?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

EPFO: চালু হল প্রভিডেন্ট ফান্ডের হেল্পলাইন নম্বর, অভিযোগ জানানো যাবে WhatsApp-এও!

EPFO: চালু হল প্রভিডেন্ট ফান্ডের হেল্পলাইন নম্বর, অভিযোগ জানানো যাবে WhatsApp-এও!

সংগঠন নিয়ে কোনও অভিযোগ থাকলে তা জানানো যাবে হেল্পলাইন নম্বরে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: গ্রাহকদের সুবিধের কথা মাথায় রেখে নিজেদের হেল্পলাইন নম্বর চালু করল এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড (EPFO)। সংগঠন নিয়ে কোনও অভিযোগ থাকলে তা জানানো যাবে হেল্পলাইন নম্বরে।

এমনিতেই প্রভিডেন্ট ফান্ডের ব্যাপার-স্যাপার কম জটিল নয়। এ নিয়ে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই কর্মীদের কোনও স্বচ্ছ তথ্য দেয় না অনেক সংস্থাই! শুধু বেতন থেকে একটা নির্দিষ্ট অংশ কেটে বাকিটা তুলে দেওয়া হাতে। আর বলা হয়, বাকি অঙ্কটা রইল সঞ্চয়ের জন্য, ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে সরকারি খাতে!

তা, সরকারি প্রকল্প যখন, তখন টাকা মার যাওয়ার ভয় নেই। কিন্তু কী ভাবে সেই টাকা তুলতে হয়, তা অনেকেই জানেন না। এ ছাড়াও তো থাকতে পারে অভিযোগও! সেই লক্ষ্যেই এ বার চালু হল WhatsApp হেল্পলাইন নম্বর।

WhatsApp পরিষেবা চালু করার পর থেকে সোশ্যাল মিডিয়া মারফত অভিযোগ জানানোর ঘটনা ক্রমশ কমেছে। Facebook, Twitter-এ অভিযোগ জানানোর ঘটনা কমেছে ৩০ শতাংশ। এমনকী, ইপিএফও-র অনলাইন পোর্টালে গিয়ে অভিযোগ জানানোও কমেছে ১৬ শতাংশ।

সারা দেশ জুড়ে ১৩৮টি দফতর রয়েছে ইপিএফও-এর। প্রত্যেক অফিসেই শুরু হয়ে গিয়েছে WhatsApp পরিষেবা। কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রক থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পিএফ গ্রাহকদের সমস্যার আরও সহজ সমাধানের জন্য খোলা হল WhatsApp হেল্পলাইন। এটিকে গ্রিভান্স রিড্রেসাল মেকানিজম বলে চিহ্নিত করেছে কেন্দ্র।

কী ভাবে এই পরিষেবা নেবেন জেনে নিন।

প্রথম ধাপ: আপনার ফোনে WhatsApp ইনস্টল করুন। বৈধ ফোন নম্বর দিয়ে রেজিস্টার করুন। দ্বিতীয় ধাপ: https://www.epfindia.gov.in/site_en/index.php এই ওয়েবসাইটে যান। তৃতীয় ধাপ: আপনার আঞ্চলিক দফতরের WhatsApp নম্বরটি জেনে নিন। চতুর্থ ধাপ: নম্বরটি আপনার ফোনে সেভ করুন। পঞ্চম ধাপ: ওই নম্বরে ক্লিক করুন। ষষ্ঠ ধাপ: আপনার জিজ্ঞাসা অথবা অভিযোগ থাকলে লিখে ফেলুন, সেন্ড করুন। সপ্তম ধাপ: আপনার প্রশ্ন অথবা জিজ্ঞাসার ভিত্তিতে আপনি ইপিএফও থেকে একটি উত্তর পাবেন।

তাই ঘরে বসেই এ বার থেকে নিজেদের অভিযোগ জানাতে পারবেন গ্রাহকেরা। অভিযোগ জানানোর পদ্ধতিটিও সহজ। জিজ্ঞাসা অথবা অভিযোগ থাকলে আর প্রভিডেন্ট ফান্ডের দফতরে যাওয়ার দরকার নেই, বিশেষ করে এই অতিমারী আবহে। করোনা সংক্রমণ আটকাতে এমনিতেই তো ভিড়ে যেতে বারণ করছে প্রশাসন! গ্রাহকদের জন্য ২৪ ঘণ্টাই খোলা থাকবে হেল্পলাইনের WhatsApp নম্বর।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: October 15, 2020, 12:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर