corona virus btn
corona virus btn
Loading

আয়কর জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর, না দিলে জরিমানা কত ? জেনে নিন

আয়কর জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর, না দিলে জরিমানা কত ? জেনে নিন

করোনা অতিমারীর জেরে ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে আয়কর জমা দেওয়ার সময়সীমা ইতিমধ্যেই তিনবার বর্ধিত করা হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: ৩০ সেপ্টেম্বর তারিখটা ক্যালেন্ডারে দাগ দিয়ে রেখেছেন তো? যদি ভুলে গিয়ে থাকেন তাহলে মনে করিয়ে দেওয়া যাক। ওই দিন হল ২০১৯-২০ অ্যাসেসমেন্ট বর্ষে (২০১৮-১৯  অর্থ বর্ষ) আয়কর (আইটিআর) জমা দেওয়ার শেষ তারিখ।

করোনা অতিমারীর জেরে ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে আয়কর জমা দেওয়ার সময়সীমা ইতিমধ্যেই তিনবার বর্ধিত করা হয়েছে। প্রথমবার এটি ৩০ জুনের পরিবর্তে ৩১  জুলাই করা হয়। আপনি যদি কোনও কারণবশত গত বছরের আয়কর জমা দেওয়ার ফাইলে কোনও পরিবর্তন বা সংশোধন করতে চান, তা হলে একটা সংশোধনী ফাইল আবার জমা দিতে পারেন।

তা ছাড়া মনে রাখা জরুরি- দেরি করে আয়কর জমা দেওয়া, করের সুদ না দেওয়া বা দেরি করে এ সংক্রান্ত কিছু ফাইল করার জন্য যে জরিমানা সরকার এ সব ক্ষেত্রে নিয়ে থাকেন, তার জন্য কিন্তু কোনও ছাড় নেই। সেটা আগের মতোই আছে। তাই যত দ্রুত সম্ভব আয়কর জমা দিয়ে দিলেই আপনার মঙ্গল। সে ক্ষেত্রে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জেনে নেওয়া প্রয়োজন।

সঠিক তারিখের মধ্যে আপনি যদি আয়করের রিটার্ন জমা না করেন, তাহলে আয়কর বিভাগ আপনাকে একটা বিজ্ঞপ্তি বা নোটিস পাঠাবে। যদি আয়কর জমা দেওয়ার শেষ তারিখ আর বর্ধিত না হয় তা হলে এটাই FY19-এর জন্য আয়কর জমা দেওয়ার এটাই শেষ সুযোগ। কারণ এর পর আয়কর বিভাগ আপনাকে আর কর জমা দিতে দেবে না।

নির্ধারিত তারিখ পেরিয়ে যাওয়ার পর আয়করের ফাইল তৈরির প্রক্রিয়া বেশ দীর্ঘ। আর সেটা একমাত্র বিশেষ পরিস্থিতিতেই আয়কর বিভাগের অনুমতি-সহ করা যায়। করের সুদে বা দেরি করার ক্ষতিপূরণে কোনও ছাড় নেই ৷ যদি কোনও কারণে করদাতা আইটিআর-এর বিলম্বিত তারিখের (যেটা এফওয়াই ১৯-এর ক্ষেত্রে ছিল ৩১ অগাস্ট) মধ্যে আয়কর জমা না করেন, তা হলে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে তাঁকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। আবার ৩১ ডিসেম্বর থেকে ৩১ মার্চের মধ্যে আয়কর জমা করলে আপনাকে ১০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

যাঁরা অল্প টাকা কর দেন, যাঁদের আয় ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত, তাঁরা যদি ৩১ মার্চ নাগাদ আয়কর ফাইল জমা দেন, তা হলে তাঁদের ১ হাজার টাকা দিতে হবে।এমনকী, আপনি যদি FY19-এর ফাইল সেপ্টেম্বরের মধ্যেও জমা করেন তা হলেও আপনাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে।

যদি কোনও কারণে করদাতা আইটিআর-এর বিলম্বিত তারিখের (যেটা এফওয়াই ১৯-এর ক্ষেত্রে ছিল ৩১ অগাস্ট) মধ্যে আয়কর জমা না করেন, তা হলে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে তাঁকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। আবার ৩১ ডিসেম্বর থেকে ৩১ মার্চের মধ্যে আয়কর জমা করলে আপনাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে।

যাঁরা অল্প টাকা কর দেন, যাঁদের আয় ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত, তাঁরা যদি ৩১ মার্চ নাগাদ আয়কর ফাইল জমা দেন, তা হলে তাঁদের ১ হাজার টাকা দিতে হবে।

টাকা ফেরত পাওয়ায় দেরি:

যদি আপনার কিছু টাকা আয়কর বিভাগের কাছে প্রাপ্য থাকে তা হলে সেটা পেতেও কিন্তু দেরি হবে। কারণ আপনি আয়কর ফাইল জমা করলে তবেই সেই প্রক্রিয়া শুরু হবে। টাকা ফেরত দেওয়ার ক্ষেত্রে আয়কর বিভাগ কিছু সুদও দেয়। তাই আপনি যদি দেরি করে ফাইল জমা দেন, তা হলে আপনার সুদের টাকার সঠিক পরিমাণ আর কিন্তু পাবেন না। ফাইল দিতে দেরি হলে আগের সুদ কেটে নেওয়া হবে।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: September 23, 2020, 10:36 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर