৫ বছরের কম বয়সী ভারতীয় নাগরিকের জন্য বাধ্যতামূলক বাল আধার কার্ড, দেখে নিন আবেদন করবেন কী ভাবে!

৫ বছরের কম বয়সী ভারতীয় নাগরিকের জন্য বাধ্যতামূলক বাল আধার কার্ড, দেখে নিন আবেদন করবেন কী ভাবে!

UIDAI শিশুদের বাল আধার কার্ড (Baal Aadhaar Card) বলে একটি প্রকল্প চালু করেছে। এর আওতায় একটি সদ্যোজাত শিশুও আধার কার্ডের জন্য যোগ্য।

UIDAI শিশুদের বাল আধার কার্ড (Baal Aadhaar Card) বলে একটি প্রকল্প চালু করেছে। এর আওতায় একটি সদ্যোজাত শিশুও আধার কার্ডের জন্য যোগ্য।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ভারতীয় আধার হল ১২ সংখ্যার একটি পরিচয় পত্র। যা Unique Identification Authority of India (UIDAI) দ্বারা জারি করা হয় সমস্ত ভারতীয় নাগরিকদের। সমস্ত সরকারি কাজে আধার কার্ডের প্রয়োজন হয়। তবে শুধুই যে বড়দের আধার কার্ড প্রয়োজন হয় তা নয়, কোনও সরকারি কাজে বা পাসপোর্ট তৈরি করতে গেলে, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলতে, বিভিন্ন সরকারি পরিকল্পনায় ছোটদের নাম যোগ করতে আধার কার্ড দরকার লাগে। পাশাপাশি শিশুর পরিচয় হিসাবেও কাজ করে আধার কার্ড। কার্ডটিতে নাম তালিকাভুক্তির সময় ডেমোগ্রাফিক এবং বায়োমেট্রিক তথ্য সংগ্রহ করা হয় এবং বিনামূল্যে প্রদান করা হয়। ভারতীয় নাগরিকের তালিকাভুক্ত থাকা বাধ্যতামূলক এবং এর অর্থ শিশুরাও এর আওতায় পড়ে। UIDAI শিশুদের বাল আধার কার্ড (Baal Aadhaar Card) বলে একটি প্রকল্প চালু করেছে। এর আওতায় একটি সদ্যোজাত শিশুও আধার কার্ডের জন্য যোগ্য। বাচ্চাদের আধার তালিকাভুক্তি প্রাপ্তবয়স্কদের মতো হবে। বাড়ির পাশের কেন্দ্রে যেতে হবে এবং প্রয়োজনীয় তথ্য-সহ ফর্মটি পূরণ করতে হবে। শিশুর আধার কার্ড বিনামুল্যে প্রদান করা হবে। এ ক্ষেত্রে বায়োমেট্রিক ডেটা নেওয়া হবে না। শিশু বড় হয়ে ১৫ বছর হলে ফিঙ্গারপ্রিন্ট রেজিস্টার ও ফেস স্ক্যান করতে লাগবে। তবে করোনাকালে ঘরে বসে মুঠো ফোন শিশুর আধার কার্ড তৈরি করতে চাইলে, অনলাইনে কিছু সামান্য ধাপে এই কাজ সহজে হতে পারে। ৫ বছরের কম বয়সের শিশুর আধার কার্ডের আবেদন জানাবেন কী ভাবে? নিচে দেওয়া হল।

    স্টেপ ১- UIDAI-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://uidai.gov.in/ লগইন করতে হবে।

    স্টেপ ২- আধার কার্ড রেজিস্ট্রেশন লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে।

    স্টেপ ৩- প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য, যেমন সন্তানের নাম, বাবা ও মায়ের ফোন নম্বর, ই-মেল নথিভুক্ত করতে হবে। Aadhaar Enrolment ফর্ম পূরণ করতে হবে।

    স্টেপ ৪- এর পর ঠিকানা, এলাকা, জেলা/শহর, রাজ্য এবং এই জাতীয় তথ্য পূরণ করতে হবে।

    স্টেপ ৫- এর পর অ্যাপয়েন্টমেন্ট বোতামে ক্লিক করে আধার কার্ড রেজিস্ট্রেশনের তারিখ নির্ধারণ করতে হবে।

    স্টেপ ৬- এবার নিকটতম কেন্দ্রটি নির্বাচন করতে হবে।

    স্টেপ ৭- সমস্ত প্রয়োজনীয় নথি- সন্তানের জন্মের শংসাপত্র, বাবা-মায়ের আধার কার্ডের ফটো কপি এবং রেফারেন্স নম্বর সঙ্গে নিয়ে নির্দিষ্ট সময়ে কাছের কেন্দ্রে যেতে হবে।

    স্টেপ ৮- আধার অফিসার সমস্ত নথি যাচাই করবেন এবং যদি শিশুটির বয়স ৫ বছর হয় তবে বায়োমেট্রিক তথ্য নেওয়া হবে এবং আধার কার্ডের সঙ্গে যুক্ত করা হবে। যদি শিশুটি ৫ বছরের কম হয় তবে কেবল ছবি তোলা হবে কোনও বায়োমেট্রিকের প্রয়োজন হবে না।

    স্টেপ ৯- কনফার্মেশন/ভেরিফিকেশন প্রসেসের জন্য আবেদনকারীকে একটি অ্যাকনলেজমেন্ট নম্বর দেওয়া হবে যা দিয়ে আবেদনের স্থিতি ট্র্যাক করা যাবে।

    স্টেপ ১০- আবেদনকারী ৬০ দিনের মধ্যে রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে এসএমএসের মাধ্যমে একটি নোটিফিকেশন পাবেন।

    স্টেপ ১১- এনরোলমেন্ট প্রসেস শেষ হওয়ার পরে, ৯০ দিনের মধ্যে বাল আধার কার্ড পাওয়া যায়।

    First published:

    লেটেস্ট খবর