসেবেও কাজ করে ৷ রেশন কার্ড তৈরি করার জন্য বেশ কিছু শর্ত পূরণ করতে হয় ৷ BPL ও Antyodaya যোজনার রেশন কার্ড তৈরির জন্য বেশ কিছু ডকুমেন্ট জমা করতে হয় ৷ সরকারের ফুড সিকিউরিটি অ্যাক্ট নতুন রেশন কার্ড তৈরির জন্য বেশ কিছু শর্ত রেখেছে ৷

কে বানাতে পারবেন রেশন কার্ড? >>দেশের যে কোনও নাগরিক রেশন কার্ড তৈরি করতে পারবেন >>নতুন রেশন কার্ড তখনই বানানো যাবে যদি আপনার পুরনো রেশন কার্ড না থাকে ৷ একজনের দুটি রেশন কার্ড থাকতে পারে না ৷ এটি অপরাধ হিসেবে দেখা হবে ৷ >>১৮ বছর হওয়ার পর রেশন কার্ড তৈরি করা যাবে ৷ >>১৮ বছরের কম যাদের বয়স তাদের নাম বাবা-মায়ের রেশন কার্ডে সামিল থাকে ৷ >>পরিবারের প্রধানের নামে রেশন কার্ড তৈরি করা হয় ৷

সমস্ত রাজ্য সরকারের খাদ্য বিভাগ নতুন রেশন কার্ড তৈরির দায়িত্বে থাকে ৷ রাজ্য সরকার রেশন কার্ড তৈরি করে থাকে ৷ ফলে রেশন কার্ড তৈরির নিয়ম আলাদা আলাদা রাজ্যে আলাদা হয় ৷ প্রত্যেক রাজ্যে আবেদন জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া আলাদা হয় ৷ অফলাইন ও অনলাইন দু’ভাবেই রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করা যেতে পারে ৷ উধারন হিসেবে বিহারে রেশন কার্ড তৈরি করতে হলে প্রথমে বিহার সরকারের ওয়েবসাইট http://epds.bihar.gov.in/Default.aspx থেকে ফর্ম ডাউনলোড করতে হবে ৷ পঞ্চায়েত থেকেও ফর্ম নিতে পারেবন ৷ ফর্মে সমস্ত তথ্য ফিলআপ করতে হবে ৷ এরপর নিজের ও পরিবারের সমস্ত সদস্যের নাম ও ছবি দিতে হবে ৷ মোবাইল নম্বর ও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের ডিটেল দিতে হবে ৷

এপ্রিল মাস থেকে বিহারে নতুন পদ্ধতিতে রেশন কার্ড তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে ৷ সরকারের তরফে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে বিহারে বিনামূল্যে রেশন কার্ড তৈরি করা হচ্ছে ৷ পাশাপাশি মাত্র ৭দিনের মধ্যে রেশন কার্ড তৈরি করে আবেদনকারীকে দেওয়া হচ্ছে ৷

রেশন কার্ড তৈরির জন্য পরিচয়পত্র হিসেবে আধার কার্ড, সরকারি ব্যাঙ্কের পাসবুক, ভোটার আইডি কার্ড, পাসপোর্ট, হেলথ কার্ড বা ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যবহার করা যেতে পারে ৷ এছাড়া আয়ের প্রমাণ পত্র, ঠিকানার প্রমাণ হিসেবে বিদ্যুতের বিল, গ্যাস কানেকশন বুক, টেলিফোন বিল ব্যবহার করতে পারবেন ৷

কিছু রাজ্যে রেশন কার্ড বিনামূল্যে তৈরি করা হয় তো কিছু রাজ্যে রেশন কার্ড বানানোর জন্য চার্জ নেওয়া হয়ে থাকে ৷ আলাদা আলাদা বর্গের জন্য রেশন কার্ডের আলাদা ফি হয় ৷ দিল্লিতে রেশন কার্ড তৈরি করলে ৫ থেকে ৪৫ টাকা পর্যন্ত ফি দিতে হতে পারে ৷

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: September 12, 2020, 5:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर