Digital recruitment: করোনার জেরে দেশে ডিজিটাল নিয়োগই কি ভবিষ্যৎ? বিশেষজ্ঞরা যা বলছেন...

ভবিতব্য?

Digital recruitment: এই মহামারীকালে সংস্থাগুলি তাদের নিয়োগের পুরো প্রক্রিয়া তথা, নির্বাচন, স্ক্রিনিং, সাক্ষাৎকার এবং অনবোর্ডিংয়ের জন্য একটি ভার্চুয়াল মাধ্যমকেই বেছে নিয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: অতিমারীর জেরে দেশ জুড়ে বিভিন্নভাবে পরিবর্তন এসেছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রায়। করোনার মারণ কামড় থেকে বাঁচতে গৃহবন্দি হয়েছেন বিশ্ববাসী। শিক্ষাক্ষেত্র থেকে শুরু করে চাকরিক্ষেত্র সর্বত্রই এসেছে এক বিরাট পরিবর্তন। শুরু হয়েছে অনলাইন ক্লাস, শুরু হয়েছে অনলাইন নিয়োগ প্রক্রিয়া। তাই কর্পোরেটগুলি সেই সমস্ত ক্রমবর্ধমান প্রযুক্তি-সহায়ক নিয়োগের সরঞ্জামগুলির উপর নির্ভরশীলতা বাড়াচ্ছে যেগুলি দূর থেকে লাভজনকভাবে ব্যবহার করা যায়। বিশেষজ্ঞরা নিয়োগের একটি ভার্চুয়াল মডেলের বিবরণ দিয়েছেন।

২০২০ সালে নতুন যুগের প্রযুক্তির সহায়তায় নিয়োগ একপ্রকার নতুন মাত্রা পেয়েছিল। তবে করোনাকালে ব্যবহৃত এই নতুন যুগের নিয়োগের সরঞ্জামগুলি ভবিষ্যতেও ব্যাপকভাবে এবং ক্রমবর্ধমানভাবে বিকাশ লাভ করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

Mercer – Mett-এর CEO সিদ্ধার্থ গুপ্তার (Siddhartha Gupta) কথায়, "কর্পোরেটগুলি নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য ডেটা-ভিত্তিক এবং বিশ্লেষণ-চালিত ইনপুট রাখতে চায় এবং তারা প্রার্থীদের সাংস্কৃতিক এবং কাজের ভূমিকা, ফিটনেস ইত্যাদি নিশ্চিত করার জন্য বিভিন্ন আধুনিক সরঞ্জাম নিয়োগ করে।"

গুপ্তার কথায়, "কর্মসংস্থানের পূর্বে প্রযুক্তিগত মূল্যায়ন, উন্নত কোডিং সিমুলেটর এবং অনলাইন কোডিং সাক্ষাৎকারগুলির জন্যও সফটওয়্যার ডেভলপার, ডেটা বিশেষজ্ঞ, ডেটা মাইনিং প্রফেশনাল, এবং ফ্রন্ট-এন্ড ও ব্যাক-এন্ড ডেভেলপারদের নিয়োগের জন্য বর্তমানে প্রচুর চাহিদা রয়েছে।"

এই মহামারীকালে সংস্থাগুলি তাদের নিয়োগের পুরো প্রক্রিয়া তথা, নির্বাচন, স্ক্রিনিং, সাক্ষাৎকার এবং অনবোর্ডিংয়ের জন্য একটি ভার্চুয়াল মাধ্যমকেই বেছে নিয়েছে। এমনকি নিয়োগ পরবর্তী সমস্ত অফিসিয়াল কাজকর্মও হচ্ছে অনলাইনের মাধ্যমে।

গুপ্তা বলেন, "IT কোম্পানিগুলোর ক্লায়েন্টরাই আমাদের মূল্যায়নগুলি গ্রহণের বৃহত্তম অংশ"!

Teamlease.com ও Freshersworld.com-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং বিজনেস হেড কৌশিক বন্দ্যোপাধ্যায় (Kaushik Banerjee) বলেন HR টেক এখন তার অবস্থানকে অনেক বেশি শক্তিশালী করেছে। HR এবং প্রতিভা অধিগ্রহণ দলগুলিকে আরও ভালো অভিজ্ঞতা এবং উপযুক্ত আউটপুট দেওয়ার জন্য তারা নিত্যনতুন প্রযুক্তির উপর কাজ করছে।

নতুন যুগের এই ডিজিটাল পদ্ধতির অনুশীলনগুলি করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতেও বিশ্বব্যাপী সংস্থাগুলির কাছে গ্রহণযোগ্য হবে এবং সংস্থাগুলি এই ভার্চুয়াল মডেলটিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন কৌশিক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি আরও যোগ করেছেন, "আমাদের প্রাক-মূল্যায়ন সমাধান- CEAT, নিয়োগকারীদের একসঙ্গে ৮৫-৯০ শতাংশ প্রতিভাকে সনাক্ত করতে সহায়তা করে। এমনকি ৪০ হাজারের বেশি ক্রেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রে এই সুবিধা ব্যবহার করছেন।'

First published: