বন্ধ পড়ে থাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে তুলতে পারবেন টাকা, দেখে নিন কীভাবে...

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে, কোনও গ্রাহক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে লাগাতার ১০ বছর কোনও লেনদেন না করলে অ্যাকাউন্টে জমা টাকা আনক্লেমেড হয়ে যায় ৷

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে, কোনও গ্রাহক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে লাগাতার ১০ বছর কোনও লেনদেন না করলে অ্যাকাউন্টে জমা টাকা আনক্লেমেড হয়ে যায় ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট অনেক লম্বা সময় ধরে অপারেট না করে থাকলে সেটি ডরম্যান্ট অ্যাকাউন্ট (Dormant Account) হয়ে যায় ৷ অর্থাৎ অ্যাকাউন্টটি ইনঅ্যাক্টিভ হয়ে যায় ৷ আপনার সঙ্গে এরকম হয়ে থাকলে চিন্তার কোনও কারণ নেই ৷ এই বন্ধ থাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকেও আপনি টাকা তুলতে পারবেন ৷ এর জন্য সহজ কিছু স্টেপ মেনে চলতে হবে ৷ ব্যাঙ্কের কাছে থাকা এই ধরনের অ্যাকাউন্টে আনক্লেমেড টাকা লাগাতার বেড়েই চলেছে ৷ আনক্লেমেড টাকার মধ্যে সেভিংস অ্যাকাউন্ট, কারেন্ট অ্যাকাউন্ট, এফডি, আরডি থেকে থাকা জমা টাকা হতে পারে ৷

    রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে, কোনও গ্রাহক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে লাগাতার ১০ বছর কোনও লেনদেন না করলে অ্যাকাউন্টে জমা টাকা আনক্লেমেড হয়ে যায় ৷ ব্যাঙ্কের কাছে প্রতিবছর এই ধরনের টাকা বাড়তেই চলেছে ৷ আর্থিক বছর ২০১৯ সালের শেষে ব্যাঙ্কে এই ধরনের টাকা প্রায় ১৮৩৮০ কোটি টাকা হয়ে গিয়েছিল ৷ তার আগের আর্থিক বছরে সেটি ১৪৩০৭ কোটি টাকা ছিল ৷

    এই সমস্ত টাকা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের Depositor Education and Awareness Fund-এ ট্ক ট্রান্সফার করা হয়ে থাকে ৷ নিয়ম অনুযায়ী, প্রত্যেক ব্যাঙ্কের নিজেদের ওয়েবসাইটে আনক্লেমড টাকার বিষয়ে জানাতে হয় ৷ আপনি ব্যাঙ্কের ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনার ডরম্যান্ট অ্যাকাউন্টের বিষয়ে জানতে পারবেন ৷ এর জন্য জন্ম তারিখ, নাম, প্যান নম্বর, পাসপোর্ট নম্বর, পিনকোড ও টেলিফোন নম্বর দিয়ে সার্চ করতে পারবেন ৷

    ডরম্যান্ট অ্যাকাউন্ট অ্যাক্টিভ করার জন্য ব্যাঙ্কের শাথায় একটি ই-মেল পাঠাতে হবে ৷ ই-মেলে আপনাকে রিকোয়েসট করতে হবে আপনার অ্যাকাউন্ট রিঅ্যাক্টিভেট করার জন্য ৷ এর জন্য আপনার পরিচয় পত্র ও ঠিকানার প্রমাণ পাঠাতে হবে ৷ আপনার আবেদন পাওয়ার কয়েক দিনের মধ্যেই অ্যাকাউন্ট রিঅ্যাক্টিভেট করে দেওয়া হবে ৷ এবং এরপর সহজেই অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলতে পারবেন ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: